সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ঢাকা

সড়কে ভোগান্তি এড়াতে ইজতেমাগামীদের পছন্দ মেট্রোরেল

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৫ জানুয়ারি ২০২৩, ০৯:৪৬ এএম

শেয়ার করুন:

সড়কে ভোগান্তি এড়াতে ইজতেমাগামীদের পছন্দ মেট্রোরেল

৬০ ঊর্ধ্ব খালেকুজ্জামান। যাবেন টঙ্গীর তুরাগ নদের তীরে আয়োজিত বিশ্ব ইজতেমা। মিরপুর টোলারগ থেকে এসেছে আগারগাঁও মেট্রো স্টেশনে। মেট্রো পথে ইজতেমায় যাওয়া অনেকটা স্বপ্নের মতো, যা ভেসে উঠেছে তার চোখেমুখে।

ইজতেমামুখী এই যাত্রীকে দেখা যায়, টিকেট কাটতে এসে এদিক সেদিন ঘুরছেন। বারবার জিজ্ঞেস করছেন কাউন্টারে দায়িত্বরতদের- কোথায় মিলবে টিকেট। একপর্যায়ে এক স্কাউট সদস্য দায়িত্ব নিয়ে কার্ড (টিকেট) সংগ্রহ করে দিলেও তার প্রশ্ন?  এটা তো কাগজের টিকেট না। 


বিজ্ঞাপন


রোববার (১৫ জানুয়ারি) সকালে মেট্রোরেলের আগারগাঁও স্টেশন প্রতিবেদকের সঙ্গে কথা হয় খালেকুজ্জামানের।  ঢাকা মেইলকে তিনি বলেন, এতো সুন্দর বাহিরে থেকে বোঝা যায় না। মাশাল্লাহ মাশাল্লাহ খুব সুন্দর। পছন্দ হয়েছে আমার। রাস্তায় ঝামেলা, ভোগান্তি এড়াতেই ট্রেনে এসেছি।

তিনি বলেন, সব ঠিক থাকলেও আমার কাছে কঠিন লাগে। সিঁড়ি দিয়ে (চলন্ত সিঁড়ি) উঠতে ভয় লাগে।  ভেতরেও সব কম্পিউটার।  অবশ্য ছেলেগুলো ভালো আছে, সব করে দেয়। শিখিয়ে দেয়। 

সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, মেট্রোরেলের অধিকাংশ যাত্রী ইজতেমামুখী। যদিও সাপ্তাহিক ছুটির দুই দিন ছাড়া মেট্রোরেল স্টেশনগুলোতে যাত্রীদের খুব একটা চাপ চোখে পড়ে না। তবে আজকের দৃশ্য অনেকটাই ভিন্ন। যার কারণ-টঙ্গীর তুরাগ নদের তীরে আয়োজিত বিশ্ব ইজতেমা। 

আজ প্রথম পর্বের শেষ দিন। আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে ইজতেমা ময়দানের দিকে ঢল নেমেছে মুসল্লিদের। সড়কের ভোগান্তি এড়াতে মুসল্লিদের পছন্দের তালিকায় সবার আগে রয়েছে মেট্রোরেল।


বিজ্ঞাপন


সরেজমিনে মেট্রোরেলের আগারগাঁও স্টেশন গিয়ে দেখা যায়- সকাল থেকে মেট্রোরেলে চড়ার জন্য লাইন ধরছেন ইজতেমামুখী যাত্রীরা। যাদের কেউ টিকিট পেয়ে ইতোমধ্যে চলে গেছেন, কেউবা অপেক্ষা করছেন। 

ijtema metro rail

রোববার (১৫ জানুয়ারি) আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হবে ইজতেমার প্রথম পর্ব। আজ বেলা ১২টার মধ্যে মোনাজাত শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। 

ইজতেমামুখী মুসল্লিরা বলছেন, মেট্রোরেলে চড়ে টঙ্গী পর্যন্ত যাওয়া সম্ভব হবে না। তারপরও উত্তরা পর্যন্ত তো যাওয়া যাবে। কারণ উত্তরা পর্যন্ত রাস্তায়ই সব থেকে বেশি যানজট হয়। তাই যানজটের ভোগান্তি এড়াতে তারা মেট্রোরেলে উঠেছেন।

মাহবুবে এলাহী নামে এক যাত্রী বলেন, ভোগান্তি এড়িয়ে মেট্রোরেলে যাওয়ার বিষয়টি স্মরণীয় হয়ে থাকবে। শুনেছি ১০ মিনিটে আগারগাঁও থেকে দিয়াবাড়ি যাওয়া যায়। আজ নিজ চোখে দেখতে এসেছি। টিকেট পেতে কিছুটা ভোগান্তি হয়েছে। তবে অল্প সময়ে দীর্ঘ পথে এসে ভালোই লাগছে।

আব্দুল মোতালেব নামে এক যাত্রী বলেন, ফজরের নামাজ পড়ে রওনা হয়েছি। বিভিন্ন রুটির বাস বন্ধ তাই ট্রেনে এসেছি যাওয়ার জন্য। সঙ্গে মুরুব্বি আব্বা জান, ওনার পক্ষে বেশি পথ হাঁটা সম্ভব না। তাই মেট্রোরেলে আসা। 

উত্তরা অংশে দেখা যায়, মুসল্লিরা প্লাটফর্ম থেকে নেমে নির্ধারিত বিআরটিসি বাসে যাচ্ছেন ইজতেমা ময়দানে। এছাড়াও লেগুনায় চড়েও ইজতেমার মাঠের দিকে রওয়ানা হয়েছে অনেকেই। 

বাস এবং লেগুনা সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বিআরটিসি বাসে ইজতেমা মাঠ (আব্দুল্লাহপুর) নেওয়া হচ্ছে ১৫ টাকা। অন্য দিকে লেগুনা নিচ্ছে ৩০ টাকা।

ডিএইচডি/একে

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

টাইমলাইন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর