ইরানকে বিশ্বকাপ থেকে বহিষ্কারের দাবি

স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২ অক্টোবর ২০২২, ১০:৩৩ এএম
ইরানকে বিশ্বকাপ থেকে বহিষ্কারের দাবি

আসন্ন কাতার বিশ্বকাপ থেকে ইরানকে বহিষ্কার করার দাবি জানিয়েছে ওপেন স্টেডিয়ামস নামের একটি অধিকাররক্ষা সংগঠন। নারীদের প্রতি ইরানের আচরণের জন্য এমন দাবি করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ওই সংগঠন।

ফিফার প্রেসিডেন্ট জিয়ানি ইনফ্যানটিনোকে বৃহস্পতিবার পাঠানো এক চিঠিতে সংগঠনটি বলেছে যে, ফুটবলের তত্ত্বাবধায়ক সংগঠনটির চাপ সত্ত্বেও, ইরানের কর্তৃপক্ষ তাদের দেশে অনুষ্ঠিত খেলাগুলোতে নারী ভক্তদের উপস্থিত হতে বাধা দেওয়া অব্যাহত রেখেছে। খবর রয়টার্সের

চিঠিতে বলা হয়, 'ইরানের এফএ (ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন) শুধুমাত্র শাসকগোষ্ঠীর অপরাধগুলোর সহচরই নয়। তারা ইরানের ভেতরসহ আমাদের জাতীয় দল বিশ্বের যেখানেই খেলুক, সেখানেই নারী ভক্তদের নিরাপত্তার প্রতি সরাসরি হুমকি। ফুটবল আমাদের সকলের জন্যই একটি নিরাপদ স্থান হওয়া উচিৎ।সে কারণেই ইরানের ফুটবল ভক্ত হিসেবে, আসন্ন বিশ্বকাপে ইরানের অংশগ্রহণ বিষয়ে আমাদেরকে অত্যন্ত ভারাক্রান্ত মন নিয়ে আমাদের উদ্বেগ তুলে ধরতে হচ্ছে।'

চিঠিতে ওই সংগঠনটি বলে, 'ফিফা কেন ইরান রাষ্ট্র ও সেটির প্রতিনিধিদের একটি বিশ্বমঞ্চ দিবে, যখন কিনা তারা শুধুমাত্র মৌলিক মানবাধিকার ও মর্যাদাকেই প্রত্যাখ্যান করে না, বরং বর্তমানে নিজেদের মানুষদের নির্যাতন ও হত্যা করছে? এই বিষয়ে ফিফার বিধিগুলোর মূলনীতিগুলো কোথায়?'

তারা বলেছে, 'ফিফার বিধির ধারা ৩ ও ধারা ৪ এর উপর ভিত্তি করে, আমরা ফিফাকে অনুরোধ করছি যেন, তারা অবিলম্বে ইরানকে কাতারে ২০২২ বিশ্বকাপ থেকে বহিষ্কার করে।'

উল্লেখিত ওই ধারাগুলোতে মানবাধিকার এবং লিঙ্গ, জাতি, ধর্ম ও অন্যান্য বিষয়ের উপর ভিত্তি করে বৈষম্য না করার বিষয়গুলো বর্ণিত রয়েছে। এমন ধারা লঙ্ঘন শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এই অপরাধে ফিফা থেকে সাময়িক বরখাস্ত বা বহিষ্কার করা যেতে পারে। 

তবে এ বিষয়ে ফিফা বা ইরানের ফুটবল কর্তাদের কাছে রয়টার্স মন্তব্য চাইলে তাৎক্ষণিকভাবে সাড়া পাওয়া যায়নি।

একে