৪ জেলার বন্যা পরিস্থিতি অবনতি হতে পারে

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২৩ জুন ২০২২, ০১:১২ পিএম
৪ জেলার বন্যা পরিস্থিতি অবনতি হতে পারে

দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের সিলেট, সুনামগঞ্জ, নেত্রকোণা, হবিগঞ্জ ও মৌলভীবাজার জেলার বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হতে পারে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র। অপরদিকে কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা, বগুড়া ও জামালপুর জেলার বন্যা পরিস্থিতি স্থিতিশীল থাকতে পারে এবং কিশোরগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, সিরাজগঞ্জ ও টাঙ্গাইল জেলার বন্যা পরিস্থিতির কিছুটা অবনতি হতে পারে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।

বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) সকালে ২৪ ঘণ্টার নদ-নদীর পরিস্থিতি ও পূর্বাভাসে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সংস্থাটি বলছে, ব্রহ্মপূত্র নদের পানি সমতল স্থিতিশীল আছে, অপরদিকে যমুনা ও গঙ্গা-পদ্মা নদীর পানি সমতল বৃদ্ধি পাচ্ছে। দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে কুশিয়ারা ও তিতাস ব্যতীত সকল প্রধান নদ-নদী সমূহের পানি সমতল হ্রাস পাচ্ছে।

বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আরিফুজ্জামান ভূইয়া স্বাক্ষরিত নদ-নদীর পরিস্থিতি ও পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আবহাওয়া সংস্থাসমূহের গাণিতিক মডেলভিত্তিক পূর্বাভাস অনুযায়ী, আগামী ৪৮ ঘণ্টায় দেশের অভ্যন্তরে এবং উজানের বিভিন্ন অংশে ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণের সম্ভাবনা কম। এসময় ব্রহ্মপুত্র-যমুনা ও দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের প্রধান নদ-নদীসমূহের (তিতাস ব্যতীত) পানি সমতল হ্রাস পেতে পারে, অপরদিকে গঙ্গা-পদ্মা নদীর পানি সমতল বৃদ্ধি পেতে পারে।

পূর্বাভাসে আরও বলা হয়েছে, ২৪ ঘণ্টায় তিস্তা নদীর পানি সমতল হ্রাস পেতে পারে, অপরদিকে ধরলা ও দুধকুমার নদীর পানি সমতল স্থিতিশীল থাকতে পারে। দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের সিলেট, সুনামগঞ্জ, নেত্রকোণা, হবিগঞ্জ ও মৌলভীবাজার জেলার বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হতে পারে, অপরদিকে কিশোরগঞ্জ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বন্যা পরিস্থিতির কিছুটা অবনতি হতে পারে।

এসময় কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা, বগুড়া ও জামালপুর জেলার বন্যা পরিস্থিতি স্থিতিশীল থাকতে পারে, অপরদিকে সিরাজগঞ্জ ও টাঙ্গাইল জেলার বন্যা পরিস্থিতির কিছুটা অবনতি হতে পারে। শরীয়তপুর ও মাদারীপুর জেলার নিম্নাঞ্চলে স্বল্পমেয়াদী বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে।

টিএই/এএস

টাইমলাইন