রোববার, ১৪ জুলাই, ২০২৪, ঢাকা

আর্জেন্টিনার কোচের নামে রাস্তা, আবেগাপ্লুত স্কালোনি

স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮:৩৩ এএম

শেয়ার করুন:

আর্জেন্টিনার কোচের নামে রাস্তা, আবেগাপ্লুত স্কালোনি

১৯৮৬ সালে সর্বশেষ বিশ্বকাপ জিতেছিল আর্জেন্টিনা। এরপর দুইবার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার কাছাকাছি গিয়েও স্বপ্ন ধরা দেয়নি। রানার আপ হতে হয়েছিল। অবশেষে দুই লিওর হাত ধরে দীর্ঘ ৩৬ বছর পর বিশ্বজয়ের স্বাদ পায় আর্জেন্টিনা। যে দুই লিওর কারণে বিশ্বজয় তাদের একজন দলটির কোচ লিওনেল স্কালোনি। তার মগজাস্ত্রে সৌদি আরবের কাছে প্রথম ম্যাচ হেরে শঙ্কায় থাকা আর্জেন্টিনা বিশ্বজয় করে।

কাতারে বিশ্বকাপ জয়ের পেছনে তার এমন কৃতিত্বে গর্বিত স্কালোনির এলাকার মানুষও। আর্জেন্টিনার পুহাতো নামক একটি ছোট্ট শহরের জন্ম নেওয়া স্কালোনির এমন অর্জনে তাকে মাথায় তুলে নিলেও এলাকাবাসী। তাদের ছোট্ট শহরের গর্ব লিওনেল স্কালোনি, এখন তাদের কাছে কিংবদন্তি। তার ছোট্ট শহর যেখানে মাত্র ৪০০০ জনসংখ্যা সেখানে এখন নায়ক স্কালোনি।


বিজ্ঞাপন


সেখানকার জনপ্রতিনিধি জানিয়েছেন পুহাতো শহরে রাস্তার নামকরণ হবে স্কালোনির নামে। নিজ শহরে তার সম্মানে সড়কের নাম হওয়ার কথা শুনে আবেগপ্রবণ হয়ে যায় আর্জেন্টাইন কোচ। বললেন, আমার শহরের রাস্তা দিয়ে চলতে গেলে অনেক মানুষ যাদের আমি ছোটো থেকে কখনো দেখিনি, জাতীয় দলের জন্য অশ্রু ঝরাচ্ছে। এর থেকে ভালো কিছু হয় না, এটাই সবথেকে সুখদায়ক এবং আমাকে গর্বিত করে।

road-2

দলকে বিশ্বজয় করার পর প্রশংসায় ভাসলেও স্কালোনিকে কম কথা শুনতে হয়নি। আর্জেন্টিনার ছোট শহরে জন্ম নিলেও ক্যারিয়ারের কারণে ছোট থেকেই দেশের বাইরে থেকেছেন তিনি। সেজন্য তাকে পুরো আর্জেন্টাইন হিসেবে গন্য করতেন না খোদ আর্জেন্টাইনরাই। জাতীয় দলের দায়িত্ব তাকে দেওয়ার পর তাই খুব একটা খুশি ছিলেন না কেউ। তবে যোগ্য জবাব দিয়ে সকলের মুখ বন্ধ করে দেন আর্জেন্টাইন কোচ। পরপর সাফল্য এনে দিলেন মেসিদের মাস্টার মাইন্ড স্কালোনি।

আর্জেন্টাইন ফুটবল ইতিহাসে তিনি এখন আরেক বিশ্বকাপজয়ী কোচ। ১৯৭৮ সালে সিজার লুইস মোনোত্তি আর ১৯৮৬ সালে কার্লোস বিলার্দোর সঙ্গে বিশ্বজয়ী কোচ হিসেবে তার নামও এখন ব্র্যাকেটবন্দী। সেজন্যই তার বন্দনায় ভাসছে পুরো আর্জেন্টিনার মানুষ।


বিজ্ঞাপন


এমআর

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

টাইমলাইন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর