বন্যার্তদের কয়েকশ টন খাদ্য সহায়তা দিচ্ছে আস-সুন্নাহ ফাউন্ডেশন

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২২ জুন ২০২২, ০১:২৮ পিএম
বন্যার্তদের কয়েকশ টন খাদ্য সহায়তা দিচ্ছে আস-সুন্নাহ ফাউন্ডেশন

সিলেট-সুনামগঞ্জসহ বিভিন্ন এলাকায় সাম্প্রতিক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের পাশে দাঁড়িয়েছে ‘আস সুন্নাহ ফাউন্ডেশন’। সংকট মোকাবেলায় সরকার থেকে নানা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হলেও বিভিন্ন সংস্থা এবং ব্যক্তিগত পর্যায়ে অনেকে খাবার সরবরাহ করছেন। এরমধ্যে অনেকটা ব্যতিক্রম আস সুন্নাহ ফাউন্ডেশন। বন্যার্তদের জন্য সংস্থাটি কয়েকশ টন খাবারের ব্যবস্থা করেছে। ইতোমধ্যেই বানভাসি মানুষের জন্য সেনাবাহিনীর কাছে কিছু খাবার তুলেও দিয়েছে সংস্থাটি।

ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান শায়খ আহমাদুল্লাহ বুধবার (২২ জুন) ফেসবুক স্ট্যাটাসে বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গতকাল ও আজ মোট ২০০ টন খাদ্য প্রস্তুত করা হচ্ছে, যা কাল ও পরশু সিলেট ও সুনামগঞ্জের ২০ হাজার পরিবারে বণ্টন করা হবে ইনশাআল্লাহ। এছাড়াও ২০ হাজার পরিবারের জন্য চাল, ডাল, তেল, লবণ, খেজুর ও সাবান ইত্যাদি প্যাকেজিংয়ের কাজ চলমান আছে। কাল এবং পরশু এগুলো সরাসরি বিতরণ করা হবে ইনশাআল্লাহ। আগামী এক সপ্তাহ ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনা অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি। এরপর চলবে পুনর্বাসনের কাজ।

এ বিষয়ে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে শায়খ আহমদুল্লাহ ঢাকা মেইলকে বলেন, প্রাথমিকভাবে ২০০ টন বিতরণ করা হচ্ছে। এ পরিমাণ আরও বাড়বে।

as-2

এর আগে ফেসবুক স্ট্যাটাসে তিনি সেনাবাহিনীর কাছে জরুরি খাদ্যসামগ্রী হস্তান্তর করার কথা জানান। যা দুর্গত এলাকায় পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। সেই স্ট্যাটাসে তিনি জানান, এখন পর্যন্ত আমাদের যেসব ত্রাণ স্পটে পৌঁছে গেছে তা হলো— ২০ টন চিড়া, আড়াই টন চিনি, ৩০ টন খেজুর, এক টন শিশুখাদ্য (গুঁড়ো দুধ), ১০ হাজার মোমবাতি, ৩০ হাজার লিটার মিনারেল ওয়াটার এবং বিভিন্ন পদের ১৮ হাজার পিস ওষুধ ইত্যাদি। আর পাঁচ টন ছাতু এবং এক ট্রাক গরুর খাদ্য (ভূসি) প্রস্তুত করা হয়েছে।

as3

আস সুন্নাহ ফাউন্ডেশন একটি অলাভজনক, অরাজনৈতিক এবং মানবকল্যাণে নিবেদিত সেবামূলক প্রতিষ্ঠান। শিক্ষা, সেবা ও দাওয়াহ- তিন বিভাগে কাজ করছে তারা। সারাদেশের ধর্ম-বর্ণ-নির্বিশেষে অসচ্ছল, দরিদ্র নারী-পুরুষকে স্বনির্ভর করতে কাজ করে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। ভূমিহীন প‌রিবার‌কে ঘর ক‌রে দেওয়া, দুই ঈদে অসহায় শিশুদের নতুন জামাকাপড় ও কোরবানির মাংস বিতরণের পাশাপাশি বন্যা, নদীভাঙন বা প্রাকৃতিক নানা দুর্যোগ-দুর্ঘটনায় ত্রাণ বিতরণ করে থাকে সংস্থাটি। অনাথ ও দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদানসহ মাদরাসাতুস সুন্নাহ নামে স্বতন্ত্র শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানও রয়েছে তাদের। করোনাগ্রস্ত পরিবারকে এক মাসের খাদ্যদ্রব্য ও ১-৫ হাজার টাকা পর্যন্ত নগদ অর্থ সহায়তা এবং লকডাউনের সময় বেকার হয়ে যাওয়া এক হাজার উবার রাইডারকে ১০০০ টাকা করে প্রদান করেছে সংস্থাটি। তাদের এমন বহুমুখী সেবার মাধ্যমে জনগণ উপকৃত হচ্ছেন।

as4

ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান শায়খ আহমাদুল্লাহ বাংলাদেশের আলোচিত একজন ইসলামি ব্যক্তিত্ব। তার উদার ও মানবিক বিভিন্ন কর্মকাণ্ড তরুণ প্রজন্মকে আশার আলো দেখাচ্ছে। এছাড়া টেলিভিশন, ফেসবুক ও ইউটিউবে তার তথ্যনির্ভর ও গবেষণাধর্মী আলোচনা বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। তিনি ইসলামের আলোকে সমসাময়িক নানা সমস্যার বিশ্লেষণ করে থাকেন। ইতিবাচক ও উদার দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে বিশুদ্ধ ও মার্জিত ভাষায় উপস্থাপিত তার আলোচনায় অসংখ্য শ্রোতা ও দর্শক উপকৃত হচ্ছেন।

২০১৮ সালের মাঝামাঝিতে যাত্রা শুরু করে আস সুন্নাহ ফাউন্ডেশন। ২০১৯ সালের মে মাসে রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন হয় সংস্থাটির।

এমএ/জেবি

টাইমলাইন