মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০২৪, ঢাকা

ফিরে দেখা-২০২২: বছরজুড়েই আলোচনায় ছিল ব্রাহ্মণবাড়িয়া

আশিকুর রহমান মিঠু
প্রকাশিত: ০২ জানুয়ারি ২০২৩, ১২:৪৫ পিএম

শেয়ার করুন:

ফিরে দেখা-২০২২: বছরজুড়েই আলোচনায় ছিল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
ছবি: ঢাকা মেইল

বছর জুড়েই আলোচিত ঘটনার মধ্যে দিয়েই ২০২২ সাল অতিবাহিত করেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়াবাসী। কিছু কিছু ঘটনা সারা দেশে মানুষের মধ্যে আলোচনার খোরাক হয়। কিছু কিছু ঘটনার জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়াবাসীকে বিব্রতও হতে হয়। ২০২২ সালের আলোচিত ঘটনার মধ্যে ছিলো বিষ মেশানো মিষ্টি খাইয়ে দুই শিশু পুত্রকে হত্যার পর ‘নাপা সিরাপ’ এর ওপর দোষ চাপানো, ট্রেনের নিচে পড়েও অলৌকিকভাবে তরুণীর বেঁচে যাওয়া, মসজিদের টাকা নিয়ে দ্বন্দ্বে খুন, অগ্নিকান্ডে একই পরিবারের ৫ জনের মৃত্যু, পাগল ডাকায় শিশুকে জবাই করে খুন, মাদকাসক্ত পুত্রের ছুরিকাঘাতে বাবা খুন, প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে বৃদ্ধ মাকে খুন, পরকীয়ার জেরে ফার্নিচার ব্যবসায়ীকে খুন, বিয়ের জন্য চাপ দেওয়া প্রাইভেট শিক্ষকের হাতে ছাত্রী খুন, বিয়ের ১০ বছর পর এক সঙ্গে ৪ সন্তান প্রসব, পুলিশের গুলিতে ছাত্রদল নেতা নিহত এবং বিশ্বকাপ ফুটবলের ফাইনালে শহরে পুলিশ মোতায়েন উল্লেখযোগ্য। এছাড়া বছর জুড়ে জেলায় ছোট বড় মিলিয়ে বেশ কয়েকটি সংঘর্ষ হয়।

বিশ্বকাপ ফুটবলের ফাইনালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুলিশ মোতায়েন


বিজ্ঞাপন


ফিফা কাতার বিশ্বকাপ ফুটবল খেলা উপলক্ষে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ছিল ভক্তদের মধ্যে উম্মাদনা, শহরের বিভিন্ন বাসা-বাড়িতে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা সমর্থকদের পতাকা উত্তোলন, শহরে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা সমর্থকদের মোটরসাইকেল র‌্যালি, ভক্তদের বড় পর্দায় খেলা দেখার আয়োজন ছিল চোখে পড়ার মতো। ভক্ত সমর্থকদের এমন উম্মাদনার কারণে শহরে যাতে কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা পরিস্থিতির সৃষ্টি না হয় সে জন্য গত ১৮ ডিসেম্বর রাত ৯টায় আর্জেন্টিনা ও ফ্রান্সের মধ্যে অনুষ্ঠিত খেলায় শহরে পুলিশের পক্ষ থেকে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। বিট পুলিশের পাশাপাশি শহরে মোতায়েন করা হয় ৩৫ পুলিশ সদস্য। ছিল গোয়েন্দা পুলিশের পর্যবেক্ষণ। এছাড়াও পুলিশ লাইন্সে থাকা পুলিশ সদস্যদের সর্তকাবস্থায় রাখা হয়। তবে ফাইনাল খেলাকে কেন্দ্র করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া কোনো ধরনের অঘটন ঘটেনি।

পাগল ডাকায় শিশুকে জবাই করে খুন

গত ২৫ নভেম্বর রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর শহরের কান্দিপাড়ার মাইমলহাটিতে শিশু আবু বক্কর ওরফে মাইনুল হাসানকে (৫) গলা কেটে হত্যা করে প্রতিবেশী সাব্বির মিয়া (২০) নামে এক যুবক। সাব্বিরকে পাগল ডাকায় সে শিশু আবু বক্কর ওরফে মাইনুল হাসানে তার ঘরে ডেকে নিয়ে গলা কেটে হত্যা করে লাশ বস্তাবন্দি করে প্রতিবেশীর বাড়ির উঠানে টিউবওয়ের কাছে ফেলে রাখে।

বাঞ্ছারামপুরে পুলিশের গুলিতে ছাত্রদল নেতা নিহত


বিজ্ঞাপন


গত ১৯ নভেম্বর বাঞ্চারামপুরে পুলিশের গুলিতে ছাত্রদল নেতা রফিকুল ইসলাম নয়ন মিয়া নিহত হন। রফিকুল ইসলাম নয়ন মিয়া উপজেলার সোনারামপুর ইউনিয়নের চরশিবপুর গ্রামের রহমতউল্লাহর ছেলে। তিনি সোনারামপুর ইউনিয়ন ছাত্রদলের সহ-সভাপতি ছিলেন।

স্থানীয়রা জানান, গত ২৬ নভেম্বর কুমিল্লায় অনুষ্ঠিত বিএনপির গণসমাবেশকে সফল করতে বাঞ্ছারামপুর উপজেলা বিএনপির নেতা-কর্মীরা ১৯ নভেম্বর বিকেলে বাঞ্ছারামপুর উপজেলা সদরে প্রচারপত্র বিলি শেষে একটি মিছিল বের করেন। মিছিলটি উপজেলা পরিষদ এলাকা পার হয়ে মোল্লাবাড়ি মসজিদের সামনে পৌঁছলে পুলিশের সঙ্গে তাদের ধস্তাধস্তি হয়। এক পর্যায়ে পুলিশের গুলিতে নয়ন মিয়া আহত হন। আহত নয়ন মিয়াকে বাঞ্চারামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকায় পাঠানো হয়। সন্ধ্যা ৭টা ২০ মিনিটে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে  নয়ন মিয়া মারা যান।

সরাইলে মাদকাসক্ত ছেলের হাতে বাবা খুন

গত ২৩ অক্টোবর ভোরে সরাইল উপজেলার শাহজাদাপুর ইউনিয়নের দেওড়া গ্রামের পশ্চিমপাড়ায় মাদকাসক্ত ছেলে মনির হোসেনের (৩১) ছুরিকাঘাতে বাবা মোগল মিয়া (৫৫) খুন হন।

পারিবারিক সূত্র ও পুলিশ জানায়, মোগল মিয়া দীর্ঘদিন ধরে সৌদি আরবে চাকরি করতেন। ঘটনার মাসখানেক আগে তিনি দেশে ফিরেন। মোগল মিয়ার ৫ সন্তানের মধ্যে বড় ছেলে মনির হোসেন মাদকসেবী ছিলেন। মোগল মিয়া বিদেশ থাকাবস্থায় মনির হোসেন ব্যবসার কথা বলে তার কাছ থেকে বেশ কয়েকবার টাকা নেন। কিন্তু ব্যবসা করেনি। ঘটনার ২/৩ দিন আগে মনির পুনরায় ব্যবসার কথা বলে বাবার কাছে টাকা চায়। বাবা টাকা দিতে অস্বীকার করলে ২৩ অক্টোবর ফজর নামাজ পড়ে মোগল মিয়া মসজিদ থেকে বাড়ি আসার পথে মনির হোসেন তাকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এক সঙ্গে চার সন্তান প্রসব

গত ১০ অক্টোবর রাতে বিজয়নগর উপজেলার ইছাপুরা ইউনিয়নের কৃষক সাগর আলীর স্ত্রী রিপা বেগম (২৩) ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের জেলরোডের লাইফ কেয়ার শিশু ও জেনারেল হাসপাতালে এক সঙ্গে চার সন্তান প্রসব করেন। বিয়ের প্রায় ১০ বছর পর রিপা বেগম হাসপাতালের চিকিৎসক শারমিন সুলতানার তত্ত্বাবধানে ১ ছেলে এবং ৩ কন্যা সন্তানের জন্ম দেন।

বিয়ের জন্য চাপ দেওয়ায় প্রেমিকাকে খুন

বিয়ের জন্য চাপ দেয়ায় প্রেমিকা আশিকা জাহান সিপাকে (১৭) খুন করে তার লাশ পুকুরে ফেলে দেয় প্রেমিক বাইজিদ সরকার (২৬)। গত ২৮ আগস্ট দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার মুন্সেফপাড়ার একটি পুকুর থেকে সিপার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। সিপা শহরের গভ. মডেল গার্লস হাই স্কুল থেকে ২০২২ সালে এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিলেন। সিপা তার পরিবার পরিজনের সঙ্গে মুন্সেফপাড়ায় ভাড়া বাসায় বসবাস করতেন। সিপাকে তিন বছর ধরে প্রাইভেট পড়াতেন কসবা উপজেলার বিনাউটি ইউনিয়নের খিদিরপুর গ্রামের মুখলেছুর রহমানের ছেলে বাইজিদ সরকার। বাইজিদ ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজের মাস্টার্স শেষবর্ষের ছাত্র ছিলেন। প্রাইভেট পড়ানোর কারণে সিপা ও বাইজিদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। ঘটনার কয়েকদিন আগে সিপা বাইজিদকে বিয়ের জন্যে চাপ দিলে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। পরে বাইজিদ সিপাকে ডেকে নিয়ে হত্যা করে তার লাশ পুকুরে ফেলে দেয়।

আখাউড়ায় ট্রেনের নিচে পড়েও অলৌকিকভাবে বেঁচে যান তরুণী

গত ২২ জুলাই সন্ধ্যায় আখাউড়া উপজেলার বাইপাস এলাকায় তিতাস ব্রিজে নোয়াখালীগামী উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেনের নিচে পড়ে ও অলৌকিকভাবে বেঁচে যান তরুনী লিজা আক্তার। লিজা উপজেলার বড় কুড়িপাইকা গ্রামের লিটন ভূঁইয়ার মেয়ে ও একই এলাকার জুনাইদ স্ত্রী।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ২২ জুলাই সন্ধ্যায় দুই তরুণী ও এক যুবক আখাউড়া তিতাস ব্রিজের ওপরে উঠে ছবি তোলার সময় হঠাৎ নোয়াখালীগামী উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেন আসতে দেখে এক তরুণী ও যুবক ব্রিজ থেকে নেমে যান। অপর তরুণী লিজা চোখমুখ বুঝে ব্রিজের স্লিপারের ওপর শুয়ে যান। এসময় ট্রেনটি তার ওপর দিয়ে চলে যায়।

সরাইলে মসজিদের টাকা নিয়ে খুন

গত ৬ জুলাই সরাইল উপজেলার চুন্টা ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামে মসজিদের টাকা নিয়ে দ্বন্দ্বে দু’দল গ্রামাবাসীর সংঘর্ষে আবদুর রশিদ (৫০) নামে এক ব্যক্তি নিহত হন।

নবীনগরে ফার্নিচার ব্যবসায়ী খুন

গত ৪ এপ্রিল ভোরে নবীনগর উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নের বাঘাউড়া গ্রামে পরকীয়ার জেরে আতিকুর রহমান ওরফে সুমন (২৮) নামের এক ফার্নিচার ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যা করা হয়। আতিকুর রহমান মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার আলিপুর গ্রামের মৃত আবু মিয়ার ছেলে। তিনি ৭-৮ বছর ধরে বাঘাউড়া গ্রামে বসবাস করে ফার্নিচারের ব্যবসা করতেন। পুলিশ জানায়, পরকীয়ার জেরেই আতিকুর রহমানকে হত্যা করা হয়।

আশুগঞ্জে অগ্নিকান্ডে একই পরিবারের ৫ জনের মৃত্যু

গত ২২ ফেব্রুয়ারি রাতে আশুগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের শরীয়তনগর গ্রামের আলাই মিয়া মোল্লার পাঁচতলা বিশিষ্ট ভবনে আগুন লেগে ভবনের নিচতলার ভাড়াটিয়া শিক্ষক মকবুল হোসেন (৪০), তার অন্তঃসত্বা স্ত্রী রেখা বেগম (৩২), তাদের দুই সন্তান জয় (০৯) ও জুবায়ের (০৭) মারা যান। অগ্নিকান্ডের সময় ঘটনাস্থলেই শিশু জুবায়ের মারা যান। পরে ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় অন্যান্যরা মারা যান। এ ছাড়া এ ঘটনার পর দগ্ধ রেখা আক্তারের গর্ভে থাকা মেয়ে সন্তান জন্মগ্রহণ করে মৃত অবস্থায়। মকবুল হোসেন আশুগঞ্জ উপজেলার শরীফপুর ইউনিয়নের শরীফপুর গ্রামের সফর মিয়ার ছেলে।

বিষ মেশানো মিষ্টি খাইয়ে দুই পুত্রকে হত্যা

পরকীয়ার জেরে গত ১০ মার্চ রাতে আশুগঞ্জ উপজেলার দূর্গাপুর গ্রামে বিষ মেশানো মিষ্টি খাইয়ে ইয়াসিন খান (৭) ও মোরসালিন খান (৫) নামে দুই ছেলেকে হত্যা করে লিমা বেগম নামে এক নারী। লিমা বেগম দূর্গাপুর গ্রামের ইটভাটা শ্রমিক ইসমাঈল হোসেন ওরফে সুজন খানের স্ত্রী। দুই শিশু পুত্রকে বিষ মেশানো মিষ্টি খাইয়ে হত্যার পর তাদের মা লিমা বেগম দাবি করেছিলেন  ‘নাপা সিরাপ’ খেয়ে তার ছেলেরা অসুস্থ হয়ে মারা গেছে। এ ঘটনায় দেশজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়। সারা দেশে পাইকারি ও খুচরা দোকান পরিদর্শন করে নাপা সিরাপের একটি ব্যাচের ওষুধ পরীক্ষা করার নির্দেশ দেয় ওষুধ প্রশাসন। পরে আদালতে ১৬৪ ধারায় দেওয়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দীতে লিমা বেগম বলেন, বিষ মেশানো মিষ্টি খাইয়ে তিনি দুই শিশু পুত্রকে হত্যা করেন।

আখাউড়ায় প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে মাকে খুন

গত ২ জানুয়ারি আখাউড়া পৌর শহরের শান্তিনগর এলাকায় জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে ৮০ বছর বয়সী বৃদ্ধা মাকে কুপিয়ে হত্যা করে জমির খাঁ।

টিবি

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

টাইমলাইন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর