শনিবার, ২৫ মে, ২০২৪, ঢাকা

কোরআনে বর্ণিত গুনাহ মাফের ১১ দোয়া

ধর্ম ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:৩৪ পিএম

শেয়ার করুন:

কোরআনে বর্ণিত গুনাহ মাফের ১১ দোয়া

সারাদিন জেনে না-জেনে আমরা অনেক গুনাহ করে ফেলি। এসব গুনাহ থেকে ক্ষমা পেতে আল্লাহর কাছে দোয়া করা এক মহান এবাদত। দোয়াকে বলা হয় ইবাদতের মগজ। ‘মহান আল্লাহর কাছে দোয়ার চেয়ে অধিক সম্মানিত কোনো কিছু নেই’ (ইবনে মাজাহ: ৩৮২৯)। পবিত্র কোরআনে আল্লাহ বলেন, 'তোমরা আমার কাছে দোয়া করো। আমি তোমাদের দোয়া কবুল করব' (সূরা মুমিন: ৬০) 

আল্লাহ তাআলা বান্দার গুনাহ ক্ষমা করতে ভালোবাসেন, তাই তাঁর একটি নাম হলো গাফুর বা ক্ষমাশীল। এখানে পবিত্র কোরআনে বর্ণিত গুনাহ মাফের ১১টি দোয়া তুলে ধরা হলো।


বিজ্ঞাপন


১) رَبَّنَا إِنَّنَا آمَنَّا فَاغْفِرْ لَنَا ذُنُوبَنَا وَقِنَا عَذَابَ النَّارِ ‘রব্বানা ইন্নানা আ-মান্না ফাগফিরলানা যুনূবানা ওয়াক্বিনা ‘আযা-বান্না-র।’ অর্থ: ‘হে আমাদের রব! নিশ্চয় আমরা ঈমান এনেছি। অতএব আমাদের গুনাহগুলো ক্ষমা করুন এবং আমাদেরকে জাহান্নামের আজাব থেকে রক্ষা করুন।’ (সুরা আলে ইমরান: ১৬)

২) رَبِّ إِنِّىْ ظَلَمْتُ نَفْسِىْ فَاغْفِرْ لِىْ ‘রব্বি ইন্নী যলামতু নাফসী ফাগফিরলী।’ অর্থ: ‘হে আমার রব, নিশ্চয় আমি আমার নফসের প্রতি জুলুম করেছি, অতএব আপনি আমাকে ক্ষমা করে দিন।’ (সুরা কাসাস: ১৬)

আরও পড়ুন: মসজিদে প্রবেশ ও বের হওয়ার দোয়া

৩) أَنْتَ وَلِيُّنَا فَاغْفِرْ لَنَا وَارْحَمْنَا وَأَنْتَ خَيْرُ الْغَافِرِينَ ‘আনতা ওয়ালিয়্যুনা ফাগফিরলানা ওয়ারহামনা ওয়া আনতা খাইরুল গা-ফিরীন।’ অর্থ: ‘আপনি আমাদের অভিভাবক। অতএব আমাদের ক্ষমা করে দিন এবং আপনি উত্তম ক্ষমাশীল।’ (সুরা আরাফ: ১৫৫)


বিজ্ঞাপন


৪) رَبِّ اغْفِرْ وَارْحَمْ وَأَنْتَ خَيْرُ الرَّاحِمِينَ ‘রব্বিগফির ওয়ারহাম ওয়া আনতা খাইরুর র-হিমীন।’ অর্থ: ‘হে আমাদের রব! আপনি ক্ষমা করুন, দয়া করুন এবং আপনিই সর্বশ্রেষ্ঠ দয়ালু।’ (সুরা মুমিনুন: ১১৮)

৫) رَبَّنَا أَتْمِمْ لَنَا نُورَنَا وَاغْفِرْ لَنَا إِنَّكَ عَلٰى كُلِّ شَيْءٍ قَدِيرٌ ‘রব্বানা আতমিম লানা নূরানা ওয়াগফিরলানা ইন্নাকা আলা কুল্লি শাইয়িন ক্বদীর।’ অর্থ: ‘হে আমাদের রব, আমাদের জন্য আমাদের আলো পূর্ণ করে দিন এবং আমাদেরকে ক্ষমা করুন; নিশ্চয় আপনি সর্ববিষয়ে সর্বক্ষমতাবান। (সুরা তাহরিম: ৮)

আরও পড়ুন: ঘুমানোর আগের ও পরের দোয়া

৬) سَمِعْنَا وَأَطَعْنَا غُفْرَانَكَ رَبَّنَا وَإِلَيْكَ الْمَصِيرُ ‘সামি’না ওয়া আত্বা‘না গুফরা-নাকা রব্বানা ওয়া ইলাইকাল মাসীর।’ অর্থ: ‘আমরা শুনলাম এবং মানলাম। হে আমাদের রব! আমরা আপনারই (নিকট) ক্ষমা প্রার্থনা করি, আর আপনার দিকেই প্রত্যাবর্তনস্থল।’ (সুরা বাকারা: ২৮৫)

৭) رَبَّنَا تَقَبَّلْ مِنَّا إِنَّكَ أَنْتَ السَّمِيعُ الْعَلِيمُ … وَتُبْ عَلَيْنَا إِنَّكَ أَنْتَ التَّوَّابُ الرَّحِيمُ ‘রব্বানা তাক্বববাল মিন্না ইন্নাকা আনতাস সামীউল আলীম। ওয়াতুব আলাইনা ইন্নাকা আনতাত তাওওয়া-বুর রহীম।’ অর্থ: ‘হে আমাদের রব! আপনি আমাদের পক্ষ হতে এটি কবুল করুন। নিশ্চয় আপনি সর্বশ্রোতা ও সর্বজ্ঞ’। ‘আমাদের ক্ষমা করুন। নিশ্চয় আপনি অধিক তওবা কবুলকারী ও দয়াময়।’ (সুরা বাকারা: ১২৭-১২৮)

আরও পড়ুন: কবর জিয়ারতের দোয়া

৮) رَبَّنَا ظَلَمْنَا أَنْفُسَنَا وَإِنْ لَمْ تَغْفِرْ لَنَا وَتَرْحَمْنَا لَنَكُونَنَّ مِنَ الْخَاسِرِينَ ‘রব্বানা যলামনা আনফুসানা ওয়া ইল্লাম তাগফিরলানা ওয়া তারহামনা লানাকূনান্না মিনাল খা-সিরীন।’ অর্থ: ‘হে আমাদের রব! আমরা আমাদের নিজেদের উপর জুলুম করেছি। এখন যদি আপনি আমাদের ক্ষমা না করেন ও দয়া না করেন, তাহলে অবশ্যই আমরা ক্ষতিগ্রস্তদের অন্তর্ভুক্ত হয়ে পড়ব।’ (সুরা আরাফ: ২৩)

৯) رَبِّ اجْعَلْنِىْ مُقِيمَ الصَّلَاةِ وَمِنْ ذُرِّيَّتِىْ رَبَّنَا وَتَقَبَّلْ دُعَاءِ .. رَبَّنَا اغْفِرْ لِىْ وَلِوَالِدَىَّ وَلِلْمُؤْمِنِينَ يَوْمَ يَقُومُ الْحِسَابُ ‘রব্বিজআলনী মুক্বীমাস সলা-তি ওয়া মিন যুররিইয়্যাতী, রব্বানা ওয়া তাক্বব্বাল দু‘আ। রব্বানাগফিরলী ওয়ালি ওয়া-লিদাইয়্যা ওয়ালিল মু’মিনীনা ইয়াওমা ইয়াকূমুল হিসা-ব। অর্থ: ‘হে আমার রব! আমাকে সালাত কায়েমকারী করুন এবং আমার সন্তানদের মধ্য থেকেও। হে আমাদের রব! আমার দোয়া কবুল করুন’! ‘হে আমাদের রব! আমাকে ও আমার পিতা-মাতাকে এবং ঈমানদার সকলকে ক্ষমা করুন যেদিন হিসাব নেওয়া হবে।’ (সুরা ইবরাহিম: ৪০-৪১)

আরও পড়ুন: টয়লেটে প্রবেশ ও বের হওয়ার দোয়া

১০) رَبَّنَا آمَنَّا فَاغْفِرْ لَنَا وَارْحَمْنَا وَأَنْتَ خَيْرُ الرَّاحِمِينَ ‘রব্বানা আ-মান্না- ফাগফিরলানা ওয়ারহামনা ওয়া আনতা খাইরুর রা-হিমীন।’ অর্থ: ‘হে আমাদের রব! আমরা বিশ্বাস স্থাপন করেছি, আপনি আমাদের ক্ষমা করুন এবং আমাদের প্রতি রহম করুন। আপনি তো সর্বশ্রেষ্ঠ দয়ালু।’ (সুরা মুমিনুন: ১০৯)

১১) رَبِّ اغْفِرْ لِىْ وَلِوَالِدَىَّ وَلِمَنْ دَخَلَ بَيْتِىَ مُؤْمِنًا وَّلِلْمُؤْمِنِينَ وَالْمُؤْمِنَاتِ وَلَا تَزِدِ الظَّالِمِينَ إِلَّا تَبَارًا ‘রব্বিগফিরলী ওয়ালি ওয়া-লিদাইয়্যা ওয়ালিমান দাখালা বায়তিয়া মু’মিনাও ওয়ালিল মু’মিনীনা ওয়াল মু’মিনা-তি ওয়ালা তাযিদিযয-লিমীনা ইল্লা তাবা-রা।’ অর্থ: ‘হে আমার রব! আমাকে ও আমার পিতা-মাতাকে ক্ষমা করুন, আর যে ব্যক্তি আমার বাড়িতে মুমিন অবস্থায় প্রবেশ করবে তাকে ক্ষমা করুন এবং সকল মুমিন নর-নারীকে ক্ষমা করুন। আর জালিমদের ধ্বংস বৃদ্ধি করুন।’ (সুরা নুহ: ২৮) 

আল্লাহ তাআলা আমাদের সবাইকে উল্লেখিত দোয়াগুলো মুখস্থ করার এবং নিয়মিত আমল করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর