মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই, ২০২৪, ঢাকা

দেশে গণতান্ত্রিক কোনো অধিকার নেই: ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২৬ মার্চ ২০২৩, ০১:০৬ পিএম

শেয়ার করুন:

দেশে গণতান্ত্রিক কোনো অধিকার নেই: ফখরুল

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দুর্ভাগ্য আমাদের; যেই স্বপ্ন নিয়ে মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে দেশ স্বাধীন হয়েছিল, আশা-আকাঙ্ক্ষা ছিল সত্যিকার অর্থে একটি গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র নির্মাণ করা। সেই গণতন্ত্র আজকে সম্পূর্ণভাবে নির্বাসিত হয়েছে এবং গণতান্ত্রিক অধিকার কেড়ে নেওয়া হচ্ছে। আজকে বাংলাদেশের মানুষের ভোটের অধিকার নেই, কথা বলার অধিকার নেই, লেখার অধিকার নেই। এক কথায় দেশে গণতান্ত্রিক কোনো অধিকার নেই।

রোববার (২৬ মার্চ) মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে রাজধানীর শেরে বাংলা নগরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে এ কথা বলেন তিনি।


বিজ্ঞাপন


এর আগে সকালে সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে জাতির সূর্য সন্তানদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন বিএনপির শীর্ষ নেতারা।

বিএনপির শীর্ষ এই নেতা বলেন, দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে, একই সঙ্গে তেল-গ্যাস-বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে। এই অবস্থার প্রেক্ষিতে আজকে এই সরকার নিজেদের দুর্নীতিকে বহাল রাখার জন্য নজিরবিহীন দুর্নীতি করছে। ক্ষমতাকে টিকিয়ে রাখার জন্য তারা আজকে গুম, খুন, অন্যায়-অত্যাচারের মধ্যদিয়ে মানুষের অধিকারগুলোকে কেড়ে নিয়েছে।

BNPমির্জা ফখরুল বলেন, বাংলাদেশের মানুষ আজ জেগে উঠেছে। বাংলাদেশের মানুষ আজকে গণতন্ত্রকে উদ্ধার করার জন্য, তাদের অধিকারকে ফিরে পাওয়ার জন্য, ভোটের অধিকারকে ফিরে পাওয়ার জন্য এবং শান্তিতে বসবাস করার জন্য আন্দোলন-সংগ্রাম শুরু করেছে।


বিজ্ঞাপন


বিএনপি মহাসচিব বলেন, আজকে এই দিনে আমরা শপথ নিয়েছি, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল গণতন্ত্রকে পুনরুদ্ধার করার জন্য; বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করার জন্য; আমাদের নেতা তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য। একই সঙ্গে প্রায় ৩৫ লাখ নেতাকর্মী যারা গণতন্ত্র চায়, তাদের বিরুদ্ধে যে মিথ্যে মামলা রয়েছে তা প্রত্যাহার এবং সর্বোপরি এই সরকারের পদত্যাগ, সংসদ বিলুপ্ত করা, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের মধ্যদিয়ে নির্বাচনের ব্যবস্থা করা। নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন করাসহ ১০ দফা দাবি ও ২৭ দফা রাষ্ট্র সংস্কারের দাবিতে আমরা আন্দোলন করছি।

BNPফখরুল বলেন, আজকের এই মহান দিনে সারা দেশবাসীর প্রতি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল ও বেগম খালেদা জিয়ার পক্ষ থেকে, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের পক্ষ থেকে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছি এবং আশা করছি, গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের যে আন্দোলন সেখানে সবাই শরিক হবেন।

শ্রদ্ধা নিবেদনকালে বিএনপি মহাসচিব ছাড়াও অন্যদের মধ্যে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, গয়শ্বর চন্দ্র রায়, ড. আব্দুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, ভাইস চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার শাহজাহান উমর, এ জেড এম ডাক্তার জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান, আব্দুস সালাম, জয়নুল আবেদিন ফারুক, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, হাবিবুন নবী খান সোহেল, যুবদলের সভাপতি সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি এস এম জিলানী, মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস, সাধারণ সম্পাদক সুলতান আহমেদ, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক হেলেন জেরিন খান, বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের সদস্য শামসুদ্দিন দিদার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এমই/আইএইচ

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর