বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন, ২০২৪, ঢাকা

১৪ বছর পর নাটকীয়ভাবে শিরোপা জিতল মোহামেডান

স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ৩০ মে ২০২৩, ০৬:১৬ পিএম

শেয়ার করুন:

১৪ বছর পর নাটকীয়ভাবে শিরোপা জিতল মোহামেডান

বাংলাদেশের ফুটবলের দুই ঐতিহ্যবাহী দল আবাহনী ও মোহামেডান লড়াই মানেই যেন সমর্থকদের প্রবল উত্তাপ। কিন্তু আগের সেই উন্মাদনা এখন আর দেখা যায় না। তবে আজ দীর্ঘ ১২ বছর আবারো দুই জায়ান্টের শিরোপার লড়াই। কুমিল্লার শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত স্টেডিয়ামে ফেডারেশন কাপের ফাইনালে হাইভোল্টেজ এই ম্যাচ ছিল নাটকীয়তায় ভরা। ইউরোপিয়ান ফুটবলেও এমন উত্তেজনা, রোমাঞ্চকর লড়াই সচরাচর দেখা যায় না, কাব্যিকভাবে ম্যাচে কিভাবে ফিরতে হয় তা দুই দলই দেখিয়েছে। পিছিয়ে পড়ে নাটকীয়ভাবে ফিরে আসা কি ছিল না দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর লড়াইয়ে। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত সময়ে ৩-৩ গোলে ড্র হওয়া ম্যাচটি অতিরিক্ত সময়ে গড়িয়ে অমীমাংসিত থাকে। ফলে পেনাল্টি শুটআউটে গড়ানো ম্যাচটি ৪-২ গোলে জয় ছিনিয়ে নিয়েছে মোহামেডান। সেই সঙ্গে দীর্ঘ ১৪ বছর পর ফেডারেশন কাপের শিরোপা জিতল সাদা-কালোরা।

শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত স্টেডিয়ামের ধারণ ক্ষমতা হাজার দশেকের বেশি। গ্যালারির দুই অংশ আবাহনী-মোহামেডানে বিভক্ত করেছে বাফুফে। দুই দলের সমর্থকরা ক্লাবের পতাকা, জার্সি গায়ে জড়িয়ে এসেছে তারা।


বিজ্ঞাপন


মোহামেডানের খেলা দেখতে হেলিকপ্টার যোগে ঢাকা থেকে কুমিল্লা এসেছে বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন। ঢাকার বাইরে ব্যক্তিগত বা যে কোনো সফরে গেলে সালাউদ্দিন অধিকাংশ ক্ষেত্রে হেলিকপ্টার ব্যবহার করেন অনেক আগে থেকেই। সেই ধারাবাহিকতায় ফাইনাল দেখতে হেলিকপ্টারে করে এসেছেন সালাউদ্দিন। 

অপরদিকে ঢাকা থেকে বন্ধু-বান্ধবদের নিয়ে খেলা দেখতে এসেছেন বিশ্বব্যাংকের সিনিয়র ইকোনমিস্ট যশ জায়েদী। উত্তাপ ছড়ানো এই ম্যাচের ১৫ মিনিটে লিড পেয়ে যায় আবাহনী। ফয়সাল আহমেদ ফাহিমের গোলে এগিয়ে যায় আকাশী-নীলরা। 

পিছিয়ে পড়ে ম্যাচে ফিরতে মরিয়া হয়ে উঠে মোহামেডান। কিন্তু উল্টো ম্যাচের ৪৩ তম মিনিটে কোস্টারিকার ড্যানিয়েল কলিন্দ্রেসের গোলে আবাহনী ব্যবধান দ্বিগুণ করে। শেষ পর্যন্ত আর গোল না হলে ২-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় আবাহনী। 


বিজ্ঞাপন


দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই যেন ম্যাচে প্রাণ ফিরে আসে। ৫৬ থেকে ৬১ মিনিটে ২ গোল পরিশোধ করে ম্যাচে ফিরে মোহামেডান। কিন্তু তার ঠিক মিনিটে খানেক পড়েই আবারো এগিয়ে যায় আবাহনী। ৬৫ মিনিটে নাইজেরিয়ান এমেকার গোলে এগিয়ে থেকে আবাহনী ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেয়। 

কিন্তু চরম নাটকীয়তায় ভরা এই ম্যাচের শেষ দিকে আবারো সমতা ফেরায় মোহামেডান। দ্বিতীয়ার্ধে মোহামেডানের মালির অধিনায়ক সুলেমান দিয়াবাতের হ্যাটট্রিকে ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। প্রথম অতিরিক্ত সময়ে এগিয়ে যায় সাদা-কালো শিবির। ৪-৩ গোলে জয়ের স্বপ্ন দেখা মোহামেডানকে স্তব্ধ করে ম্যাচের ১১৮ মিনিটে সুলেমান দিয়াবাতের গোলে আবারো সমতা ফিরে খেলায়। 

শেষ পর্যন্ত ৪-৪ গোলে অতিরিক্ত সময়ের খেলা শেষ হয়। দীর্ঘ ১৪ বছর পর ফেডারেশন কাপের ফাইনাল টাইব্রেকারে গড়ায়। এই টুর্নামেন্টের সর্বশেষ ফাইনালের টাইব্রেকারও এই দুই দলের মধ্যে। সেই ম্যাচে মোহামেডান জিতেছিল। 

আজও সেই পুরনো স্মৃতি তাজা করল সাদা-কালোরা। পেনাল্টি শুটআউটে আবাহনীকে হতাশ করে ৪-২ গোলে নাটকীয়ভাবে শিরোপা জিতে নেয় মোহামেডান। 

 

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর