রোববার, ১৬ জুন, ২০২৪, ঢাকা

কর্মব্যস্ত দিনেও মেট্রোরেলে চড়তে দীর্ঘ অপেক্ষা

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৫ জানুয়ারি ২০২৩, ১০:২২ এএম

শেয়ার করুন:

কর্মব্যস্ত দিনেও মেট্রোরেলে চড়তে দীর্ঘ অপেক্ষা

রাজধানীর স্বপ্নের প্রকল্প মেট্রোরেল চালুর পর কেটে গেছে প্রায় দুই সপ্তাহ। শুরু থেকেই এই মেট্রোরেলের প্রতি নগরবাসীর বাড়তি আকর্ষণ লক্ষ্য করা গেছে। প্রথমবারের মতো মেট্রোরেলে চড়তে অনেকে উদগ্রীব। মঙ্গলবার ছাড়া পুরো সপ্তাহেই উত্তরা থেকে আগারগাঁও রুটে চলছে স্বপ্নের এই বাহন। তবে অন্যদিন স্বাভাবিক ভিড় থাকলেও শুক্রবারসহ ছুটির দিনগুলোতে বাড়তি চাপ দেখা যায় মেট্রোরেল স্টেশনে। যদিও আজ কর্মব্যস্ত দিনে (অফিস খোলা) মেট্রোরেলে চড়তে দীর্ঘ অপেক্ষায় দেখা গেছে যাত্রীদের। যাদের অধিকাংশই যাচ্ছেন টঙ্গীর তুরাগ নদের তীরে বিশ্ব ইজতেমায়।

রোববার (১৫ জানুয়ারি) ভোর থেকেই মেট্রোরেলে ভ্রমণ করতে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে সাধারণ মানুষসহ ইজতেমাগামী মুসল্লিরা ছুটে আসেন আগারগাঁও মেট্রোরেল স্টেশনে। শিডিউল অনুযায়ী সকাল ৮টায় প্রথম ট্রেন ছেড়ে যাওয়ার কথা থাকলেও ভোর থেকেই দীর্ঘ লাইন লেগে যায় স্টেশনে।


বিজ্ঞাপন


metro

অফিস খোলার দিনে দেখা যায়, সকালে আগারগাঁও স্টেশনে গিয়ে দেখা যায় শত শত মানুষ অপেক্ষা করছেন মেট্রোরেলে চড়তে। শীত উপেক্ষা করে কেউ কেউ পরিবার-পরিজন নিয়ে এসেছেন মেট্রোর স্বাদ নিতে। কারও গন্তব্য টঙ্গীর তুরাগ নদের তীরে।

সরেজমিনে দেখা যায়, আগারগাঁও স্টেশনের গেইটে বিশাল লাইন তৈরি হয়েছে। এখানে কর্তব্যরত পুলিশ সদস্যরা বলছেন, সবাইকেই প্রবেশ করতে দেওয়া হবে। মূল প্লাটফর্মে জট এবং ভোগান্তি কমাতেই ধীরে ধীরে যাত্রীদের প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে।

তৌফিকুল ইসলাম নামে এক যাত্রী ঢাকা মেইলকে বলেন, গত সপ্তাহেও এসে প্রবেশ করতে পারিনি। দীর্ঘ লাইন দেখে ফিরে যাই। আজ বাবাকে নিয়ে ভোরে এসেছি। আশা করি আজ চড়তে পারব। ট্রেনে চড়ে ইজতেমায় অংশ নিতে অফিস থেকে ছুটি নিয়েছি। 


বিজ্ঞাপন


সোলাইমান নামে আরেক যাত্রী বলেন, এতটা ভোগান্তি হবে জানলে আসতাম না। এত বড় লাইন শেষ করে মেট্রোরেলে উঠতে পারব কিনা বুঝতে পারছি না। আগে জানলে অন্য পথে রওয়ানা হতাম ইজতেমা ময়দানে। যদিও শেষ পর্যন্ত সব যাত্রীকেই প্রবেশ করতে দেখা গেছে। বেলা বাড়ার সাথে সাথে যাত্রীর চাপও কমেছে। 

রাজধানীর উত্তরার দিয়াবাড়ি থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত চালু হওয়া মেট্রোরেল আগামী ২৫ জানুয়ারি থেকে পল্লবী স্টেশনেও থামবে। বর্তমানে মাঝে কোনো স্টেশনে থামে না সদ্য চালু হওয়া এই মেট্রোরেল। এছাড়া ২৫ জানুয়ারি থেকে মেট্রোরেল চলবে সকাল ৮টার পরিবর্তে সাড়ে ৮টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত। তবে গেট খোলা হবে ৮টা থেকে আর বন্ধ হবে ১২টায়।

metro

গত ২৮ ডিসেম্বর বহুল কাঙ্ক্ষিত মেট্রোরেল উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রথম ধাপে উত্তরার দিয়াবাড়ি থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত মেট্রোরেল চালু হয়েছে। চলতি বছরের ডিসেম্বর নাগাদ মতিঝিল পর্যন্ত চালু হওয়ার কথা রয়েছে। আর ২০২৫ সালের মধ্যে মেট্রোরেল যাবে কমলাপুর পর্যন্ত।

উত্তরার দিয়াবাড়ী থেকে মতিঝিল পর্যন্ত মেট্রোরেলের দৈর্ঘ্য ২০.১ কিলোমিটার। আপাতত ১১.৭৩ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের দিয়াবাড়ী-আগারগাঁও রুটে মেট্রোরেল চালু হয়েছে। মেট্রোরেলের মোট ১৭টি স্টেশনের মধ্যে এই অংশে আছে নয়টি স্টেশন।

উদ্বোধনের পরদিন সাধারণ মানুষের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হলেও দিয়াবাড়ী ও আগারগাঁও ছাড়া এই অংশের বাকি সাতটি স্টেশন চালু করা হয়নি। এই স্টেশনগুলো হচ্ছে- উত্তরা উত্তর, উত্তরা সেন্টার, উত্তরা দক্ষিণ, পল্লবী, মিরপুর-১১, মিরপুর-১০, কাজীপাড়া, শেওড়াপাড়া। আগামী মার্চ নাগাদ এই রুটের সব স্টেশনে মেট্রোরেল থামবে বলে পরিকল্পনা রয়েছে কর্তৃপক্ষের।

২০১৬ সালের ২৬ জুন এমআরটি-৬ শীর্ষক এই প্রকল্পের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আর নির্মাণের আনুষ্ঠানিক সূচনা হয় ২০১৭ সালের ২ আগস্ট।

ডিএইচডি/এএস

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

টাইমলাইন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর