১৫০ সিসির নতুন পালসার আনল বাজাজ

অটোমোবাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ২১ নভেম্বর ২০২২, ০৯:১৮ এএম

শেয়ার করুন:

১৫০ সিসির নতুন পালসার আনল বাজাজ। মডেল পালসার এন ১৫০। এটি একটি এন্ট্রি লেভেলের পালসার বাইক। 
 
পালসার সিরিজের নতুন এই বাইকটি দেখতে অনেকেটাই এন ১৬০ মডেলের মতোই। তবে বেশ কিছু পরিবর্তন এই বাইকে দেখা যাবে। 

pulsar

এন ১৬০ মডেলের ফ্রন্ট এলইডি হেডল্যাম্পের জায়গায় এই বাইকে থাকছে চলেছে হ্যালোজেন বাল্ব। তবে এলইডির জায়গায় হ্যালোজেন ব্যবহার করা হলেও, ডিজাইনে নেই কোনো পরিবর্তন। 

বাইক বিডি: মোটরসাইকেলের সব খবর জানুন

এছাড়াও এন ১৬০ এর তুলনায় এন ১৫০ মডেলের হেডল্যাম্প কাউলও কিছুটা অন্য ধরনের। তবে, টেলল্যাম্পে কোনও পরিবর্তন আনা হয়নি। এন ১৬০ মডেলের মতোই নতুন পালসারের এলইডি টেল ল্যাম্প দেওয়া হয়েছে।

pulsarইঞ্জিন

নতুন পালসারের ইঞ্জিন পাওয়ার এন ১৬০ মডেলের তুলনায় কিছুটা কম। বর্তমানে বাজারে ১৫০ সিসির যে পালসার বিক্রি হয়, সেই পালসারের ইঞ্জিনে ১৪ পিএস পাওয়ার এবং ১৩.২ নিউটন মিটার টর্ক মেলে। অন্যদিকে এন ১৬০ পালসারের ইঞ্জিন থেকে ১৬ পিএস পাওয়ার এবং ১৪.৬৫ নিউটন মিটার টর্ক পাওয়া যায়। 

বাজারে আসা নতুন পালসার এন ১৫০ মডেলেও ১৫০ সিসির পালসারের মতোই ইঞ্জিন ও কার্যক্ষমতা পাওয়া যাবে। অর্থাৎ এতে থাকছে ১৪ পিএস পাওয়ার এবং ১৩.২ নিউটন মিটার টর্কসমৃদ্ধ ইঞ্জিন।

pulsar

ফিচার

ফিচারের দিকে থেকে দেখতে গেলে সেরকম বড়সড় কোনও পরিবর্তন আনা হয়নি নতুন পালসারে। এই বাইকেও একটি ডিজিটাল ইনস্ট্রুমেন্ট ক্লাস্টার ও ট্যাকোমিটার থাকতে চলেছে। এছাড়াও ব্যাকলিট সুইচগিয়ার ও নিজের থেকে বন্ধ হওয়া টার্ন ইন্ডিকেটর এই বাইকে দিয়েছে বাজাজ। মোবাইল ফোন চার্জ করার জন্য নতুন পালসারে একটি ইউএসবি চার্জিং পোর্টও দেওয়া হয়েছে।

ব্রেকিং ও সাসপেনশন

এন ১৬০ প্ল্যাটফর্মের উপর ভিত্তি করেই নতুন এন ১৫০ মডেলের পালসার বাজারে এসেছে। তাই  এই বাইকের সামনের চাকায় টেলিস্কোপিক ও পিছনের চাকায় মনোশক সাসপেনশন রয়েছে।

pulsar

এন্ট্রি লেভেলের ভার্সনে সামনের চাকায় ডিস্ক ও পেছনের চাকায় ড্রাম ব্রেক দিয়েছে পালসার। অন্যদিকে টপ মডেলের উভয় চাকায় ডিস্ক ব্রেক থাকছে। 

বাইকটির দাম ভারতে ১ লাখ রুপির মধ্যে। টপ মডেল কিনতে আরও কিছু বেশি খরচ করতে হবে। 

এজেড