রোববার, ২১ এপ্রিল, ২০২৪, ঢাকা

প্রাক্তনকে ক্ষমা করার দিন

ক্ষমা করে দিলাম তোমায় 

নিশীতা মিতু
প্রকাশিত: ১৭ অক্টোবর ২০২৩, ১২:০৯ পিএম

শেয়ার করুন:

Forgive an Ex
ছবি: প্রতীকী

জীবনকে আমরা যতই নিজের মনের মতো সাজাতে চাই সে চলে আপন গতিতে। কখনো যা চাই তা পাই। কখনোবা পাই না। এই পাওয়া আর না পাওয়াকে সঙ্গী করেই এগিয়ে চলতে হয় আগামীর পথে। 

প্রকৃতিতে এসেছে হেমন্ত। এমন কার্তিকের সন্ধ্যায় কানে হেডফোন গুঁজে হয়তো শুনছেন, ‘সেই তুমি কেন এত অচেনা হলে/ সেই আমি কেন তোমাকে দুঃখ দিলেম’। হালকা শীতের আবহাওয়ায় এই গান আপনাকে টেনে নিলো অতীতে। বিষণ্ণ এক গোলকধাঁধায় গেলেন আটকে। মনে পড়ল জীবনে অতীত হওয়া কোনো মানুষের কথা। 


বিজ্ঞাপন


ex2

প্রেম/ভালোবাসা/প্রণয়/বিরহ/বিচ্ছেদ— এগুলো জীবনেরই অংশ। সাদামাটা জীবনে হঠাৎ রঙ হাতে আগমন ঘটে কারোর। রঙিন হয়ে উঠে চারপাশ। মন তখন আনমনে গেয়ে উঠে, ‘হঠাৎ তোমায় মন দিয়েছি/ ফেরৎ চাইনি কোন দিন/ মন কি তোমার হাতের নাটাই/ তোমার কাছে আমার ঋণ/ মন হারালেও মনের মানুষ হারে না’। গানের ভাষায় না হারালেও বাস্তবে মনের মানুষটি হারিয়ে যেতে পারে। খুব চেনা মানুষটিই একসময় বড্ড অচেনা হতে পারে। আলাদা হয়ে যেতে পারে দুজনার পথ। তখন তার পরিচয় হয় একটিই- ‘প্রাক্তন’। 

 

 

জীবন থেকে অতীত হওয়া ভালোবাসার মানুষটিকেই মূলত প্রাক্তন বলা হয়। সে চলে গেলেও থেকে যায় অসংখ্য স্মৃতি, কষ্ট, বেদনা কিংবা অভিমান। অবেলায় দু’ফোটা চোখের জল ফেলার কারণ হয় এই মানুষটি। তবু কি কখনো মনে হয়েছে, যে গেছে সে গেছে। তাকে নিয়ে ভাবা বোকামি। বরং তাকে ক্ষমা করে দেওয়া উচিত? 

ex3

মনে এমন ভাবনা এলে তা বাস্তবায়ন করার দিন এসেছে। আজ ১৭ অক্টোবর, প্রাক্তনকে ক্ষমা করে দেওয়ার দিন। অদ্ভুত এই দিবসের সূচনা ২০১৮ সালে। মার্ক অ্যান্থনি নামের একজন ব্যক্তি দিবসটির সূচনা করেন। সম্পর্ক জীবনে যেমন সুন্দর হয়ে আসতে পারে, তেমনি হতে পারে বেদনাদায়ক। যার প্রভাব জীবনে পড়ে দুইভাবে। হয় খুব ভালো না হয় করুণ। 

 

 

প্রাক্তনের প্রতি জমানো কষ্ট, রাগ বা ক্ষোভ একজন মানুষকে মানসিকভাবে আহত করে। দুমড়ে মুচড়ে দিতে পারে তার স্বাভাবিক জীবন। তাই, নিঃশর্তে প্রাক্তনকে ক্ষমা করে নতুন করে সামনে এগিয়ে যাওয়ার বার্তা দেওয়াই এই দিবসের মূল লক্ষ্য। 

ex4

প্রাক্তনকে ক্ষমা করার মানে এই নয় যে সব ভুলে আবার তার সঙ্গে সম্পর্কে জড়াবেন। গভীর রাতে হঠাৎ যদি মান্না দে'র সুরে সুর মিলিয়ে মন গেয়ে ওঠে, 'খুব জানতে ইচ্ছে করে/ তুমি কি সেই আগের মতোই আছো/ নাকি অনেকখানি বদলে গেছ।' তাতেও সায় দেবেন না। বরং আপনার জীবনে যেন সেই মানুষটি কোনো প্রভাব না রাখতে পারে তা নিশ্চিত করুন। তার জীবনে উঁকি দেওয়াও বন্ধ করুন। সে কী করছে, কেমন আছে— তা জানার চেষ্টা করবেন না। যে মানুষটি আর আপনার নেই তার ভালোমন্দ জেনে কী লাভ বলুন? 

 

 

কান্নাভেজা চোখ মুছে আজ মাথা তুলে দাঁড়ান। আগামী পথে পা বাড়ান নতুন উদ্যমে। নিজের শিক্ষা, ক্যারিয়ারে ফোকাস দিন। পরিবার কিংবা কাছের মানুষগুলোর সঙ্গে সময় কাটান। মনে বন্দি করে রাখা অভিমানের কপাট খুলুন। হাসি মুখে বলুন, ‘যাও, ক্ষমা করে দিলাম তোমায়’। 

ex5

দুঃখ জীবনেরই অংশ। কারো থেকে দুঃখ পেলেন মানে জীবনের শেষ এমনটা ভাববেন না। বরং ভেঙে যাওয়া সম্পর্ককে শক্তিতে রূপান্তরিত করুন। নিজেকে গড়ে তুলুন পরিপূর্ণভাবে। হয়ত আসছে ফাগুনে মনের আঙিনায় নতুন করে ফুল ফোটাবে নতুন ভালোবাসার মানুষ। আর তেমনটা না হলেই বা কী? ভালো থাকুন নিজের মতো করে। সোমলতার গাওয়া গানের দুটো লাইন বলে শেষ করছি- ‘সেই হারানো চড়ুইয়ের ডাক/ বলে যে গেছে সে চলে যাক/ নিজেকে ভালোবাসো, তুমি এবার।’

এনএম

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর