বুধবার, ১২ জুন, ২০২৪, ঢাকা

জিআই অনুমোদন পেল রংপুরের হাঁড়িভাঙ্গা আম

জেলা প্রতিনিধি, রংপুর
প্রকাশিত: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৭:৩৪ এএম

শেয়ার করুন:

জিআই অনুমোদন পেল রংপুরের হাঁড়িভাঙ্গা আম

বাংলাদেশের আরও ৪ পণ্যকে ভৌগোলিক নির্দেশক (জিআই) পণ্য হিসেবে অনুমোদন দিয়ে জার্নাল প্রকাশিত হয়েছে। সেই ৪ পণ্যের মধ্যে রংপুরের হাঁড়িভাঙ্গা আম স্থান পেয়েছে। এতে আনন্দিত রংপুরের ব্যবসায়ী সমাজ ও সুধী সমাজ। এর আগে ২০১৬ সালে রংপুরের শতরঞ্জি জিআই পণ্য হিসেবে স্বীকৃতি পায়।

সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) শিল্প মন্ত্রণালয় এ তথ্য জানিয়েছে। হাঁড়িভাঙ্গা আমছাড়াও দেশের মধ্যে মৌলভীবাজারের আগর, মৌলভীবাজারের আগর আতর ও মুক্তগাছার মন্ডা জিআই পণ্যের স্বীকৃতি পেয়েছে। এ নিয়ে বাংলাদেশে অনুমোদিত জিআই পণ্যের সংখ্যা দাঁড়ালো ২৮টিতে।


বিজ্ঞাপন


গত কয়েকবছর থেকে আমদৌত্য হিসেবে বিশেষ ভূমিকা পালন করে আসছে হাঁড়িভাঙ্গা আম। এরমধ্যে ভারতের নরেন্দ্রমোদি, পশ্চিমবঙ্গের মমতা বন্দোপধ্যায়ের কাছে মৌসুমি সুস্বাদু ফল হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পাঠিয়ে আসছেন কয়েকবছর ধরে। এছাড়া বিভিন্ন দেশে এই আম পাঠিয়ে থাকেন আত্মীয় স্বজনরা।

thumbnail_RANGPUR-1

সিটি প্রেসক্লাব রংপুরের সহ-সভাপতি ও সাহিত্যিক এস এম খলিল বাবু বলেন, হাঁড়িভাঙ্গা আম রংপুর অঞ্চলের চাকাকে কয়েকবছর ধরে সচল রেখেছে। সেই পণ্য রংপুর তথা দেশের গণ্ডি পেরিয়ে বিদেশের মাটিতে স্থান করে নিয়েছে।  হাঁড়িভাঙ্গা আম এবারে জিআই পণ্য হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়ায় রংপুরের সম্মান বৃদ্ধি পেয়েছে, সেই সঙ্গে দেশের ভাবমৃর্তি বৃদ্ধি পেয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আসছে হাঁড়িভাঙ্গা আমের মৌসুমে একটি বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থার দাবি জানাই। কেননা এই হাঁড়িভাঙ্গা আম এক মৌসুমে প্রায় সাড়ে ৩শ কোটি টাকার ব্যবসা করে। রাজশাহী থেকে ম্যাংগো ট্রেন চালু হলে রংপুর থেকে চালু হবে না কেন?


বিজ্ঞাপন


রংপুর মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ড্রাস্ট্রিজের প্রেসিডেন্ট বলেন, আমরা খুবই আনন্দিত, আমাদের রংপুরের একটি পণ্য হাঁড়িভাঙ্গা আম এবারে জিআই পণ্য হিসেবে স্বীকৃতি পেল। এটি আমাদের অর্থনীতির চাকাকে আরও সচল করবে। এর আগে আমাদের শতরঞ্চি জিআই পণ্য স্বীকৃতি পেয়েছিল। দেশের মধ্যে রংপুরের দুটি পণ্য জিআই স্বীকৃতি পাওয়ায় আমরা ব্যবসায়ী সমাজ সত্যি আনন্দিত। এতে রংপুরবাসী হিসেবেও গর্বিত।

HARIVANGA_AM_PHOTO_1

উল্লেখ্য, হাড়িভাঙ্গা আম বাংলাদেশের একটি বিখ্যাত ও সুস্বাদু আম। বিশ্ববিখ্যাত এ হাড়িভাঙ্গা আমের উৎপত্তি রংপুর জেলার মিঠাপুকুর উপজেলার খোড়াগাছ ইউনিয়ন থেকে। আমটির ‘ইতিহাসের’ গোড়াপত্তন করেছিলেন নফল উদ্দিন পাইকার নামের এক বৃক্ষবিলাসী মানুষ। শুরুতে এর নাম ছিল মালদিয়া। আমগাছটির নিচে তিনি মাটির হাঁড়ি দিয়ে ফিল্টার বানিয়ে পানি দিতেন। একদিন রাতে কে বা কারা ওই মাটির হাঁড়িটি ভেঙে ফেলে। ওই গাছে বিপুল পরিমাণ আম ধরে। সেগুলো ছিল খুবই সুস্বাদু। সেগুলো বিক্রির জন্য বাজারে নিয়ে গেলে লোকজন ওই আম সম্পর্কে জানতে চায়। তখন চাষি নফল উদ্দিন মানুষকে বলেন, ‘যে গাছের নিচের হাড়িটা মানুষ ভাঙছিল সেই গাছেরই আম এগুলা।’ তখন থেকেই ওই গাছটির আম  ধরে হাঁড়িভাঙ্গা আম নামে পরিচিতি পায়। বর্তমানে রংপুরের হাঁড়িভাঙা আমের মাতৃ গাছটির বয়স ৬৩ বছর।

প্রতিনিধি/টিবি

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর