মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০২৪, ঢাকা

আলোচনায় অতিরিক্ত সচিবের ২৯ বই ও বাধ্যতামূলক অবসর

মোস্তফা ইমরুল কায়েস
প্রকাশিত: ২৫ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:৪৩ পিএম

শেয়ার করুন:

আলোচনায় অতিরিক্ত সচিবের ২৯ বই ও বাধ্যতামূলক অবসর

সরকারি কর্মকর্তাদের ‘জ্ঞানচর্চা ও পাঠাভ্যাস’ বাড়ানোর জন্য বই কেনার তালিকায় ছিল জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের এক অতিরিক্ত সচিবের ২৯টি বই, যা নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা হয়। পরে বইয়ের তালিকাটি বাতিল করা হয়। এছাড়া প্রশাসনে বদলি, রদবদল, বাধ্যতামূলক অবসর ও ওএসডি বছরজুড়ে ছিল আলোচনায়। বিশেষ করে বছরের শেষদিকে পুলিশের কয়েকজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা থেকে শুরু করে তথ্য সচিবকেও বাধ্যতামূলক অবসরে পাঠানো ছিল আলোচনায়।

৬ অক্টোবর বাধ্যতামূলক অবসরে পাঠানো হয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সচিব মকবুল হোসেনকে। তাকে অবসরে পাঠানোর কারণ জানা না গেলেও বিষয়টি নিয়ে তুমুল আলোচনা শুরু হয়।


বিজ্ঞাপন


এরপর ১৮ অক্টোবর পুলিশ সুপার পদমর্যাদার তিনজন কর্মকর্তাকে বাধ্যতামূলক অবসরে পাঠায় সরকার। অবসরে যাওয়া পুলিশ কর্মকর্তা হলেন- বিসিএস পুলিশ ক্যাডারের ১২তম ব্যাচের শহীদুল্ল্যাহ চৌধুরী ও দেলোয়ার হোসেন মিঞা এবং ১৫তম ব্যাচের মীর্জা আবদুল্লাহেল বাকী।

makbul

৩১ অক্টোবর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পৃথক প্রজ্ঞাপনে বাংলাদেশ পুলিশের আরও দুই কর্মকর্তাকে বাধ্যতামূলক অবসরে পাঠায় সরকার। দুজনই অতিরিক্ত ডিআইজি পদমর্যাদার কর্মকর্তা। তারা হলেন- ট্যুরিস্ট পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি মাহবুব হাকিম এবং সিআইডির অতিরিক্ত ডিআইজি আলমগীর আলম। এছাড়া বিসিএস ৩০তম ব্যাচের পুলিশ কর্মকর্তা উৎপল দত্তকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। উৎপল দত্ত তখন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে লিয়েনে কর্মরত ছিলেন।

১৬ নভেম্বর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রজ্ঞাপনে জনস্বার্থে অবসরে পাঠানো হয় পুলিশের আরও এক কর্মকর্তাকে। তিনি হলেন খুলনার তৃতীয় এপিবিএনের অধিনায়ক আলী হোসেন ফকির।


বিজ্ঞাপন


২০ নভেম্বর অপরাধ তদন্ত বিভাগের বিশেষ পুলিশ সুপার মুনির হোসেন নামে আরও এক পুলিশ কর্মকর্তাকে বাধ্যতামূলক অবসরে পাঠায় সরকার। মুনির হোসেন ২০১১ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারি থেকে বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওএসডি) ছিলেন।

police

২১ নভেম্বর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ থেকে জারি করা এক প্রজ্ঞাপনে পুলিশের এসপি ব্যারিস্টার জিল্লুর রহমান নামে আরও এক কর্মকর্তাকে বাধ্যতামূলক অবসরে পাঠায় সরকার। জনস্বার্থে সরকারি চাকরি থেকে অবসর দেওয়া হলো বলে প্রজ্ঞাপনে বলা হয়।

পুলিশ কর্মকর্তাদের অবসরে পাঠানোর বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল সাংবাদিকদের বলেন, দেশপ্রেম ও দক্ষতার ঘাটতি যাদের আছে, তাদের অবসরে পাঠানো হচ্ছে।

জার্মানভিত্তিক গণমাধ্যম ডয়চে ভেলেকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব কে এম আলী আজম বলেন, এটা একটা স্বাভাবিক প্রক্রিয়া। সরকার এই প্রক্রিয়ায় যে কাউকে চাকরির বয়স ২৫ বছর পূর্ণ হলে অবসরে পাঠাতে পারে। এতে প্রশাসনে অস্থিরতা তৈরি হওয়ার কিছু নেই।

nabirul

বাধ্যতামূলক অবসর ছাড়াও ওএসডি ও লঘুদণ্ড ছিল বছরব্যাপী আলোচনায়।

নিচু জায়গায় ঘর নির্মাণ নিয়ে প্রতিবেদন করায় সাংবাদিককে গালাগাল করে ওএসডি হন টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কায়সার খসরু। পরে দুঃখ প্রকাশ করেও পদে থাকতে পারেননি তিনি। সমালোচনার জেরে তাকে ওএসডি করা হয়।

অন্যদিকে আলীকদম উপজেলায় ফুটবল ট্রফি ভেঙে সমালোচনার মুখে পড়েন আরেক ইউএনও মেহরুবা ইসলাম। সমালোচনার মুখে তিনদিন পর গত ২৬ সেপ্টেম্বর আলোচিত সেই ইউএনওকে ঢাকা বিভাগে বদলি করা হয়।

সরকারি কর্মকর্তাদের ‘জ্ঞানচর্চা ও পাঠাভ্যাস’ বাড়ানোর জন্য ১ হাজার ৪৭৭টি বই কিনতে ৯ কোটি ৫৪ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয় জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। নিজের লেখা ২৯টি বই তথ্য গোপন করে তালিকায় তোলেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব নবীরুল ইসলাম। বিষয়টি নিয়ে খবর প্রকাশের পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সমালোচনার বন্যা বয়ে যায়। এরপর ২৯ আগস্ট বইয়ের তালিকাটি বাতিল করা হয়।

এমআইকে/জেএম

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

টাইমলাইন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর