শনিবার, ২০ এপ্রিল, ২০২৪, ঢাকা

রাজার বেশেই সাম্রাজ্য টিকিয়ে রাখলেন মেসি

ফুয়াদ হাসান
প্রকাশিত: ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০৫:১২ এএম

শেয়ার করুন:

রাজার বেশেই সাম্রাজ্য টিকিয়ে রাখলেন মেসি

সময় বয়ে যায়, অপেক্ষা বাড়ে একটি গোলের। বিশ্বকাপ আসরে যে নিজ দলকে টিকিয়ে রাখতে হলে তাকেই কিছু করে দেখাতে হবে, তা হয়তো বেশ ভালোভাবেই জানা ছিল লিওনেল মেসির। করেও দেখালেন এই ক্ষুদে জাদুকর। দেখালেন কিভাবে লিখতে হয় স্বপ্ন জয়ের গল্প। লুসাইলের গ্যালারিতে তখন কান পাতা দায়। মেসির ম্যাজিক্যাল গোলে পুরো স্টেডিয়াম তখন প্রকম্পিত। তার এই গোলেই বিশ্বকাপ যেন নতুন করে ফিরে পেল প্রাণ। তবে তখনও গল্পের বাকি বেশ খানিকটা। ‘লা পুলগা’ যেমন নিজে সামনে থেকে দলকে নেতৃত্ব দিলেন, ঠিক তেমনি সতীর্থ তরুণ ফুটবলার অ্যানো ফার্নান্দেজকে দিয়ে লিখালেন স্বপ্ন জয়ের বাকি গল্পটুকুও।

যতবার দেশকে নিজের সেরাটা দেয়ার দরকার পড়েছে, ততবারই যেন ত্রাতা হয়ে এসেছেন ‘এলএমটেন’। ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপেও নাইজেরিয়ার বিপক্ষে এমনই বাঁচা-মরার ম্যাচে মাঠে নেমেছিল আর্জেন্টিনা। সেবারও দলের প্রথম গোল এসেছিল মেসির এই জাদুকরী পা থেকে। ঠিক তেমনি এবারের আসরেও প্রথম ম্যাচে সৌদি আরবের বিপক্ষে লড়াইয়ে তার পা থেকেই আসে প্রথম গোল। এরই ধারাবাহিকতায় দলের প্রয়োজনে আজও মেক্সিকোর বিপক্ষে সেই চির অধরা গোলের কারিগর ক্ষুদে জাদুকর মেসি।


বিজ্ঞাপন


আরও পড়ুন- মেসি জাদুতে আর্জেন্টিনার দুর্দান্ত জয়

কাতারের লুসাইল স্টেডিয়ামে প্রায় ৮৯ হাজার দর্শকের সামনে ‘সি’ গ্রুপের ম্যাচে মেক্সিকোর বিপক্ষে ২-০ গোলে জিতেছে লিওনেল স্ক্যালোনির দল। ম্যাচে চোখ ধাঁধানো এক গোল করার পাশাপাশি তরুণ অ্যানো ফার্নান্দেসকে দিয়েও করিয়েছেন অনবদ্য এক গোল।

আসরে টিকে থাকার লক্ষ্যে দলে আজ পাঁচটি পরিবর্তন নিয়ে আসেন আর্জেন্টাইন কোচ লিওনেল স্ক্যালোনি। ম্যাচের শুরুটা দুর্দান্ত হলেও আচমকাই খেই হারিয়ে ফেলে আর্জেন্টাইন ফুটবলাররা। খেলায় ধীরে ধীরে নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার চেষ্টা করতে থাকে মেক্সিকো। দুইবার গোলের কাছাকাছিও পৌঁছে যায় দলটি। সেই সময় প্রতিপক্ষের চাপে রক্ষণ নিয়ে বেশ ব্যস্ত হয়ে পড়ে আর্জেন্টিনা। সময়ের সঙ্গে বলের নিয়ন্ত্রণও নিজেদের করে নেয় মেক্সিকো। তবে দুই দলের ফরোয়ার্ডদের ব্যার্থতায় গোলশূন্য ব্যবধানেই শেষ হয় প্রথমার্ধের খেলা।


বিজ্ঞাপন


তবে বিরতি থেকে ফিরে যেন লোহার শিকল ভেঙ্গে বেরিয়ে আসেন দলের প্রাণভ্রোমরা লিওনেল মেসি। দীর্ঘ এক ঘণ্টা অপেক্ষার ইতি টানলেন এই তারকা ফুটবলার। ৬৪তম মিনিটে ডি মারিয়ার কাছ থেকে পাওয়া বলে গোলের ২৫ গজ বাইরে থেকে নিলেন এক জাদুকরী শট। আর এতেই যেন লক্ষ্যভেদ হল পুরো ম্যাচে দারুণ খেলা মেক্সিকোর সব প্রচেষ্টা। রচনা হল আলবেসেলিস্তাদের আসরে টিকে থাকার নতুন পথচলার। আর এই গোলেই বিশ্বকাপের মঞ্চে আর্জেন্টিনার হয়ে ২১ ম্যাচে ৮ গোলের কীর্তি গড়লেন মেসি। ভাগ বসালেন কিংবদন্তী দিয়েগো ম্যারাডোনার ২১ ম্যাচে ৮ গোলের রেকর্ডবুকে।

আরও পড়ুন- এমবাপের জোড়া গোলে শেষ ষোলোতে ফ্রান্স

মেসির পা থেকে আসা গোলের পরই যেন প্রাণ ফিরে পায় আর্জেন্টিনার ফুটবল। যে প্রাণে শেষবারের মত হাওয়া লাগান গিদো রদ্রিগেসের বদলি হিসেবে নামা তরুণ তুর্কী অ্যানো ফার্নান্দেজ। মেসির পাস থেকে পাওয়া বল জোরাল শটে ওচোয়াকে ফাঁকি দিয়ে লক্ষ্যভেদ করেন ২১ বছর বয়সী এই বেনফিকা ফুটবলার। আর এই গোলেই রচিত হয় আলবেসেলিস্তাদের শেষ ষোলোতে ওঠার স্বপ্নযাত্রার।

এফএইচ

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

টাইমলাইন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর