মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই, ২০২৪, ঢাকা

তাজিকিস্তানে ৭.২ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০৭:২১ এএম

শেয়ার করুন:

তাজিকিস্তানে ৭.২ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প

চীনের সীমান্তবর্তী দেশ তাজিকিস্তানে ৬.৩ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে বলে জানিয়েছে ইউরোপীয়-ভূমধ্যসাগরীয় সিসমোলজিক্যাল সেন্টার (ইএমএসসি)। পরে তারা ভূমিকম্পের মাত্রা ৭.১ হিসেবে সংশোধন করে। অপরদিকে চীনের ভূমিকম্প নেটওয়ার্ক কেন্দ্র শুরুতে এটিকে ৭.৩ মাত্রা উল্লেখ করলেও পরে সংশোধন করে ৭.২ মাত্রার কথা জানিয়েছে।

চীনের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন সিসিটিভি বৃহস্পতিবার জানিয়েছে, স্থানীয় সকাল ৮টা ৩৭ মিনিটে চীনের জিনজিয়াং উইঘুর স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল এবং তাজিকিস্তানের সীমান্তের কাছে ৭.২ মাত্রার একটি ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। খবর রয়টার্সের


বিজ্ঞাপন


ইউএসজিএস ধারণা করছে, যে অঞ্চলে ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে সেটি কম জনবহুল। অল্প সংখ্যক সাধারণ মানুষ এর দ্বারা প্রভাবিত হবে।

tajikstan

খবরে বলা হয়েছে, এর কেন্দ্রস্থল আফগানিস্তান ও চীনের সীমান্তবর্তী আধা-স্বায়ত্তশাসিত পূর্বাঞ্চলীয় গোর্নো-বাদাখশানে ছিল বলে মনে করা হচ্ছে।

প্রাথমিক ভূমিকম্পের প্রায় ২০ মিনিট পর একই এলাকায় ৫ মাত্রার আফটারশক আঘাত হানে। কম জনবহুল অঞ্চলটি সুউচ্চ পামির পর্বত দ্বারা বেষ্টিত।


বিজ্ঞাপন


তবে এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ভূমিকম্পে কোনও ক্ষয়ক্ষতির কথা জানায়নি তাজিকিস্তান।

এর আগে গত ৬ ফেব্রুয়ারি ভয়াবহ জোড়া ভূমিকম্পে কেঁপে ওঠে তুরস্ক ও সিরিয়া। এরপরও আরও কয়েকটি ব্যাপক মাত্রার ভূমিকম্প হয়েছে সেখানে। এছাড়া এখন পর্যন্ত ১৭ হাজারের বেশি আফটারশক হয়েছে সেখানে।

earthquake turkey

তুরস্ক সিরিয়ায় ভূমিকম্পে এখন পর্যন্ত ৪৭ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এখনও ধ্বংসস্তূপে অনেকের লাশ রয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। তুরস্ক এরই মধ্যে উদ্ধার, ধ্বংসস্তূপ পরিষ্কার ও গৃহহীনদের স্থিতিশীল করার জন্য ব্যাপক কর্মযজ্ঞ হাতে নিয়েছে।

ভূমিকম্পের পর শতাধিক দেশ তুরস্ক ও সিরিয়ায় মানবিক সাহায্য ও উদ্ধারকারী দল নিয়ে পৌঁছে যায়। অনেক দেশের উদ্ধারকারীরা এরই মধ্যে তাদের কার্যক্রম শেষ করে দেশে ফিরেছে।

তুরস্ক-সিরিয়ার পর এরই মধ্যে বেশ কয়েকটি দেশেই শক্তিশালী ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। তার মধ্যে রয়েছে- ইন্দোনেশিয়া, ইরান, নিউজিল্যান্ড, নেপাল ও ভারত। সর্বশেষ তাজিকিস্তানেও ভূমিকম্প অনুভূত হলো।

একে

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

টাইমলাইন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর