মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০২৪, ঢাকা

বানান ভুলের ছড়াছড়ি

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৩:০৫ পিএম

শেয়ার করুন:

বানান ভুলের ছড়াছড়ি

যেদিকেই তাকাবেন চোখে পড়বে ব্যানার, পোস্টার কিংবা সাইনবোর্ড। রাজধানীসহ সারাদেশে যেমন ব্যানার, পোস্টার, সাইনবোর্ডের ছড়াছড়ি, তেমনি ছড়াছড়ি ভুল বানানের। শুধু এগুলোই নয়, সরকারি-বেসরকারি নানা বিজ্ঞপ্তি থেকে শুরু করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও এখন বানান ভুলের ছড়াছড়ি। এরসঙ্গে রয়েছে বিকৃত ও মিশ্র ভাষার ব্যবহার। বিষয়টি নিয়ে সারা বছর তেমন একটা আলোচনা না হলেও ভাষার মাস ফেব্রুয়ারি এলেই শুরু হয় আলোচনা-সমালোচনা।

বিভিন্ন প্রচার-প্রচারণা কিংবা, বিজ্ঞাপন, গণপরিবহনেও ভুল বানান দেখা যায়। সর্বস্তরে বাংলা ভাষা চালু করতে দেশের সব সাইনবোর্ড, বিলবোর্ড, নেমপ্লেট, নম্বরপ্লেট, মিডিয়ায় ইংরেজি বিজ্ঞাপন ও মিশ্র ভাষা ব্যবহার বন্ধে উচ্চ আদালতের নির্দেশনা আছে। তারপরও সর্বস্তরে বাংলা ভাষা চালু করা যায়নি।


বিজ্ঞাপন


গত বছরের ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভা নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতি একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তি পাঠায় গণমাধ্যমে। ২২ লাইনের ওই বিজ্ঞপ্তিতে ৩০টির বেশি বানান ভুল পাওয়া যায়। কয়েকটি লাইনে ছিল একাধিক ভুল। কিছু ক্ষেত্রে ব্যাকরণের নিয়মও মানা হয়নি। এমনকি জাতির পিতাকে ‘জতির পিতা’ লেখা হয়েছে। শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. নিজামুল হক ভূঁইয়া ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. জিনাত হুদা স্বাক্ষরিত এ বিজ্ঞপ্তি পাঠানো হয়। এ নিয়ে তুমুল সমালোচনা তৈরি হয়।

21_Feb--SignBoard--Emon--Inner-04

একই সময়ে ইনস্টিটিউশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স, বাংলাদেশের (আইআবি) রাজশাহী কেন্দ্রের ব্যানারে ‘বঙ্গবন্ধু’ বানানটি ভুল লেখা নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা দেখা দেয়। বঙ্গবন্ধুর ৪৮তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে আইইবি, রাজশাহী কেন্দ্রের ভবনের দেয়াল এবং রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (রুয়েট) ক্যাম্পাসে দুটি ব্যানার সাঁটিয়ে দেয় আইইবি কর্তৃপক্ষ। দুটি ব্যানারেই ‘বঙ্গবন্ধু’ বানানটি ভুল করে লেখা হয়েছে ‘বঙ্গুবন্ধ’। দুদিন ধরে ভুল বানান সম্বলিত ব্যানারগুলো ঝুলে থাকলেও চোখ পড়েনি কর্তৃপক্ষের। তবে এটা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও সচেতন মহলে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়।

ভুল বানানের ছড়াছড়ি দেখা যায় বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সভা-সমাবেশের ব্যানার পোস্টার ফেস্টুনে। গত বছরের ২৬ মে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে প্রাণনাশের চেষ্টাকারী আবু সাঈদ চাঁদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে সমাবেশ করে ঢাকা দক্ষিণ আওয়ামী লীগ। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। সমাবেশের ব্যানারে ‘বঙ্গবন্ধু’ বানান ‘বঙ্গন্ধু’ লেখা ছিল। ওই সময় ‘বঙ্গবন্ধু’ বানান ভুলের বিষয়টি স্বীকার করেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক চৌধুরী সাইফুন্নবী সাগর। তিনি বলেন, তাড়াহুড়োর কারণে ব্যানারের বানান ভুল হয়েছে। বিষয়টিকে মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে দেখতে হবে।


বিজ্ঞাপন


21_Feb--SignBoard--Emon--Inner-03

ভুল ব্যানারে কর্মসূচি পালন করতে দেখা যায় বিএনপিকেও। লোডশেডিং, জ্বালানি তেল ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের সীমাহীন মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে রাজধানীতে এক বিক্ষোভ মিছিল করে বিএনপি। বিএনপির সহযোগী সংগঠন মৎস্যজীবী দল আয়োজিত এ মিছিলের সামনের সারিতে ছিলেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। এর ব্যানারে মূল্যবৃদ্ধি বানানটি ‘মুল্যবৃদ্ধি’ লেখা ছিল। এছাড়াও অসহনীয় লোডশেডিং ও বিদ্যুৎখাতে ব্যাপক দুর্নীতির প্রতিবাদে বান্দরবানে অবস্থান কর্মসূচির ব্যানারে জেলার নামটাই ভুলভাবে উপস্থাপন করেছে জেলা বিএনপি। ব্যানারে দেখা যায় ‘বান্দরবান’ জেলার নাম লেখা হয়েছে ‘বান্দবরান’ লেখা।

গত বছরের ঝালকাঠির নলছিটিতে স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানের অভিবাদন মঞ্চের ব্যানারের ‘স্বাধীনতা’ বানান ভুল লেখা হয়। ব্যানারে দেখা গেছে, ২৬ মার্চ মহান ‘স্বাধীনত’ ও জাতীয় দিবস ২০২৩ লেখা আর তার নিচে লেখা রয়েছে আয়োজনে উপজেলা প্রশাসন, নলছিটি ঝালকাঠি। ওই সময় ব্যানার তৈরির দায়িত্বে থাকা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ের সার্টিফিকেট সহকারী রাজিব চক্রবর্তী বলেন, আসলে এটা ডেকোরেটর মালিকের ভুল।

21_Feb--SignBoard--Emon--Inner-02

এদিকে গত বছরের বইমেলায় বানান ভুল নিয়ে বিপদে পড়ে বাংলা একাডেমি। ওই সময় কয়েকদিন ধরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বইমেলায় আগত দর্শনার্থীদের জন্য সতর্কতামূলক নির্দেশনায় ভুল বানানের ছবি ছড়িয়ে পড়ে। যা নিয়ে অনেকেই সমালোচনা করে আয়োজক বাংলা একাডেমির। দেখা গেছে, পুরো মেলা প্রাঙ্গণে বৈদ্যুতিক সংযোগ থাকা স্পটগুলোতে ‘বিপজ্জনক’ শব্দকে ‘বিপদজনক’ লেখা রয়েছে। ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার পরে যেসব জায়গায় এমন ভুল বানান ছিল তার বেশ কিছু জায়গায় অতিরিক্ত কাগজ দিয়ে ঠিক বানান লিখে দেওয়া হয়। এছাড়া মেলায় মোবাইল ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠান ‘বিকাশের’ একটি ফেস্টুনে ‘সমস্যা’ বানান ‘সম্যসা’ লেখার ছবি ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। এরপরই বিষয়টি নজরে এলে বানান ঠিক করার উদ্যোগ নেয় বাংলা একাডেমি।

21_Feb--SignBoard--Emon--Inner-01

এছাড়া অহরহ ভুল বানান দেখা যায় বিভিন্ন দোকানের সাইনবোর্ড, দেয়ালে লাগানো বাড়ি ভাড়ার বিজ্ঞাপন কিংবা যানবাহনের ভেতরে বাইরে বিভিন্ন লেখায়।

রাজধানীর মতিঝিলে একটি ফটোকপির দোকানের সামনের সাইনবোর্ডে দেখা যায় রাবার স্ট্যাম্প বানান লেখা হয়েছে ‘রাবার ষ্ট্যাম্গ’। পাশেই আরেক রেস্টুরেন্টে দেখা যায় তন্দুরি রুটি লিখা হয়েছে ‘তুন্দুলরুটি’। এছাড়া একই এলাকার বাড়ি ভাড়ার বিভিন্ন বিজ্ঞাপনে অসংখ্য ভুল বানান দেখা যায়।

টিএই

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

টাইমলাইন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর