বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই, ২০২৪, ঢাকা

মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয়ের বাজেট ৭২৪৩ কোটি টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১ জুন ২০২৩, ০৮:৩১ পিএম

শেয়ার করুন:

মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয়ের বাজেট ৭২৪৩ কোটি টাকা

আগামী ২০২৩-২৪ অর্থবছরে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের বাজেট ৭ হাজার ২৪৩ কোটি টাকা প্রস্তাব করা হয়েছে। যেখানে ২০২২-২৩ অর্থবছরে বরাদ্দ ছিল ৬ হাজার ৯৮৪ কোটি টাকা। যা পরে সংশোধিত বাজেটে বরাদ্দ করা হয় ৮ হাজার ৬১ কোটি টাকা। একই সঙ্গে আগামী অর্থবছরের বাজেটে গেজেটভুক্ত যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা করদাতাদের করমুক্ত আয়সীমা ২৫ হাজার টাকা বাড়ানোর প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে এই আয়সীমা ৪ লাখ ৭৫ হাজার টাকা। আগামী অর্থবছরের জন্য তাদের আয়সীমা ৫ লাখ টাকা প্রস্তাব করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১ জুন) অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল জাতীয় সংসদে আগামী অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে উপস্থাপনকালে এসব তথ্য জানান। 


বিজ্ঞাপন


জাতীয় বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী জানান, মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যাণে সরকার যে ভাতা প্রদান করে আসছে তার ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে। মুক্তিযোদ্ধাদের পূর্ণাঙ্গ তথ্য সংবলিত ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেম (এমআইএস) তৈরি করা হয়েছে। জি-টু-পি (সরকার থেকে ব্যক্তি) পদ্ধতিতে সরাসরি ভাতাভোগীদের ভাতা প্রদান প্রক্রিয়ায় এই ডাটাবেজ ব্যবহার করা হচ্ছে। একই সঙ্গে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের পরিচিতি নিশ্চিত করতে তাদের স্মার্ট কার্ড ও ডিজিটাল সনদ প্রদানের কার্যক্রম চলমান রয়েছে বলে জানান তিনি। 

মন্ত্রী বলেন, বিনামূল্যে বিতরণের জন্য ৩০ হাজার ‘বীর নিবাস’ নির্মাণের কাজ চলছে। ইতোমধ্যে ৫ হাজার নিবাস হস্তান্তর করা হয়েছে। মৃত্যুর পর প্রত্যেক বীর মুক্তিযোদ্ধার সমাধি একই নকশায় নির্মাণের কাজও চলমান আছে। একই সঙ্গে মুক্তিযুদ্ধের ঐতিহাসিক স্থানগুলো সংরক্ষণ ও স্মৃতি জাদুঘর নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় ৬৪ জেলার ২৯৩টি উপজেলার ৩৬০টি স্থানে স্মৃতিস্তম্ভ ও জাদুঘর নির্মাণ করা হচ্ছে বলে জানান আ হ ম মুস্তফা কামাল। 

মুস্তফা কামাল বলেন, ২৭১টি ঐতিহাসিক স্থানে স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণের কাজ ইতোমধ্যেই শেষ হয়েছে। মহান মুক্তিযুদ্ধে জীবন উৎসর্গকারী ভারতীয় মিত্র বাহিনীর ১ হাজার ৬৬১ জন সদস্যের স্মরণে স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ প্রকল্পের কাজও শুরু হয়েছে। এছাড়া মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি সংরক্ষণ করার উদ্দেশ্যে ‘বীরের কণ্ঠে বীর গাঁথা’ প্রকল্পের মাধ্যমে জীবিত মুক্তিযোদ্ধাদের বক্তব্য রেকর্ডের জন্য কার্যক্রম হাতে নেওয়া হয়েছে। 

উল্লেখ্য, ৭ লাখ ৬১ হাজার ৭৮৫ কোটি টাকার প্রস্তাবিত জাতীয় বাজেট উপস্থাপন করেন অর্থমন্ত্রী। এটি দেশের জন্য ৫২তম জাতীয় বাজেট এবং আওয়ামী লীগ সরকারের পাঁচ মেয়াদের ২৪তম বাজেট।


বিজ্ঞাপন


ডব্লিউএইচ/এইউ

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

টাইমলাইন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর