রাত ১২টার পরে খুললো বন্ধ পাম্প, নতুন দামে তেল বিক্রি

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬ আগস্ট ২০২২, ০১:০০ এএম
রাত ১২টার পরে খুললো বন্ধ পাম্প, নতুন দামে তেল বিক্রি
ছবি: ঢাকা মেইল

জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে হঠাৎ করেই নানা অজুহাতে তেল বিক্রি বন্ধ করে দেয় পাম্প মালিকরা। এতে তেল না পেয়ে বিক্ষোভ শুরু করে দেয় মোটরসাইকেল চালকরা। আবার রাত ১২টার পরই তেল বিক্রি শুরু করে পাম্পগুলো। তবে পাম্পগুলোতে তেল বিক্রি করা হচ্ছে সরকার নির্ধারিত নতুন দামে।

শুক্রবার (৫ আগস্ট) রাত সাড়ে ১১টার রাজধানীর মুগদা এলাকায় শান্ত ফিলিং স্টেশনে সরেজমিনে দেখা যায়, মোটরসাইকেল চালকদের লম্বা লাইন। পাম্প স্টেশনে তেল দেওয়া বন্ধ রেখেছে কর্তৃপক্ষ। তারা বলছে— বিদ্যুৎ না থাকার কারণে তেল দেওয়া যাচ্ছে না। পাম্প বন্ধ দেখে বিক্ষোভ শুরু করে দেয় মোটরসাইকেল চালকরা। পরিস্থিতি শান্ত করতে চলে আসে পুলিশ। এভাবে রাত ১২টা পার হয়ে গেলে নতুন দামে তেল বিক্রি শুরু করে কর্তৃপক্ষ।

এদিকে তেলের দামবৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গেই তেল কেনার হিড়িক পড়েছে রাজধানীর ফিলিং স্টেশনগুলোতে। পুরাতন মূল্যে তেল কিনতে ফিলিং স্টেশনগুলোতে ভিড় করছেন বাইক চালকরা। শুক্রবার রাত ১০টায় জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির খবর প্রচারের পর রাজধানীজুড়ে এই চিত্র দেখা গেছে।

বিশ্ববাজারের সঙ্গে সমন্বয় করে দেশের বাজারে সবধরনের জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানো হয়েছে। শুক্রবার (৫ আগস্ট) রাত ১২টা থেকে নতুন এই মূল্য কার্যকর হবে। নতুন দাম অনুযায়ী— ডিজেল ও কেরোসিন লিটারপ্রতি ৩৪ টাকা বেড়ে হয়েছে ১১৪ টাকা, অকটেন লিটারপ্রতি ৪৬ টাকা বেড়ে হয়েছে ১৩৫ টাকা এবং পেট্রোল প্রতিলিটারে ৪৪ টাকা বেড়ে হয়েছে ১৩০ টাকা। 

জানা গেছে, রাত ১০টায় তেলের মূল্যবৃদ্ধির খবর প্রচার হওয়ার পর থেকে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকার ফিলিং স্টেশনগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়। এ সময় বিভিন্ন স্টেশনের সামনে বাইক চালকদের ভিড় লক্ষ্য করা গেছে।

এর আগে বিশ্ববাজারের সঙ্গে সমন্বয় করে দেশের বাজারে জ্বালানির দাম বাড়ানোর ঘোষণা দেয় সরকার। এই সিদ্ধান্ত শুক্রবার (৫ আগস্ট) রাত ১২টা থেকেই কার্যকর হবে বলে জানানো হয়। নতুন দর অনুযায়ী— লিটারপ্রতি ডিজেল ও কেরোসিনের দাম ১১৪ টাকা, অকটেন ১৩৫ ও পেট্রোল ১৩০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

এই সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, বৈশ্বিক বর্তমান প্রেক্ষাপটে বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের মূল্য বাংলাদেশের তুলনায় অনেক বেশি হওয়ার কারণে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশন (বিপিসি), ইস্টার্ন রিফাইনানি লিমিটেড (ইআরএল) এ পরিশোধিত এবং আমদানি/ক্রয়কৃত ডিজেল, কেরোসিন, অকটেন ও পেট্রোলের মূল্য সমন্বয় করে ভোক্তা পর্যায়ে পুণঃনির্ধারণ করা হলো। শুক্রবার রাত ১২ টার পর থেকে ডিপোর ৪০ কিলোমিটারের ভেতর ভোক্তা পর্যায়ে এই দর কার্যকর হবে।

উল্লেখ্য, বিশ্ববাজারের সঙ্গে সমন্বয় করে দেশের বাজারে সবধরনের জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানো হয়েছে। শুক্রবার (৫ আগস্ট) রাত ১২টা থেকে নতুন এই মূল্য কার্যকর হবে। নতুন দাম অনুযায়ী— ডিজেল ও কেরোসিন লিটারপ্রতি ৩৪ টাকা বেড়ে হয়েছে ১১৪ টাকা, অকটেন লিটারপ্রতি ৪৬ টাকা বেড়ে হয়েছে ১৩৫ টাকা এবং পেট্রোল প্রতিলিটারে ৪৪ টাকা বেড়ে হয়েছে ১৩০ টাকা। 

টিএই/এইউ

টাইমলাইন