শুক্রবার, ১ মার্চ, ২০২৪, ঢাকা

সরকার পতনে একমত বিএনপি-এলডিপি: ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১১:৩৬ পিএম

শেয়ার করুন:

সরকার পতনে একমত বিএনপি-এলডিপি: ফখরুল

সরকার পতনের লক্ষ্যে আন্দোলনে একমত হয়েছে বিএনপি ও এলডিপি বলে জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বৃহস্পতিবার (২ ফেব্রুয়ারি) রাতে লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) সঙ্গে আলোচনা শেষে তিনি এ কথা বলেন। 


বিজ্ঞাপন


বিএনপি মহাসচিব মির্জা বলেন, এই সরকারের পতনের লক্ষ্যে একমত হয়েছি। তাদের পতনের ঘটানোর জন্য আন্দোলন চালিয়ে নেব এবং আরো শক্তিশালী করব।

তিনি বলেন, এই অনির্বাচিত লুটেরা গণতন্ত্র বিরোধী এবং নির্বাচন প্রক্রিয়াকে ধ্বংসকারী গণবিচ্ছিন্ন আওয়ামী লীগের যে সরকার সে সরকারকে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে সত্যিকার অর্থে জনগণের পার্লামেন্ট জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠার দাবিতে, নির্বাচনকালীন তত্ত্বাবধায়ক সরকার, এ সরকারের পদত্যাগ, সংসদ বিলুপ্ত করা, খালেদা জিয়ারসহ আটককৃত নেতাকর্মীদের মুক্তি, নিত্যপূর্ণ দ্রব্যমূল্য হ্রাস, গ্যাস বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে আমরা যে আন্দোলন শুরু করেছি, তারই অংশ হিসেবে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে কথা বলছি। এরই অংশ হিসেবে এলডিপির সাথে কথা বলেছি।

ফখরুল বলেন, আমাদের মধ্যে কথা হয়েছে যুগপৎ আন্দোলনের লক্ষ্যে এই সরকারের পতনের জন্য একযোগে কাজ করব। আগামী ৪ ফেব্রুয়ারি সমাবেশের পর যে কর্মসূচি নির্ধারণ করব সে বিষয়ে আলোচনা করেছি। 

এ সময় এলডিপির মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমেদের নেতৃত্বে প্রেসিডিয়াম সদস্য নূরুল আলম, ড. নেয়ামুল বশির, ড. আওরঙ্গজেব বেলাল, অ্যাড. এম এম মোর্শেদ, অ্যাড. খায়রুল কবির পাঠান, ভাইস প্রেসিডেন্ট মাহে আলম চৌধুরী, উপদেষ্টা অধ্যক্ষ মাহবুবুর রহমান, অধ্যাপিকা কারিমা খাতুন, যুগ্ম মহাসচিব বিল্লাল হোসেন মিয়াজি উপস্থিত ছিলেন।


বিজ্ঞাপন


এর আগে বিকেলে গণফোরাম ও বাংলাদেশ পিপলস পার্টির সঙ্গে বৈঠক করেছে বিএনপি।  

বৈঠক শেষে গণফোরাম সভাপতি মোস্তফা মোহসীন মন্টু বলেন, ৭০ এর নির্বাচনে আমরা বিজয়ী হলেও জনগণের প্রতিনিধির হাতে ক্ষমতা পাকিস্তানিরা হস্তান্তর না করায় গণতন্ত্রের জন্য লড়াই করে বাংলাদেশ স্বাধীন করেছি। আজ যে সরকার গণতন্ত্র হরণ করছে তাদের হাত থেকে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করে জনগণের ভোটাধিকার ফিরিয়ে আনতে নিরপেক্ষ নির্দলীয় সরকারের দাবীতে অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের লক্ষ্যে আমাদের আন্দোলন দাবী আদায় না হওয়া পর্যন্ত চলবে। দেশকে ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা করতে দলমত নির্বিশেষে সকল পেশার মানুষকে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনে শরিক হওয়ার আহ্বান জানাই।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, আমরা ফ্যাসিস্ট সরকারের হাত থেকে রাষ্ট্রের জনগণকে বাঁচাতে ১০ দফার ভিত্তিতে ঐক্যবদ্ধ ভাবে গণতন্ত্র পনরুদ্ধারের আন্দোলন বেগবান করবো। নির্দলীয় সরকারের অধীনে অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণের ক্ষমতায়ন প্রতিষ্ঠা আমাদের লক্ষ্য।

উভয় বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য ডক্টর আব্দুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, গণফোরাম সাধারণ সম্পাদক সিনিয়র অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, নির্বাহী সভাপতি- অধ্যাপক ড. আবু সাইয়িদ, অ্যাডভোকেট এ.কে.এম. জগলুল হায়দার আফ্রিক, অ্যাডভোকেট মহিউদ্দিন আবদুল কাদের ও সভাপতি পরিষদ সদস্য অ্যাডভোকেট ফজলুল হক সরকার।

পিপলস পার্টির চেয়ারম্যান বাবুল সর্দার চাখারীর নেতৃত্বে, মহাসচিব আবদুল কাদের, কো-চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রণো ও প্রেসিডিয়াম সদস্য বিলকিস খন্দকার উপস্থিত ছিলেন।

এমই/এজেড

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর