ফিলিং স্টেশনে চাপ কম

প্রকাশিত: ০৬ আগস্ট ২০২২, ১২:৩৩ পিএম
ফিলিং স্টেশনে চাপ কম

মধ্যরাত থেকে হঠাৎ করে তেলের দাম বেড়ে যাওয়াই রাজধানীর ফিলিং স্টেশন গুলোতে চাপ কমেছে। এমনকি যারা তেল নিচ্ছেন তারাও পরিমাণে আগের তুলনায় কম নিচ্ছেন।

শনিবার (৬ আগস্ট) সকালে রাজধানীর রামপুরার হাজেরা ফিলিং স্টেশনে সরেজমিনে দেখা যায় এমন চিত্র। যেখানে তেল নিতে অন্য দিন দীর্ঘ লাইনে অপেক্ষা করতে হতো এখন সেখানে আর তেমনটি দেখা যাচ্ছে না। লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করতে হচ্ছে না।

হাজেরা ফিলিং স্টেশনের কর্মরত সহকারী কর্মকর্তা আমিনুর রহমান ঢাকা মেইলকে বলেন, তেলের দাম বাড়ায় আজ সকাল থেকে চাপ অনেকটাই কম। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে চাপ বাড়তে পারে বলেও মনে করেন তিনি। তিনি বলেন, হঠাৎ দাম বাড়ায় যারা তেল নিতে আসছেন তারাও পরিমাণে কম নিচ্ছেন। আগে যারা ৫০০ টাকার তেল নিতেন এখন সেখানে ৩০০ টাকার তেল নিচ্ছেন।

তেল নিতে আসা জসীমউদ্দীন বলেন, হঠাৎ করে তেলের দাম বেড়ে যাওয়ায় বিপদে পড়ে গেছি। আগে জানলে গতকালই টাংকি ফুল করে রাখতাম। যা দিয়ে কিছুদিন অন্তত চলা যেত।

বিশ্ববাজারের সঙ্গে সমন্বয় করে দেশের বাজারে জ্বালানির দাম বাড়িয়েছে সরকার। নতুন এই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী— এক লাফে সবধরনের জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি হয়েছে ৫০ শতাংশ। অর্থাৎ এই দফায় লিটারপ্রতি ডিজেলের দাম বেড়েছে ৩৪ টাকা, পেট্রোলে ৪৪ ও অকটেনের দাম বেড়েছে ৪৬ টাকা এবং কেরোসিনের দাম বেড়েছে ৩৪ টাকা।

শুক্রবার (৫ আগস্ট) রাত ১০টায় জ্বালানি ও খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয়ের উপ-প্রধান তথ্য অফিসার মীর মোহাম্মদ আসলাম উদ্দিন কর্তৃক পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। যা কার্যকর হয় শুক্রবার (৫ আগস্ট) রাত ১২টা থেকে।

এদিকে নতুন করে মূল্যবৃদ্ধির পর এক লিটার ডিজেল ও কেরোসিন কিনতে লাগবে ১১৪ টাকা। প্রতি লিটার অকটেনের জন্য গুনতে হবে ১৩৫ টাকা। এছাড়া ১ লিটার পেট্রোল কিনতে হবে ১৩০ টাকায়।

এর আগে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানো হয়েছিল গত বছরের নভেম্বরে। সে সময় ডিজেল ও কেরোসিনের দাম লিটারে ১৫ টাকা বাড়ানো হয়। তাতে দাম হয়েছিল ৮০ টাকা লিটার। তার আগে এই দুই জ্বালানি তেলের দাম ছিল লিটারে ৬৫ টাকা।

টিএ/এএস

টাইমলাইন