যান্ত্রিক ত্রুটি, মাঝপথে ২০ মিনিট থেমে থাকল মেট্রোরেল

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০১:২৬ পিএম
যান্ত্রিক ত্রুটি, মাঝপথে ২০ মিনিট থেমে থাকল মেট্রোরেল

অন্যান্য দিনের মতো আগারগাঁও থেকে উত্তরার কর্মস্থলে যেতে মেট্রোরেলে চেপে বসেন বেসরকারি চাকরিজীবী শরিফুল ইসলাম বাদল। কিন্তু শেওড়াপাড়া স্টেশনে পৌঁছার আগেই অনুভব করেন ট্রেন ধীরগতিতে চলছে। এক পর্যায়ে হঠাৎ বন্ধ হয়ে যায় মেট্রোরেল। প্রতিদিন যাওয়া-আসা করলেও এমন ঘটনায় কিছুটা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন তিনিসহ অন্য যাত্রীরা।

অবশ্য ৮ থেকে ১০ মিনিট পর আবার পুরোদমে চলতে থাকে মেট্রোরেল। কিন্তু কিছুদূর যাওয়ার পর আবার গতি কমে আসে ট্রেনের। তখন মাইকে ঘোষণা আসতে থাকে যান্ত্রিকত্রুটির কারণে মেট্রোরেল ধীরগতিতে চলছে।

কাজীপাড়া স্টেশনে পৌঁছাতে পৌঁছাতে আবারও বন্ধ হয়ে যায় মেট্রোরেল। তখন মাইকে ঘোষণা আসে যান্ত্রিক ত্রুটির জন্য মেট্রোরেল বন্ধ আছে।
 
বুধবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টার দিকে এমন ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে। যে কারণে গন্তব্যে পৌঁছাতে ২০ মিনিটের মতো বিলম্ব হয়েছে বলে জানান যাত্রীরা।

মেট্রোরেলের যাত্রী শরিফুল ইসলাম বাদল ঢাকা মেইলকে বলেন, প্রতিনিয়ত মেট্রোরেলে যাতায়াত করি। আজকেই এমন ঘটনার মুখোমুখী হলাম। হঠাৎ এমন ঘটনায় আমরা স্বাভাবিকভাবেই আতঙ্কিত হয়ে যাই। অনেকে ভাবছিল পেছন থেকে অন্য ট্রেন এসে ধাক্কা দেয় কিনা।

ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে তিনি বলেন, আগারগাঁও থেকে ওঠার পর শেওড়াপাড়ার আসার পর স্লো করে। পরে থেমে ছিল ১০ মিনিটের মতো। কাজীপাড়া এসেও প্রথমে স্লো হয়ে যায়, পরে একদম থেমে ছিল। তখন মাইকে ঘোষণা দেয় যান্ত্রিক ত্রুটি হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, দুই স্টেশনে ধীরগতিতে চলার পর বন্ধ হয়ে যাওয়ায় দিয়াবাড়ি স্টেশনে পৌঁছাতে আমাদের ২০ মিনিটের মতো বিলম্ব হয়েছে। যদিও অন্যদিন আগারগাঁও থেকে দিয়াবাড়ি যেতে সর্বোচ্চ ১৩ মিনিটের মতো সময় লাগে।

গত ২৬ ডিসেম্বর ঢাকার প্রথম মেট্রোরেল আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শুরুতে আগারগাঁও টু দিয়াবাড়ি চললেও ধীরে ধীরে বাকি স্টেশনগুলোতেও যাত্রী ওঠানামা করছে মেট্রোরেল।

কর্তৃপক্ষ বলছে, মেট্রোরেলের চলাচল, স্টেশনে থামা, কোথায় কত গতিতে চলবে—এর পুরোটাই নিয়ন্ত্রণ করা হয় কেন্দ্রীয়ভাবে, একটি সফটওয়্যারের মাধ্যমে। এই ব্যবস্থা উত্তরার দিয়াবাড়ির ডিপোতে থাকা অপারেশন কন্ট্রোল সেন্টারে (ওসিসি) রয়েছে।

গেল থার্টি ফার্স্ট নাইটে রাজধানীর প্রায় সব এলাকায় আতশবাজি ও ফানুস ওড়ানো হয়। এসময় কয়েকটি ফানুস মেট্রোরেলের বৈদ্যুতিক তারের ওপর গিয়ে পড়ে। এতে দুই ঘণ্টা বন্ধ থাকে মেট্রোরেল চলাচল। পরে সেগুলো অপসারণের পর আবার মেট্রোরেলের চলাচল শুরু হয়।

এরপর বৈদ্যুতিক তারে ঘুড়ি পড়ে গত ১৯ ফেব্রুয়ারি ৪০ মিনিট বন্ধ ছিল মেট্রোরেল চলাচল। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এর ফলে যাত্রীদের ভোগান্তিতে পড়তে হয়। যে কারণে সম্প্রতি মেট্রোরেলের উভয় পাশে এক কিলোমিটারের মধ্যে বাসাবাড়িতে ঘুড়ি, ফানুস, গ্যাসবেলুন বা এ ধরনের যেকোনো বিনোদনসামগ্রী না ওড়াতে অনুরোধ জানিয়েছে ঢাকা মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষ।

বিইউ/এএস

টাইমলাইন