শুক্রবার, ১২ এপ্রিল, ২০২৪, ঢাকা

‘পদ্মা সেতুর সেফটির সঙ্গে রেলিংয়ের কোনো সম্পর্ক নেই’

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩ জুলাই ২০২২, ০৭:৩২ পিএম

শেয়ার করুন:

‘পদ্মা সেতুর সেফটির সঙ্গে রেলিংয়ের কোনো সম্পর্ক নেই’
ফাইল ছবি

পদ্মা সেতুর রেলিংয়ের সঙ্গে সেতুটির সেফটি-সিকিউরিটির কোনো সম্পর্ক নেই বলে মনে করেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

রোববার (৩ জুলাই) মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এই মন্তব্য করেন।


বিজ্ঞাপন


গত ২৫ জুন পদ্মা সেতু উদ্বোধনের পরদিন বহুল কাঙ্ক্ষিত সেতুটি যানবাহন চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হয়। দুজন টিকটকার সেতুটির রেলিংয়ের নাটবল্টু খুলে ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ইতোমধ্যে তাদের গ্রেফতার করেছে। তবে প্রশ্ন উঠছে, এত বড় একটি স্থাপনার নাটবল্টু কীভাবে হাতে খোলা সম্ভব।

এ প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, পদ্মা সেতুর স্ক্রু খোলার কথাটা আসছে, ইন্টারন্যাশনাল স্ট্যান্ডার্ডে আমাদের যে ওয়ালটুকু আছে অতটুকু দিয়েই গাড়ি চলে। কিন্তু আমাদের রোডস অ্যান্ড হাইওয়ের স্ট্যান্ডার্ডে চার ফুট। সেজন্য আরও এক ফুট উঁচু করে রেলিং দেওয়া হয়েছে। এটা মানুষের সেফটির জন্য নয়, এটা আমাদের স্ট্যান্ডার্ডটাকে কাভার করার জন্য। সুতরাং বিভিন্ন জায়গায় যে কনফিউশন আছে, এটার সঙ্গে সেফটি-সিকিউরিটির কোনো সম্পর্ক নেই।
আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, দুই-তিন মাস আগে আমি এবং পদ্মা সেতুর কয়েকজন কনসালটেন্ট ও পিডিসহ লেটেস্ট সবচেয়ে বড় ব্রিজ যেটা কুয়েতে উদ্বোধন করা হয়েছে, সেটা সাগরের মধ্যে ৩৬ কিলোমিটার, সেটা আমরা দেখে এলাম, আমাদের যেটুকু ওয়াল ওদের অতটুকু গ্রিল দিয়ে প্রটেকশন দিয়েছে। ক্যান ইউ ইমাজিন দিস! সাগরের মাঝে যদি কোনো কারণে, আমাদের তো ওয়ালের মধ্যে গাড়ি ধাক্কা খেলে ফেরত আসবে। কিন্তু ওরা গ্রিল দিয়ে প্রটেকশন দিয়েছে। ওদের প্রটেকশনটা আমাদের ওয়াল যতটুকু ততটুকুই।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, পদ্মা সেতুর উদ্বোধনের দিন বিকেলে কোরিয়ান এক্সপ্রেস করপোরেশন টেকওভার করেছে, পরের দিন থেকে তারা টোল ম্যানেজমেন্ট ও মেইনটেন্যান্স দেখবে। কোরিয়ান এক্সপ্রেস করপোরেশন হলো ওয়ার্ল্ডের বেস্ট কোম্পানি, যারা হাইওয়ে ও ব্রিজ ম্যানেজমেন্ট করে। ওরা ১৭ কিলোমিটার দীর্ঘ ইনচেন ব্রিজের ডিজাইনার ও টোল ম্যানেজমেন্ট করে। ওদের ওই ব্রিজে লোকজন হাঁটতে পারে না। এখন তারা অডিট করবে। প্রত্যেকটা জয়েন্ট আছে, নাট আছে। অডিট করে নিজেরা ঠিক করতে পারে, টাইট করে দেবে।

টিএ/জেবি


বিজ্ঞাপন


 

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

টাইমলাইন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর