শনিবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০২৩, ঢাকা

আইএমএফের প্রেসক্রিপশনে বাজেট দিইনি: অর্থমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২ জুন ২০২৩, ০৪:০৯ পিএম

শেয়ার করুন:

আইএমএফের প্রেসক্রিপশনে বাজেট দিইনি: অর্থমন্ত্রী

আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) পরামর্শে বাজেট প্রণয়নের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। বলেছেন, আইএমএফের প্রেসক্রিপশনে বাজেট প্রণয়ন করা হয়নি।

শুক্রবার (২ জুন) বিকেলে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বাজেটপরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রী এই কথা বলেন।


বিজ্ঞাপন


বিভিন্ন মহল থেকে অভিযোগ ওঠেছে সরকার আইএমএফের দেওয়া শর্তের ভিত্তিতে বাজেট প্রণয়ন করেছে। এ বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা তাদের প্রেসক্রিপশনে বাজেট করিনি। তাদের পরামর্শের যেটুকু গ্রহণ করা যায় সেটুকু করব। সেখানে আমাদের কোনো আপত্তি নেই।’

এ প্রসঙ্গে মন্ত্রী আরও বলেন, ‘আইএমএফের সঙ্গে যারা কাজ করে সেটি ভালো। তারা শুধু অর্থ দিয়ে সাহায্য করে না, অর্থনৈতিক বিভিন্ন সংস্কারে সহায়তা করে। তাদের কাছ থেকে অনেক কিছু শেখারও থাকে।’

মুস্তফা কামাল বলেন, আমরা এখন পৃথিবীতে সবাই সবার সঙ্গে সম্পৃক্ত। একে অপরের সাথে অ্যালাইনড। কেউ আলাদাভাবে বসবাস করার কোনো সুযোগ-সুবিধা নাই। আপনি যদি আমদানি করেন, তাহলেও কাউকে লাগবে, রফতানি করলেও কাউকে লাগবে।

মন্ত্রী বলেন, এখন ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ হচ্ছে। অন্য দেশ থেকে বলে দেওয়া হচ্ছে কোন দেশে থেকে সেই জিনিসটি পাওয়া যাবে এবং আমরা সেটা পেতে পারি। সেখানে আমাদের যে সাবলীলভাবে যে সাধ বা সাধ্য, এগুলো একসাথে এখন পরিচালনা করা সম্ভব নয়। মাঝেমধ্যে এ ধরনের অবস্থার সৃষ্টি হলে সেটাও ফ্লেক্সিবল ওয়েতে আমরা একটা সমাধান খুঁজে বের করি।


বিজ্ঞাপন


BBB2

পুরো বাজেটটাই গরিবদের জন্য প্রণয়ন করা হয়েছে দাবি করে মন্ত্রী বলেন, আপনারাই আগে বলতেন এ দেশে মিডিল ইনকাম জনসংখ্যার হার বেশি, কিন্তু তারা ট্যাক্স দেয় না। এরা সবাই যদি ট্যাক্স দিতে তাহলে অন্যদের ভাগে কম ট্যাক্স দিতে হত। আমি মনে করি, এখন সময় এসেছে সবাইকে ট্যাক্স পেমেন্ট করতে হবে।

কর্মসংস্থান বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, এ পর্যন্ত যেসব কমিটমেন্ট আমি দিয়েছি, সবগুলো পূরণ করেছি। আমি বলেছি দুই কোটি মানুষের চাকরির ব্যবস্থা করবো, কিন্তু আমরা দুই কোটি ৪৫ লাখ মানুষের চাকরির ব্যবস্থা করেছি। দেশের জনসংখ্যা বাড়ছে, চাকরিপ্রার্থীও বেড়েছে। তবে এখন কর্মসংস্থানও বেড়েছে।

২০২৩-২৪ অর্থবছরের বাজেট বাস্তবায়ন করা সম্ভব উল্লেখ করে অর্থমন্ত্রী বলেন, আমরা যখন দেশ পরিচালনা শুরু করি, তখন ৫৯ হাজার ৪০০ কোটি টাকা রাজস্ব আয় করতাম, সেটি দুই লাখ ৯৫ হাজার কোটি টাকায় উন্নীত করতে পেরেছি। সুতরাং এবারও আমরা বাজেট বাস্তবায়ন করতে পারবো।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত রয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ড.আব্দুর রাজ্জাক, পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান, স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম, শিক্ষামন্ত্রী ড. দীপু মনি, বা‌জিণ‌্যমন্ত্রী টিপু মুন‌শি, ‌শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অর্থনীতিবিষয়ক উপদেষ্টা ড. মশিউর রহমান, পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম, বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার, এনবিআরের চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম, অর্থ সচিব ফা‌তেমা ইয়াস‌মিনসহ উচ্চপদস্থ সরকারি কর্মকর্তারা।

জেবি

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর