সোমবার, ১৭ জুন, ২০২৪, ঢাকা

সকাল ৮টা থেকে ৪ ঘণ্টা চলবে মেট্রোরেল, মঙ্গলবার সাপ্তাহিক বন্ধ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:৫৫ এএম

শেয়ার করুন:

সকাল ৮টা থেকে ৪ ঘণ্টা চলবে মেট্রোরেল, মঙ্গলবার সাপ্তাহিক বন্ধ

উদ্বোধন হওয়ার দ্বারপ্রান্তে স্বপ্নের মেট্রোরেল। তবে শুরুর দিকে পুরো রুটে নয়, অল্প দূরত্বে চলবে এটি। উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত বুধবার থেকে চলবে মেট্রোরেল। নতুন এই বাহনে ধীরে ধীরে মানুষকে অভ্যস্ত করতে প্রথমে দিনে সকাল ৪টা থেকে চার ঘণ্টা চলবে মেট্রোরেল। আর রক্ষণাবেক্ষণের জন্য সপ্তাহে মঙ্গলবার বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ম্যাস ট্রানজটি কোম্পানি লিমিটেডের (ডিএমটিসিএল) কর্তৃপক্ষ। 

বুধবার (২৮ডিসেম্বর) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মেট্রোরেল উদ্বোধন করবেন। পরদিন থেকে যাত্রীরা চলাচল করতে পারবেন। ডিএমটিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ এন ছিদ্দিক বিষয়টি জানিয়েছেন।


বিজ্ঞাপন


তিনি বলেন, ‘প্রথমে উত্তরা উত্তর (শুরুর স্টেশন) থেকে একটি ট্রেন ছাড়বে। আর একটি আগারগাঁও থেকে ছাড়বে। ১০ মিনিট পর পর এই ট্রেন ছাড়া হবে। এই পুরো লাইনে আর কোনো স্টেশনে ট্রেন থামবে না।’

তিনি বলেন, ‘আপাতত ২৯ তারিখ থেকে সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত সর্বোচ্চ ৪ ঘণ্টা মেট্রোরেল চলাচল করবে। বিকেলে কোনো ট্রেন চলবে না।’

metro rail station

এমন সিদ্ধান্তের কারণ জানিয়ে ডিএমটিসিএলের এমডি বলেন, ‘মানুষদের অভ্যস্ততার জন্য প্রথমে আমরা এভাবেই চালাব। তবে যাত্রী না হলে ট্রেন কম চলবে। মানুষ অভ্যস্ত হলে পরে ধীরে ধীরে আমরা অন্য স্টেশনে ট্রেন থামাব।’


বিজ্ঞাপন


এছাড়া যাত্রীদের আশানুরূপ সাড়া না পেলেও সেখানে পরিবর্তন আসবে বলে জানিয়েছেন এম এ এন ছিদ্দিক। তবে শুরুর দিকে যাত্রীদের আগ্রহ কম হলে ট্রেনের সংখ্যা আরও কমানো হতে পারে বলেও জানান তিনি।

এম এ এন ছিদ্দিক বলেন, মানুষ যদি কম থাকে বা মানুষকে যদি অভ্যস্ত করতে না পারি তাহলে এর চেয়েও কম সময় চলবে ট্রেন। তারপর ৭ দিন দেখে আমরা রিভিউ করব। তখন যদি মনে হয় এই সময় আরও বাড়ানোও দরকার বা বিকেলে ট্রেন চালানো দরকার, তাহলে তখন আমরা নতুন করে আবার সিদ্ধান্ত নেব।

রক্ষণাবেক্ষণের কথা ভেবে সপ্তাহে একদিন মেট্রোরেল চলাচল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলেও জানায় কর্তৃপক্ষ। 

তিনি জানান, ১০ মিনিট পর পর ট্রেন আসবে এবং ২০০ মানুষ এই ট্রেনে উঠার সুযোগ পাবে। কিন্তু ১০ মিনিটের মধ্যে যদি যাত্রীরা ট্রেনে উঠতে না পারেন সেক্ষেত্রে মাঝখানে সময় আরও বাড়ানোর চিন্তাও আছে মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষের।

তিনি বলেন, ‘এই ১০ মিনিটে উঠতে না পারে তাহলে আমরা আস্তে আস্তে ১০ মিনিটের জায়গায় ১৫ মিনিট অথবা ২০ করে দেব। আমরা চেষ্টা করছি ২০০ মানুষকে অভ্যস্ত করতে।’

আগামী ২৬ মার্চ মেট্রোরেলকে পূর্ণ অপারশেনে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা আছে বলেও জানান এম এ এন ছিদ্দিক।

বিইউ/এইউ

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

টাইমলাইন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর