মঙ্গলবার, ২৮ মে, ২০২৪, ঢাকা

পোশাকশিল্প অধ্যুষিত সব এলাকায় শান্তিপূর্ণ কর্মপরিবেশ ফিরেছে: বিজিএমইএ

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৬ নভেম্বর ২০২৩, ০৮:৩৯ এএম

শেয়ার করুন:

পোশাকশিল্প অধ্যুষিত সব এলাকায় শান্তিপূর্ণ কর্মপরিবেশ ফিরেছে: বিজিএমইএ
ফাইল ছবি

পোশাকশিল্প অধ্যুষিত সব এলাকায় শান্তিপূর্ণ কর্মপরিবেশ ফিরেছে বলে জানিয়েছে পোশাক রফতানিকারক উদ্যোক্তাদের সংগঠন বিজিএমইএ। সংগঠনটি বলছে, বুধবার কোনো কারখানায় শ্রম অসন্তোষ ছিল না। রাজধানীর মিরপুরে বন্ধ থাকা কারখানাগুলোও খুলে দেওয়ার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। ঘোষিত নতুন মজুরিকে কেন্দ্র করে বন্ধ থাকা সব কারখানা বৃহস্পতিবার পুরো দমে কাজে ফিরছে। ১৩০টি কারখানা এক সপ্তাহের মতো বন্ধ থাকার পর গত সোমবার থেকেই কিছু কিছু এলাকার কারখানা খুলে দেওয়া হয়। 

বুধবার (১৫ নভেম্বর) এক বিবৃতিতে বিজিএমইএর সভাপতি ফারুক হাসান এসব কথা বলেন। 


বিজ্ঞাপন


তিনি বলেন, শ্রমিক ভাই-বোন, শ্রমিক সংগঠন, স্থানীয় রাজনৈতিক নেতা, প্রশাসন, শিল্প পুলিশ, গণমাধ্যমের কর্মী, স্থানীয় জনগণের ঐকান্তিক সহযোগিতায় দেশের পোশাকশিল্প অধ্যুষিত সব এলাকায় বর্তমানে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বিরাজ করছে। কারখানাগুলোতে পুরোদমে উৎপাদন কার্যক্রম চলছে। মিরপুরের বন্ধ হওয়া কারখানাগুলো খুলে দেওয়ার বিষয়ে গত মঙ্গল ও বুধবার আলোচনা হয়েছে। 

আরও পড়ুন


বিজ্ঞাপন


বিবৃতিতে বলা হয়, দুই দিনের আলোচনায় শ্রমিক সংগঠন, স্থানীয় রাজনৈতিক নেতাসহ সবাই জানিয়েছেন, শ্রমিক ভাই-বোনরা কারখানায় কাজে ফিরতে চান। তাই শুক্রবার মিরপুরের এবং অন্য সব স্থানের বন্ধ হওয়া পোশাক কারখানা খুলে দেওয়া হবে। 

শ্রমিক ও মালিকরা যাতে কোনো রকম হয়রানির শিকার না হন, এ বিষয়ে অনুরোধ জানিয়ে বিজিএমইএ সভাপতি আরও বলেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীগুলোর প্রতি সনির্বন্ধ অনুরোধ, কোনো প্রিয় শ্রমিক ভাই-বোন বা কর্মচারী এবং মালিক যেন কোনো ধরনের হয়রানির শিকার না হন, সে বিষয়ে সতর্ক থেকে কাজ করার জন্য বিশেষভাবে সতর্ক থাকুন।

গতকাল সকালে আশুলিয়ার জামগড়া, বেরন, নরসিংহপুর, নিশ্চিন্তপুর ও জিরাবো এলাকা ঘুরে দেখা যায়, শ্রমিকরা দলবেঁধে কারখানায় প্রবেশ করছেন। পরিচয়পত্র গলায় ঝুলিয়ে কারখানায় প্রবেশের জন্য শ্রমিকদের বারবার অনুরোধ জানান নিরাপত্তাকর্মীরা। সকাল ৮টার মধ্যেই কারখানায় প্রবেশ করে শান্তিপূর্ণভাবে কাজ শুরু করেন তারা। প্রধান ফটকে কারখানা খোলার নোটিশ ঝুলতে দেখা যায়।

শিল্প পুলিশ-১-এর পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সারোয়ার আলম সাংবাদিকদের বলেন, বন্ধ ঘোষিত সব কারখানা খুলে দেওয়া হয়েছে। সব কারখানায় পুরোদমে উৎপাদন চলছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক। দু-একদিন এভাবে চলতে থাকলে শিল্পাঞ্চল আবার স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসবে।

টিএই/এইউ 

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর