বাইক বিডি: মোটরসাইকেলের সব খবর জানুন

প্রকাশিত: ১৭ নভেম্বর ২০২২, ০২:০১ পিএম
বাইক বিডি: মোটরসাইকেলের সব খবর জানুন

মোটরসাইকেল বা বাইক এখন জনপ্রিয় বাহন। একটা সময় তরুণরাই মোটরসাইকেল চালাতেন। এখন সব বয়সীদের পছন্দ। বাইকের দাম হাতের নাগালে আসায় গণপরিবহনের বিকল্প হয়েছে উঠেছে দুই চাকার এই যন্ত্রযান। 

বাংলাদেশের বাজারে দেশ-বিদেশি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের মোটরসাইকেল উৎপাদন ও বিক্রি হয়। এর মধ্যে বিদেশি ব্র্যান্ড হিসেবে আছে-ইয়ামাহা, সুজুকি, বাজাজ, হোন্ডা, কাওয়াসাকি, হিরো, টিভিএস, কিওয়ে, লিফান, ট্যারো, অ্যাটলাস, অ্যাপ্রিলা, মাহিন্দ্রা, বেনেলি, জিনেন, কেটিএম, রিভোল্ট, ভেসপা, লনচিন, রিগ্যাল র‌্যাপ্টর, ভিক্টর,  হাউজুয়ে, এইচ পাওয়ার, জনসেং, বেটেল বোল্ট, রোডমাস্টার, ইটালজেট, ডায়াং, পেগাসাস, ইউএম, ডায়ুন ইত্যাদি।

motorcycle

এছাড়াও দেশি ব্র্যান্ড হিসেবে সড়ক কাঁপাচ্ছে রানার, যমুনা, সিঙ্গার, আকিজ এবং ওয়ালটন। 

বিদেশি ব্র্যান্ডগুলোর কয়েকটি বাংলাদেশের পার্টনারদের সঙ্গে যৌথভাবে এদেশেই কারখানা খুলে মোটরসাইকেল উৎপাদন করছে। 

এসব মোটরসাইকেল ব্র্যান্ডের বিভিন্ন মডেলের নাম, দাম ও কনফিগারেশন সম্পর্কে জানুন। 

yamahaইয়ামাহা

জাপানের বিশ্বখ্যাত মোটরসাইকেল ব্র্যান্ড ইয়ামাহা। প্রতিষ্ঠানটির দেশীয় পরিবেশক এসিআই মোটরস লিমেটেড। 
ইয়ামাহা কিছু মোটরসাইকেল বিদেশ থেকে সরাসরি আমদানি করে। কিছু মডেল এদেশেই সংযোজন করে। ইয়ামাহার রয়েছে একঝাঁক মডেল।

মডেলগুলোর মধ্যে রয়েছে- আর ১৫, এফজেড, ফেজার, এক্সএসআর, এমটি১৫, এফজেড এক্স, স্যালুটো ইত্যাদি। 

ইয়ামাহার ওয়েবসাইট ফেসবুক পেজ থেকে ব্র্যান্ডটির সকল মডেলের তথ্য পাবেন।  

suzukiসুজুকি

সুজুকি একটি জাপানি ব্র্যান্ড। পৃথিবীর বেশিরভাগ দেশেই সুজুকির বিভিন্ন মডেলের মোটরসাইকেল পাওয়া যায়। সুজুকি বাংলাদেশ নামে এদেশে ব্র্যান্ডটি ব্যবসা পরিচালনা করলেও দেশীয় পরিবেশক হিসেবে আছে র‌্যানকন মোটরস লিমিটেড।

বাংলাদেশে সুজুকি ১১টি মডেল/ভার্সনের মোটরসাইকেল বিক্রি করে। এগুলোর মধ্যে জনপ্রিয় মডেলগুলো হলো-

সুজুকি জিক্সার, জিএসএক্স, জিক্সার এসএফ, ব্যানডিট, জিএসএক্স-আর, ইন্ট্রুডার, অ্যাক্সেস এবং সুজুতি হায়াতে। 

সুজুকি মোটসাইকেলের দাম ও মডেল সম্পর্কে তথ্য পাবেন কোম্পানির ওয়েবসাইটফেসবুক পেজ থেকে। 

bajajবাজাজ

বাজাজ ভারতীয় ব্র্যান্ড। এ দেশে বাজাজের পরিবেশক উত্তরা মোটরস লিমিটেড। বাজাজ বাংলাদেশে কারখানা খুলে বাইক তৈরি, সংযোজন করে। এর রয়েছে একগুচ্ছ মডেল। মডেলগুলো হলো- বাজাজ পালসার এনএস ১৬০, পালসার ১৫০, ডিসকভার, প্লাটিনা, অ্যাভেঞ্জার এবং সিটি। এসব মডেলের বিভিন্ন ভার্সন রয়েছে। এছাড়াও বাজাজের কয়েকটি স্কুটার আছে। 

বাজাজের বিভিন্ন ব্র্যান্ডের মোটরসাইকেলের দাম ও বিস্তারিত তথ্য পাবেন কোম্পানির ওয়েবসাইটফেসবুক পেজ থেকে। 

hondaহোন্ডা

বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় মোটরসাইকেল ব্র্যান্ড হোন্ডা। জাপানের এই টু হুইলার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হিরোর সঙ্গে একজোট হয়েছে হিরো হোন্ডা নামে মোটরসাইকেল ভারত ও বাংলাদেশে উৎপাদন ও বিক্রি করত। এখন দুইটি প্রতিষ্ঠানটি স্বতন্ত্র। দেশে বাংলাদেশ হোন্ডা প্রাইভেট লিমিটেড নামে কিছু কিছু মডেল উৎপাদন, সংযোজন ও বিক্রি করে। ঢাকার অদূরে মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ায় হোন্ডার উৎপাদন কারখানা রয়েছে। 

হোন্ডা বাংলাদেশ কয়েকটি মডেল ও ভার্সনের মোটরসাইকেল বাজারজাত করে। মডেলগুলো হলো-হোন্ডা সিবি হর্নেট, এক্সব্লেড, সিবি শাইন এসপি, ডিও, লিভো, ড্রিম এবং ফ্ল্যাগশিপ মডেল সিবিআর ১৫০ আর মডেল।
 
হোন্ডা বাংলাদেশের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট এবং ফেসবুক পেজ ভিজিট করে প্রতিষ্ঠানটির উৎপাদিত বিভিন্ন মডেল/ভার্সনের মোটরসাইকেলের বিস্তারিত তথ্য পাবেন। 

heroহিরো

হিরোর পথচলা শুরু হয় হোন্ডার হাত ধরে। হোন্ডা হিরোর সঙ্গে জোট বেঁধে শুরুতে ভারতে মোটরসাইকেল উৎপাদন শুরু করে। এসব মোটরসাইকেল বাংলাদেশেও বিক্রি হয়। পরে হোন্ডার কাছ থেকে কারিগরি জ্ঞান অর্জন করে হিরো এখন স্বতন্ত্র ব্র্যান্ড হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছে। 

হিরো বাংলাদেশে ব্যবসা করে নিলয় মোটরসের সঙ্গে। এদেশে হিরোর কারখানা রয়েছে। যেখানে কিছু কিছু মডেল তৈরি ও সংযোজন হয়। কিছু মডেল ভারত থেকে সরাসরি আমদানি করা হয়। 

হিরো ব্র্যান্ডে বেশ কয়েকটি মডেল রয়েছে। এগুলো হলো-হিরো হাঙ্ক, থ্রিলার, ইগনিটর, গ্লামার, আইস্মার্ট, এইচএফ ডিলাক্স, প্যাশন এবং স্প্লেন্ডর। এসব মডেলের একাধিক ভার্সন বিক্রি হচ্ছে। এছাড়াও হিরো বাংলাদেশে মেইস্ত্রো এবং প্লেজার নামে দুইটি স্কুটার বিক্রি করে।

হিরোর সব মডেলের তথ্য জানতে ওয়েবসাইট ফেসবুক পেজ ভিজিট করুন
tvs টিভিএস

টিভিএস ভারতের মোটরসাইকেল ব্র্যান্ড হলে বাংলাদেশে ভীষণ জনপ্রিয়। অ্যাপাচি আরটিআর মডেল দিয়ে তারা বাজার দখল করে রেখেছে। প্রতিষ্ঠানটি দেশে টিভিএস অটো বাংলাদেশ নামে ব্যবসা পরিচালনা করে। যাদের কারখানা রয়েছে বাংলাদেশে। এই কারখানায় কিছু মডেল উৎপাদন, সংযোজন হয়। কিছু মডেল ভারত থেকে আমদানি করা হয়। 

টিভিএসের জনপ্রিয় মডেলগুলোর মধ্যে রয়েছে টিভিএস অ্যাপাচি আরটিআর, স্ট্রাইকার, ম্যাক্স, মেট্রো, রেডিয়ন, এক্সএল। এসব মডেলের বিভিন্ন ভার্সন বাংলাদেশে বিক্রি হয়। 

টিভিএস মোটরসাইকেলের বিভিন্ন মডেল/ভার্সনের দাম জানতে প্রতিষ্ঠানটির ওয়েবসাইটফেসবুক পেজ ভিজিট করুন। 

kawasakiকাওয়াসাকি

জাপানের বিখ্যাত স্পোর্টস বাইক নির্মাতা প্রতিষ্ঠান কাওয়াসাকি। ব্র্যান্ডটির দেশীয় পরিবেশক এশিয়ান মোটরবাইকস লিমিটেড। কাওয়াসাকির অফ রোড, ডুয়াল পারপাস, অ্যাডভেঞ্জার ও ডার্ট বাইক এ দেশে জনপ্রিয়।

কাওয়াসাকির বেশ কয়েকটি মডেল বাংলাদেশে বিক্রি হয়। এগুলো হলো-কাওয়াসাকি নিনজা, কেএলএক্স ১৫০ এবং কেএলএক্স ১৫০ বিএফ। এই তিনটি মডেলের কয়েকটি ভার্সন পাওয়া যাচ্ছে। 

কাওয়াসাকি মোটরসাইকেলের বিভিন্ন মডেল, ভার্সন সম্পর্কে জানতে প্রতিষ্ঠানটির ওয়েবসাইটফেসবুক পেজ ভিজিট করুন।    

runnerরানার

শতভাগ বাংলাদেশি মোটরসাইকেল ব্র্যান্ড রানার অটোমোবাইলস লিমিটেড। যাদের জন্ম হয়েছিল ডায়াংয়ের হাত ধরে। চাইনিজ ব্র্যান্ড ডায়াং বাংলাদেশে আমদানি করে বাইকের বাজারে হাতেখড়ি দেয় রানার। পরে ডায়াংয়ের সহযোগিতায় এদেশে কারখানা খোলে। তৈরি করে প্রথম বাংলাদেশে তৈরি মোটরসাইকেল দূরন্ত। ৮০ সিসির ওই বাইক ভীষণ জনপ্রিয়তা পেয়েছিল। এরপর একে একে অনেকগুলো মডেলের বাইক ‍ও স্কুটার তৈরি করে। বর্তমানে রানার বাংলাদেশের মোটরসাইকেলের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশেও রফতানি করছে।

ঢাকার অদূরে ময়মনসিংহের ভালুকায় সুবিশাল কারখানা রয়েছে রানারের। ওই কারখানায় নিজস্ব ব্র্যান্ডের মোটরসাইকেল উৎপাদনের পাশাপাশি ইউএম, কেটিএমসহ আরও কয়েকটি আন্তর্জাতিক ব্র্র্যান্ডের মোটরসাইকেল উৎপাদন ও সংযোজন করছে। 

runnerরানারের বিভিন্ন মডেল

রানারের জনপ্রিয় মডেলগুলোর মধ্যে আছে, রানার নাইট রাইডার, বোল্ট, ডিলাক্স, কাইট, টার্বো, বুলেট, চিতা ইত্যাদি। 

রানার মোটরসাইকেলের বিভিন্ন মডেলের নাম ও বর্তমান বাজারদর জানতে ভিজিট করুন প্রতিষ্ঠানটির ওয়েবসাইটফেসবুক পেজ। 

এজেড