রোববার, ২৬ মে, ২০২৪, ঢাকা

আয় কমেছে ৪০ শতাংশ, সংকটে বিআইডব্লিউটিসি

তানভীর আহমেদ
প্রকাশিত: ০৬ জুলাই ২০২২, ০৭:১৬ এএম

শেয়ার করুন:

আয় কমেছে ৪০ শতাংশ, সংকটে বিআইডব্লিউটিসি
ফাইল ছবি

পদ্মা সেতু চালু হওয়ার ফলে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের মানুষের অর্থনৈতিক ও যাতায়াতব্যবস্থায় গতি এসেছে। কম সময়ে গন্তব্যে ফিরতে ওই অঞ্চলের মানুষ বেছে নিয়েছেন স্বপ্নের সেতুকে। দীর্ঘ যানজট এড়াতে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া এবং মুন্সীগঞ্জের মাওয়া-মাঝিরকান্দি নৌপথ এড়িয়ে চলার চেষ্টা করছে ট্রাক-বাস থেকে শুরু করে ছোট যানবাহনগুলো। এতে গাড়ির চাপ কমেছে নৌপথে। ফলে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিস) প্রায় ৪০ শতাংশ আয় কমে গেছে। এতে বড় সংকটে পড়েছে প্রতিষ্ঠানটি।  

গত ২৬ জুন পদ্মা সেতু চালু হওয়ার পর থেকে মাওয়া-মাঝিরকান্দি রুটে ফেরিগুলো অলস পড়ে আছে। এর মধ্যে গত ২৭ জুন সেতু কর্তৃপক্ষ মোটরসাইকেল সেতুতে উঠায় নিষেধাজ্ঞা জারি করে। এতে বিপাকে পড়েন বাইকাররা। ফলে ফেরিকে বেছে নেন মোটরসাইকেল চালকরা। তবে এই সার্ভিস দিতে গিয়ে উল্টো ক্ষতির মুখে পড়ে কর্তৃপক্ষ। কারণ একত্রে ২০০ মোটরসাইকেল ১০০ টাকা হিসেবে পারাপারে ২০ হাজার টাকা আয় হলেও জ্বালানির পেছনে ফেরি কর্তৃপক্ষতে গুনতে হয় ৩০ হাজার টাকার মতো। এরপর একদিনও চলেনি এই রুটের ফেরিগুলো। এতে দৈনিক সংস্থাটির আর্থিক ক্ষতি হচ্ছে ১৪ থেকে ১৫ লাখ টাকা।


বিজ্ঞাপন


অপরদিকে, বিআইডব্লিউটিসি বড় আয়ের আরেকটি রুট পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া ঘাট। সেতু ব্যবহার করে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে যানবাহন আসা-যাওয়া করায় আর্থিকভাবে বড় ক্ষতির মুখে পড়েছে এই রুটের ফেরিগুলোও। এই রুটে আগে প্রতিদিন ৮০ থেকে ৮৫ লাখ টাকা আয় হলেও বর্তমানে আয় হচ্ছে ৬০ থেকে ৬৫ লাখ টাকা। এখানেও আয় কমেছে ২০ শতাংশ।

সব মিলিয়ে আয় কমেছে শতাংশ। অথচ সংস্থাটির লাভজনক ব্যবসা এই ফেরিই। কিন্তু পদ্মা সেতুর ওপর যানবাহনের নির্ভরশীলতা না কমলে স্ব-শাসিত এই প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা দেওয়ার ক্ষেত্রে আগামীতে চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে পারে- এমন আশঙ্কা করছেন কর্তৃপক্ষ।

মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়, পদ্মার মাওয়া-মাঝিরকান্দি এবং পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া এই দুই পয়েন্টে প্রতিদিন এক কোটি টাকার বেশি আয় হতো। বর্তমানে কমে অর্ধেকে নেমে এসেছে। কারণ টিসির লাভজনক বাণিজ্যিক ক্ষেত্রটি ফেরি। হঠাৎ আয় সীমিত হয়ে আসায় কিছুটা চাপে পড়তে হয়েছে প্রতিষ্ঠানটিকে।


বিজ্ঞাপন


বিআইডব্লিউটিসির চেয়ারম্যান আহমেদ শামীম আল রাজি ঢাকা মেইলকে বলেন, সেতু চালুর পর মাওয়া রুটে ফেরিতে যানবাহন চলাচল পুরোপুরি বন্ধ হয়ে গেছে। আর পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া ঘাটের বেশ কিছু গাড়ি পদ্মা সেতু দিকে চলে গেছে। এই রুটে ৪০ শতাংশ গাড়ি কমে গেছে। গাড়ি কমা মানেই আয়ও কমে যাওয়া। তবে এই ৪০ শতাংশ চাপ কমে যাওয়াটাও সাময়িক। কারণ সেতু নতুন উদ্বোধন হওয়ার কারণে অ্যাডভ্যাঞ্চার হিসেবে ওই পথকে অনেকেই বেছে নিয়েছেন।

বিআইডব্লিউটিসির পরিচালক (বাণিজ্যিক) এস এম আশিকুর রহমান ঢাকা মেইলকে বলেন, আর্থিক বিষয়টি আমরা খতিয়ে দেখছি। আরও কয়েক দিন যাওয়ার পর আয়ের ক্ষেত্রে উন্নতি না ঘটলে বিকল্প চিন্তা শুরু করব। এছাড়া আপাতত আমাদের কিছু করণীয় নেই।

টিএ/জেবি

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

টাইমলাইন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর