প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে পদ্মায় ভাসবে ৫০টি সুসজ্জিত নৌকা

জেলা প্রতিনিধি
মাদারীপুর
প্রকাশিত: ২৪ জুন ২০২২, ০৮:১৬ পিএম
প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে পদ্মায় ভাসবে ৫০টি সুসজ্জিত নৌকা

পদ্মা সেতুর উদ্বোধনের জন্য আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা বাকি। আগামীকাল শনিবার উদ্বোধন হতে যাচ্ছে দেশের দীর্ঘতম সেতুটি। সকালে মাওয়া প্রাপ্তে সেতুটি উদ্বোধনের পর বিকালে মাদারীপুরের শিবচর বাংলাবাজার ঘাটে এক জনসভায় বক্তব্য দেবেন প্রধানমন্ত্রী।

সরকারপ্রধানের আগমন আর সেতুর উদ্বোধনকে স্মরণীয় করতে ব্যতিক্রমী আয়োজন করেছে চরচান্দা এলাকার পদ্মাপাড়ের জেলেরা। ৫০টি মাছ ধরার নৌকাকে লাল সবুজের পতাকা, বেলুন দিয়ে সাজিয়েছে অপরূপভাবে। তাদের নৌকাগুলো প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে পদ্মার বুকে ভাসানো হবে।

শুক্রবার মাদারীপুরের কাঁঠালবাড়ি ঘাট এলাকার চরচান্দা গিয়ে দেখা যায়, পদ্মার পাড়ে ৫০টি নৌকা সারিবদ্ধভাবে বেঁধে রাখা হয়েছে। নৌকাগুলোতে লাল সবুজের পতাকার সঙ্গে ছইয়ের ওপরে দেওয়া হয়েছে লাল সবুজ বেলুন। নৌকাগুলোর মাস্তুলে রয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, জাতীয় সংসদের চিফ হুইফ নূর-ই-আলম চৌধুরীর বাবা ইলিয়াস আহম্মেদ চৌধুরী ও চিফ হুইফ নূর-ই-আলম চৌধুরীর ছবি। জেলেদের এমন ব্যতিক্রম আয়োজন দেখতে ভিড় জমাচ্ছেন হাজারও দর্শনার্থী।

ফরিদপুর থেকে আসা দর্শনার্থী মো. হাসিব বলেন, আমরা পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে এখানে ঘুরতে এসেছি। এখানে ব্যতিক্রমভাবে ৫০টি নৌকা সুসজ্জিতভাবে সাজিয়েছে। এমনটা আমি কখনোই দেখিনি। আমাদের দেখে ভীষণ ভালো লাগছে।

নৌকার মাঝি আয়নাল হাওলাদার বলেন, আমরা কাল সকালে এই ৫০টি নৌকা নিয়ে পদ্মার বুকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানাব। আমরা ভীষণ খুশি তার আগমনে। তার আগমন পদ্মা পাড়ের জেলেদের কাছে স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

স্থানীয় সাবেক ইউপি সদস্য মো. ফারুক শিকদার বলেন, আমাদের পাওনা ছিলো এই পদ্মা সেতু। আজ সেটা বাস্তবায়িত হয়েছে। আমাদের স্থানীয় জেলেরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাতে এভাবে নৌকা সাজিয়েছে। আমরা ভীষণ খুশি।

শিবচর পৌরসভার মেয়র আওলাদ হোসেন খান বলেন, বাংলার ঐতিহ্যকে ধরে রাখতে ও পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানাতে পৌরসভার পক্ষ থেকে জেলেদের নিয়ে আমাদের এই ব্যক্তিক্রমী উদ্যোগ। কাল সকাল থেকে পদ্মার বুকে এই সুসজ্জিত ৫০টি নৌকা ভাসমান থাকবে।

প্রতিনিধি/এমআর

টাইমলাইন