জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি: লাইনে যারা আছে ‘আগের দামে’ তেল পাবেন

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬ আগস্ট ২০২২, ০১:৫১ এএম
জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি: লাইনে যারা আছে ‘আগের দামে’ তেল পাবেন
ছবি: ঢাকা মেইল

জ্বালানি তেলের বাড়তি দামের খবর শুনে বিভিন্ন পাম্পে ভিড় জমায় বাইক ও পরিবহন চালকরা। রাত ১২টার পর থেকে নতুন দাম কার্যকর হওয়ার কথা থাকলেও মোটরবাইক ও গাড়ির চাপে রাত ১টায় প্রচুর ভিড় দেখা যায় আসাদগেট সোনার বাংলা সার্ভিস স্টেশন পাম্পে। 

শুক্রবার (৫ আগস্ট) দিবাগত রাত ১টার দিকে এই চিত্র দেখা গেছে রাজধানীর আসাদগেটের সোনার বাংলা সার্ভিস স্টেশনে।  

বিশ্ববাজারের সঙ্গে সমন্বয় করে দেশের বাজারে সবধরনের জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানো হয়েছে। শুক্রবার (৫ আগস্ট) রাত ১২টা থেকে নতুন এই মূল্য কার্যকর হবে। নতুন দাম অনুযায়ী— ডিজেল ও কেরোসিন লিটারপ্রতি ৩৪ টাকা বেড়ে হয়েছে ১১৪ টাকা, অকটেন লিটারপ্রতি ৪৬ টাকা বেড়ে হয়েছে ১৩৫ টাকা এবং পেট্রোল প্রতিলিটারে ৪৪ টাকা বেড়ে হয়েছে ১৩০ টাকা। 

এদিকে সোনার বাংলা সার্ভিস স্টেশনে সরেজমিনে দেখা যায়, পুলিশের টহল থাকা সত্ত্বেও ভিড় সামাল দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। বর্ধিত দামে তেল নিতে নারাজ বাইকাররা। আবার পাম্পের তেলও বিক্রি করতে পারছিল না। পরে পাম্প কর্তৃপক্ষ ও পুলিশের সমঝোতায় লাইনে থাকা বাইকার ও গাড়িকে আগের মূল্যে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। তবে ৫ লিটারের বেশি নয়। 

পাম্প কর্তৃপক্ষ জানায়, প্রথমে দুই লিটার করে আগের মূল্যে তেল দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। পরে অপেক্ষমানরা তাতে নারাজ হওয়ায় ৫ লিটার দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

উপস্থিত পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, পাম্পের তেল বিক্রি বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। বাইকগুলো সামনে ছিল, রাস্তায়ও জট লেগে গেছে। একটা সমঝোতা করে এখন ঠিক আছে। লাইন শেষ হয়ে গেলে নতুন দামে বিক্রি করবে পাম্প। 

মোহাম্মদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল কালাম আজাদ ঢাকা মেইলকে বলেন, আধাঘণ্টা বন্ধ ছিল পাম্প। কেন বন্ধ রাখবে তারা তাই আমরা বলেছি- যেহেতু আগে বন্ধ ছিল যারা আগে এসেছে, লাইনে আছে তাদের আগের মূল্যে দেবে।

ডব্লিউএইচ/এইউ

টাইমলাইন