বুধবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২৪, ঢাকা

পদ্মা সেতুতে বিদ্যুৎ সংযোগের কাজ সম্পন্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২৫ মে ২০২২, ০৭:৪০ পিএম

শেয়ার করুন:

পদ্মা সেতুতে বিদ্যুৎ সংযোগের কাজ সম্পন্ন

স্বপ্নের পদ্মা সেতুতে বিদ্যুৎ সংযোগের কাজ সম্পন্ন হয়েছে বলে জানিয়েছে জ্বালানি ও খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয়। ইতোমধ্যে সেতুটি যানবাহন চলাচলের পুরোপুরি উপযোগী হয়েছে। আগামী ২৫ জুন কোটি মানুষের কাঙ্ক্ষিত সেতুটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্বোধন করবেন।  

বুধবার (২৫ মে) বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. আনোয়ার হোসেন (পরিচালক) ঢাকা মেইলকে এই তথ্য জানিয়েছেন।


বিজ্ঞাপন


এই কর্মকর্তা বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃঢ় সংকল্প আর প্রত্যয়ের প্রতীক পদ্মা সেতু আগামী ২৫ জুন উদ্বোধন হতে চলেছে। বাংলাদেশের স্বপ্নের, গর্বের, প্রত্যয়ের পদ্মা সেতুতে গতকাল ২৪ মে শরীয়তপুর পবিস কর্তৃক বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করে আমরাও সেই গর্বের অংশীদার। আমরা আরও গর্বিত এ কারণে যে, পদ্মা সেতুর বিশাল নির্মাণযজ্ঞের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত শরীয়তপুর পবিস নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ করেছে, আর পদ্মা সেতু যতদিন মাথা উঁচু করে তার গর্বিত ও দৃপ্ত পথচলা অব্যাহত রাখবে, ততদিন আমরা তার চলার পথ আলোকিত রাখতে দৃঢ়ভাবে সচেষ্ট থাকবো।

এদিকে বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এক স্ট্যাটাসে বলেন, ‘উঠিয়াছি চির-বিস্ময় আমি বিশ্ব-বিধাতৃর!’ বাংলাদেশের স্বপ্ন...গর্ব...প্রত্যয়ের প্রতীক পদ্মা সেতুতে শেষ হয়েছে বিদ্যুৎ সংযোগের কাজ। ২৫ জুন নতুন ভোরের অপেক্ষায়!

বহুল প্রতীক্ষিত পদ্মা বহুমুখী সেতু আগামী ২৫ জুন সকাল ১০টায় উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল মঙ্গলবার (২৪ মে) গণভবনে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। এ সময় প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতু যান চলাচলের জন্য ২৫ জুন উদ্বোধন করবেন বলে সম্মতি দেন। আর এ সেতুর নাম পদ্মা নদীর নামেই হবে বলেও জানান তিনি। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে এ তথ্য জানিয়েছেন ওবায়দুল কাদের।

এর আগে পদ্মা সেতু উদ্বোধন এবং নামকরণের সারসংক্ষেপ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করতে গণভবন যান সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।


বিজ্ঞাপন


পদ্মা সেতু পারাপারের জন্য টোল হার নির্ধারণ করা হয়। ১৭ মে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় বিভিন্ন পরিবহনের জন্য আলাদা আলাদা টোল হার নির্ধারণ করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। সরকারের সিদ্ধান্ত অনুসারে, পদ্মা সেতু পাড়ি দিতে বড় বাসে দুই হাজার ৪০০ টাকা এবং মাঝারি ট্রাকে লাগবে দুই হাজার ৮০০ টাকা।

podma22

প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, মোটরসাইকেলে ১০০ টাকা, কার বা জিপে ৭৫০ টাকা, পিকআপে এক হাজার ২০০ টাকা, মাইক্রোবাসে এক হাজার ৩০০ টাকা, ছোট বাসে (৩১ আসন বা এর কম) এক হাজার ৪০০ টাকা, মাঝারি বাসে (৩২ আসন বা এর বেশি) দুই হাজার টাকা, বড় বাসে (৩ এক্সেল) দুই হাজার ৪০০ টাকা টোল নির্ধারণ করা হয়েছে।

এছাড়া ছোট ট্রাকে (৫ টন পর্যন্ত) এক হাজার ৬০০ টাকা, মাঝারি ট্রাকে (৫ টনের বেশি থেকে ৮ টন) দুই হাজার ১০০ টাকা, মাঝারি ট্রাক (৮ টনের বেশি থেকে ১১ টন পর্যন্ত) দুই হাজার ৮০০ টাকা, ট্রাক (৩ এক্সেল পর্যন্ত) পাঁচ হাজার ৫০০ টাকা, ট্রেইলার (৪ এক্সেরল পর্যন্ত) ছয় হাজার টাকা ও ট্রেইলার (৪ এক্সেলের বেশি) ছয় হাজারের সঙ্গে প্রতি এক্সেলে এক হাজার ৫০০ টাকা করে যোগ করে টোল দিতে হবে।

২০১৪ সালের ডিসেম্বরে পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ শুরু হয়। ২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর ৩৭ ও ৩৮ নম্বর খুঁটিতে প্রথম স্প্যান বসানোর মধ্য দিয়ে দৃশ্যমান হয় পদ্মা সেতু। এরপর একে একে ৪২টি পিলারে ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্যের ৪১টি স্প্যান বসিয়ে ছয় দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতু পুরোপুরি দৃশ্যমান হয়েছে ২০২০ সালের ১০ ডিসেম্বর। একইসঙ্গে চলতে থাকে রোডওয়ে, রেলওয়ে স্ল্যাব বসানোসহ অন্যান্য কাজ।

টিএই/জেবি

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

টাইমলাইন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর