মঙ্গলবার, ২৮ মে, ২০২৪, ঢাকা

নতুন মজুরি ক্রেতাদের সমর্থনের আহ্বান বিজিএমইএর

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৫ নভেম্বর ২০২৩, ০৯:২৫ পিএম

শেয়ার করুন:

নতুন মজুরি ক্রেতাদের সমর্থনের আহ্বান বিজিএমইএর

দেশের পোশাক শ্রমিকদের জন্য সরকার ঘোষিত নতুন ন্যূনতম মজুরি বাস্তবায়নের জন্য বৈশ্বিক পোশাক ব্র্যান্ড এবং রিটেইলারদের সমর্থন ও সহযোগিতার আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুতকারক ও রফতানিকারক সমিতি (বিজিএমইএ)। প্রধান প্রধান পোশাক ব্র্যান্ডগুলোর প্রতিনিধিদের সংগঠন, বায়ার্স ফোরামের সদস্যদের সঙ্গে বৈঠকে এই আহ্বান জানান বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান।

বুধবার (১৫ নভেম্বর) রাজধানীর উত্তরায় বিজিএমইএ কমপ্লেক্সে বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে এইচএন্ডএম, মার্কস অ্যান্ড স্পেন্সার, ডেকাথলন, নেক্সট সোর্সিং, জিইএমও, সেলিও, কনতুর, স্ট্যানলি/স্টেলা, ওইউএস, কেমার্ট, ওটো ইন্টারন্যাশনাল, জেনিফার, আলডি, সলস, আউচান এবং কিবাই সহ বর্তমানে বাংলাদেশ থেকে পোশাক সোর্সিং করা বৈশ্বিক পোশাক ব্র্যান্ডগুলোর কান্ট্রি হেড ও প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।


বিজ্ঞাপন


বিজিএমইএ সভাপতি ব্র্যান্ডদের প্রতিনিধিদের বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্পের বর্তমান পরিস্থিতিসহ সামগ্রিক শিল্প বিষয়ে বিবরণ দেন। তিনি নতুন ন্যূনতম মজুরি কাঠামো সফলভাবে বাস্তবায়নের জন্য সরবরাহকারী এবং ক্রেতা উভয়কেই যে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে, তার ওপর বিশেষভাবে জোর দেন।

ফারুক হাসান বৈশ্বিক অর্থনৈতিক চ্যালেঞ্জগুলোর উল্লেখ করে বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্পে ক্রমবর্ধমান মুদ্রাস্ফীতির প্রভাব তুলে ধরেন। তিনি বর্তমান অর্থনৈতিক ও আর্থিক পরিস্থিতিতে নতুন মজুরি কাঠামোর বাস্তবায়ন পোশাক কারখানাগুলোর ওপর যে অতিরিক্ত আর্থিক চাপ সৃষ্টি করবে, সে বিষয়ে শিল্পের উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

ফারুক হাসান বলেন, এসব চ্যালেঞ্জের বাস্তবতায় শিল্পের কার্যক্রম নিরবচ্ছিন্ন রাখার জন্য ১ ডিসেম্বর, ২০২৩ থেকে যে পণ্যগুলোর জাহাজীকরণ হবে, নতুন মজুরি কভার করে পণ্যগুলোর মূল্য যথাযথভাবে সমন্বয় করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

দায়িত্বশীল ক্রয় চর্চার মাধ্যমে সহযোগিতা প্রদানের গুরুত্ব তুলে ধরে তিনি ব্র্যান্ড এবং রিটেইলারদের ভবিষ্যতের সমস্ত ব্যবসায়িক আলোচনা এবং চুক্তিতে নতুন ন্যূনতম মজুরি নীতি অন্তর্ভুক্ত করার জন্য অনুরোধ জানান।


বিজ্ঞাপন


এছাড়াও তিনি সাম্প্রতিক সময়ে কিছু পোশাক অধ্যুষিত এলাকায় অনাকাঙ্ক্ষিত সহিংস কর্মকাণ্ডের ফলে কিছু কারখানা সাময়িকভাবে বন্ধ থাকার কারণে কারখানাগুলোর চালানে বিলম্বের কারণে কোনো জরিমানা আরোপ অথবা অর্ডার বাতিল না করার জন্যও ব্র্যান্ডদের অনুরোধ করেন।

বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন বিজিএমইএর সহ-সভাপতি শহিদউল্লাহ আজিম, সহ-সভাপতি (অর্থ) খন্দকার রফিকুল ইসলাম, পরিচালক ফয়সাল সামাদ, ব্যারিস্টার ভিদিয়া অমৃত খান, পরিচালক ইনামুল হক খান (বাবলু) ও পরিচালক ইমরানুর রহমান প্রমুখ

টিএই/জেবি

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর