বুধবার, ১২ জুন, ২০২৪, ঢাকা

পুরনো এসি থেকে নতুনের মতো ঠান্ডা বাতাস পেতে করণীয়

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৩ জুন ২০২৩, ০২:২৬ পিএম

শেয়ার করুন:

পুরনো এসি থেকে নতুনের মতো ঠান্ডা বাতাস পেতে করণীয়

যেকোনো যন্ত্র পুরনো হলে তার কার্যক্ষমতা কমে। শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ যন্ত্র বা এসির কথাই ধরুন না। এই যন্ত্র পুরনো হলে এর কার্যক্ষমতা অনেকটাই কমে যায়। তাই নিয়মিত সার্ভিসিং করা জরুরি। এতে এসির আয়ু বাড়ার পাশাপাশি দীর্ঘদিন ঠান্ডা বাতাস দেয়। 

যাদের বাড়ির এসির বয়স ৫ বছর হয়েছে। তাদের সেই এয়ার কন্ডিশনারটিকেই নতুন করে রাখার কিছু পদ্ধতি জেনে রাখা উচিত। সামান্য কিছু গলদ দেখা দিলে কীভাবে তার রিপেয়ার করবেন, সেটাও জানা দরকার।


বিজ্ঞাপন


ac১. এসি সেটিংস পরখ করুন

প্রথমেই চেক করে নিন আপনার এসির সেটিংস ঠিক রয়েছে কি না। তা যদি ঠিক থাকে, তাহলে কোনও সমস্যা নেই। ঠিক না থাকলে একবার মেকানিককে ডেকে তা চেক করিয়ে নিন। আপনার এয়ার কন্ডিশনারটিকে যদি বেশিদিন ব্যবহার করতে চান, তাহলে তার তাপমাত্রা ২৪-২৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে সেট করে রেখেই চালানোর চেষ্টা করুন।

২. ঘরে নজর রাখুন

এসিস যাতে ভালোভাবে কাজ করে, তার জন্য আপনাকে বাড়িতেও কিছু কাজ করে রাখতে হবে। বাইরের সূর্যালোক যাতে ঘরে বেশিক্ষণ প্রবেশ করতে না পারে, তার জন্য ভালো পর্দার ব্যবহার করুন। আপনার বাড়িতে রোদ ঢুকে যদি কোনও ঘর বেশি তেতে থাকে, তাহলে এসির কাজ করাটা সমস্যার হয়ে যায়।


বিজ্ঞাপন


ac

৩. নিয়মিত রক্ষণাবেক্ষণ করুন

একটা এয়ার কন্ডিশনার যদি বেশি দিন ব্যবহার করতে চান, তাহলে একটা নির্দিষ্ট সময় অন্তর তার ফিল্টার পরিষ্কার করুন। ফিল্টার যদি খারাপ হয়ে যায়, তাহলে তা রিপ্লেস করার বন্দোবস্ত করুন। কারণ, রাস্তাঘাটের ধুলাবালি আপনার এসির ফিল্টারকে প্রভাবিত করতে পারে এবং তার কার্যকারিতাও হ্রাস করতে পারে। তাছাড়া কুলিং কয়েলও নিয়মিত পরিষ্কার করা উচিত।

৪. সঠিক নিয়মে এসি চালান

যখন আপনার বাড়িতে এসি চালাচ্ছেন, তখন ওই ঘরে আর অন্য কোনও ইলেকট্রনিক গ্যাজেটস চালাতে যাবেন না। কম্পিউটার থেকে শুরু করে স্মার্টটিভি সহ অন্যান্য ইলেকট্রনিক ডিভাইস ওই ঘরে চালাবেন না। তাতে এসির পাওয়ার কনজ়াম্পশন কমবে এবং এসির কার্যকারিতাও বাড়বে।

ac৫. ঘরের দরজা বন্ধ রাখুন

দীর্ঘ দিন যদি আপনার এসিকে টেকাতে চান, তাহলে বাড়ির দরজা-জানলা বন্ধ করেই তা চালান। তাতেই এসিটি দ্রুত আপনার ঘর ঠান্ডা করতে পারে এবং তার কর্মক্ষমতাও দিনে দিনে আরও বাড়তে থাকবে।

এজেড

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর