শনিবার, ২০ এপ্রিল, ২০২৪, ঢাকা

পদ্মা সেতু এখন সাধারণ জ্ঞানের বিষয়

চাকরি ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১ জুন ২০২২, ০৩:০৫ পিএম

শেয়ার করুন:

পদ্মা সেতু এখন সাধারণ জ্ঞানের বিষয়

দিন যত ঘনিয়ে আসছে, পদ্মা সেতু নিয়ে তত আলোচনা হচ্ছে। ইতিহাসের সাক্ষী হতে যাচ্ছে সেতুটি। কেবল বাংলাদেশে নয়, ইতোমধ্যে পাঁচটি বিশ্বরেকর্ডও গড়েছে স্বপ্নের এই সেতু। মুখে মুখে আলোচনা বা গল্পেই থেমে থাকছে না। পদ্মা সেতু হয়ে উঠেছে শিক্ষারও অংশ। পদ্মা সেতু এখন সাধারণ জ্ঞানের বিষয়। চাকরির পরীক্ষায় এই সেতু বিষয়ক প্রশ্ন আসছে। আগামীতে বিভিন্ন পরীক্ষায়ও সেতু সম্পর্কিত প্রশ্ন থাকবে।

বাঙালির অহংকার পদ্মা সেতু সম্পর্কে নানা তথ্য জানুন। 


বিজ্ঞাপন


পদ্মা সেতুর অবস্থান কোথায়- এই প্রশ্নটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এছাড়া কবে এই সেতু ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়, এর দৈর্ঘ্য, প্রস্থ ও উচ্চতা কত তা জেনে রাখুন। পানির স্তর থেকে পদ্মা সেতুর উচ্চতা কত সেই প্রশ্নও পরীক্ষায় আসতে পারে। 

padmaপদ্মা সেতুর সড়ক সংযোগ দুই প্রান্তের দৈর্ঘ্য কত, এতে কতটি লেন থাকছে, এই সেতুর পিলার সংখ্যা কতটি এই তথ্যগুলো জেনে নিন। আরও জানুন এর আয়ুষ্কাল, ধরন ও নির্মাণ ব্যয়। পদ্মা সেতু কোন কোন জেলাকে একত্র করেছে? তা নিয়েও প্রশ্ন থাকতে পারে চাকরির পরীক্ষায়। এই সেতুটির ভূমিকম্প সহনশীলতা মাত্রা কত তাও জেনে রাখুন। 

চাকরির পরীক্ষায় ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান সম্পর্কিত প্রশ্নও আসে। তাই, পদ্মা সেতুতে কর্মরত একমাত্র বাঙালি নারী প্রকৌশলীর নাম, এই সেতু নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের নাম ইত্যাদি তথ্য জেনে রাখা উচিত। 

padma


বিজ্ঞাপন


সংখ্যা সম্পর্কিত তথ্যগুলো মাথায় রাখুন। কেননা সেখান থেকেও প্রশ্ন আসতে পারে। এই যেমন-পদ্মা সেতু প্রকল্পে নদীশাসন ব্যয় কত, এই সেতু প্রকল্পে কতজন ব্যক্তি কাজ করেছেন, পদ্মা সেতুর ভায়াডাক্ট পিলার কয়টি-এসব তথ্য জানুন। 

চাকরির পরীক্ষায় সাধারণ জ্ঞান একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। এতে পূর্ণ নম্বর পেতে বিশ্বের আলোচিত বিষয়গুলো সম্পর্কে তথ্য জেনে রাখতে হয়। পদ্মা সেতু পাঁচটি বিশ্বরেকর্ড করেছে, ভারতের একটি সেতুর সঙ্গে এর মিল রয়েছে, এই সেতু তৈরিতে অত্যাধুনিক সব প্রযুক্তি ব্যবহৃত হয়েছে। এসব সম্পর্কে জেনে রাখুন। 

padma

এক নজরে পদ্মা সেতু

নদীতে ৬.১৫ কিলোমিটার পদ্মা সেতু। আর দুই পাশের সড়ক মিলিয়ে প্রায় ১০ কিলোমিটার লম্বা এই সেতু। ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ শুরু হয়। ২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর ৩৭ ও ৩৮ নম্বর খুঁটিতে প্রথম স্প্যান বসানোর মধ্য দিয়ে দৃশ্যমান হয় পদ্মা সেতু। এরপর একে একে ৪২টি পিলারে ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্যের ৪১টি স্প্যান বসিয়ে ছয় দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতু পুরোপুরি দৃশ্যমান হয়েছে ২০২০ সালের ১০ ডিসেম্বর।

মূল সেতু নির্মাণের জন্য কাজ করছে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি (এমবিইসি) ও নদীশাসনের কাজ করছে দেশটির আরেকটি প্রতিষ্ঠান সিনো হাইড্রো করপোরেশন। দুটি সংযোগ সড়ক ও অবকাঠামো নির্মাণ করেছে বাংলাদেশের আবদুল মোমেন লিমিটেড। কংক্রিট ও স্টিল দিয়ে নির্মিত হয়েছে এ সেতুর কাঠামো।

এনএম/এজেড

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

টাইমলাইন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর