শনিবার, ২৫ মে, ২০২৪, ঢাকা

জার্মানির বাধা হতে পারে এশিয়ান 'পাওয়ার হাউস'  

স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ২০ নভেম্বর ২০২২, ০৮:৪৫ পিএম

শেয়ার করুন:

জার্মানির বাধা হতে পারে এশিয়ান 'পাওয়ার হাউস'  

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কাতারে ২০ নভেম্বর পর্দা উঠতে যাচ্ছে ফুটবল বিশ্বকাপের ২২ তম আসরের। এবারের আসরে শিরোপা লড়াইয়ে মাঠে নামবে ফিফা অন্তর্ভুক্ত ৩২টি জাতীয় ফুটবল দল। সেই লড়াউয়ের স্পেন, জার্মানি, জাপান ও কোস্টারিকাকে নিয়ে রোমাঞ্চকর এক গ্রুপ ‘ই’। তবে দুই সাবেক চ্যাম্পিয়নদের নক আউটের পথে বাধা হতে পারে এশিয়ান পাওয়া হাউস। গ্রুপ পর্বের দল পরিচিতি, শক্তি, দুর্বলতা ও সম্ভাবনা নিয়ে জানাবো গ্রুপ-‘ই’র দল পরিচিতি।

দুই সাবেক চ্যাম্পিয়ন জার্মানি ও স্পেনের অন্তর্ভূক্তি বাড়তি মাত্রা দিয়েছে গ্রুপ ‘ই’ কে। এশিয়ান পাওয়ার হাউস জাপান থাকায় নক আউটের সমীকরণ মেলাতে তাই বেশ কঠিন পরীক্ষাই দিতে হবে দুই ইউরোপিয়ান দেশকে।


বিজ্ঞাপন


তবে অপটা অ্যানালাইসিসের মতে, চ্যাম্পিয়ন হয়েই নক আউটে পা রাখবে ২০১০ আসরের চ্যাম্পিয়ন স্পেন। ২০২০ ইউরো সেমিফাইনাল ও নেশন্স লিগে ব্যাক টু ব্যাক ফাইনালও এগিয়ে রাখছে এনরিকের দলকে।

ডেভিড ডি গেয়া-সার্জিও রামোস-থিয়াগো আলকানতারার মতো তারকাদের পরিবর্তে তারুণ্যে আস্থা রেখেছে লা রোহা ফিউরি। তবে বিশ্বমঞ্চে ফেরান তোরেস, আলভারো মোরাতা, পাওলো সারাবিয়ারা কতটা জ্বলে উঠতে পারবেন তাই দেখার বিষয়। কাতারে স্পেনের ভাগ্য অনেকটাই নির্ভর করছে বার্সেলোনার মিডফিল্ড ত্রয়ী সার্জিও বুসকেটস, গাভি ও পেদ্রির রসায়নের উপর।   

গ্রুপ শ্রেষ্ঠত্বের আরেক দাবিদার জার্মানি। তবে বুড়ো ম্যানুয়েল নয়্যার, থমাস মুলার আর একঝাঁক তরুণ তুর্কী কতটা আস্থার প্রতিদান দিতে পারবেন সেটাই প্রশ্ন। ডিমেনশেফটদের ভোগাতে পারে ভালো স্ট্রাইকারের অভাবও। যদিও ইয়াশুয়া কিমিখ-জামাল মুসিয়ালা-সার্জ গ্যানাব্রি-লেরয় সানেদের ফ্রেশ ব্লাডে স্বপ্ন বুনতে পারেন হ্যান্সি ফ্লিক।

বিশ্বকাপ বাছাই ৯ ম্যাচের দশটিতেই জিতেছে ডিমেনশেফট। তবে ভাবনার নাম নেশন্স লিগে ৬ ম্যাচে মাত্র এক জয়। সবমিলে এবছর ৮ ম্যাচে সংখ্যা মাত্র দুই। তাই অঘটন এড়াতে জাপান, কোষ্টারিকা ম্যাচে বাড়তি সতর্ক থাকতে হবে চারবারের চ্যাম্পিয়নদের।


বিজ্ঞাপন


চোখ থাকবে এশিয়ান পাওয়ার হাউস জাপানের দিকেও। দুরন্ত ফর্ম নিয়েই কাতারে যাচ্ছে দলটি। ২০২১ অক্টোবরের থেকে খেলা ১৩ ম্যাচে মাত্র দুটিতে হেরেছে সামুরাই ব্লুস। লিভারপুলের তাকুমি মিনামিনো-ব্রাইটন মিডফিল্ডার কাওরু মিতোমা ও রিয়াল মাদ্রিদ উইঙ্গার তাকেফুসা কুবোয় বড় স্বপ্ন দেখছে র‍্যাঙ্কিংয়ের ২৪ নম্বরে থাক দলটি।

অঘটনের জন্ম দিতে না পারলে গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় প্রায় নিশ্চিত কোস্টারিকার। যদিও ২০১৪ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ড-ইতালি-উরুগুয়ের মতো দলগুলোর সঙ্গে টেক্কা দিয়েই নক আউটে পা রেখেছিল কনকাকাফ অঞ্চলের দলটি। স্পট লাইটে থাকবেন ছোট দলের বড় তারকা কেইলর নাভাস। 

এসটি 

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

টাইমলাইন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর