মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ঢাকা

ভোটে অংশ নেওয়ার ঘোষণা ইসলামী ঐক্যজোটের

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২০ নভেম্বর ২০২৩, ০৭:১৯ পিএম

শেয়ার করুন:

ভোটে অংশ নেওয়ার ঘোষণা ইসলামী ঐক্যজোটের

বর্তমান সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাওয়া নিয়ে দ্বিধা-দ্বন্দ্বে ভুগতে থাকা ইসলামি দলগুলোর মধ্যে সবার আগে ভোটে যাওয়ার ঘোষণা দিল ইসলামী ঐক্যজোট। একসময়ের বিএনপির জোটসঙ্গী দলটি ভোটে যাওয়ার ঘোষণা দিলেও নির্বাচনের তফসিল পুনর্বিন্যাসের দাবি জানিয়েছে।

সোমবার (২০ নভেম্বর) বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে সংবাদ সম্মেলন করে নির্বাচনে যাওয়ার ঘোষণা দেয় দলটি।


বিজ্ঞাপন


দলে মহাসচিব মুফতি ফয়জুল্লাহ বলেন, ইসলামী ঐক্যজোট মুফতি আমিনীর চেতনা লালন করে সবসময় স্বাধীনভাবে দেশ ও ইসলামের স্বার্থে নিজস্ব সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে থাকে। কারও অন্ধ অনুসরণ ও লেজুড়বৃত্তিতে বিশ্বাসী নয় দলটি। কোনো সময় বিনা চ্যালেঞ্জে ফাঁকা ময়দানে গোল দেওয়ার সুযোগ কাউকেই দেয়নি ইসলামী ঐক্যজোট। আমরা সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে সংলাপে অংশ নিয়েছি। তারা প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন করার। তাই ইসলামী ঐক্যজোট জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

মুফতী ফয়জুল্লাহ বলেন, নির্বাচন কমিশন কর্তৃক ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী এই স্বল্পসময়ের ভেতর প্রার্থীদের নির্বাচনী যাবতীয় প্রস্তুতি গ্রহণ বেশ কঠিন হবে বলে ইসলামী ঐক্যজোট মনে করে। তাই ইসলামী ঐক্যজোট ঘোষিত তফসিল পুনবিন্যাস করার জন্য নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছে।

দলের মহাসচিব বলেন, বাংলাদেশ একটি স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র। ইসলামী ঐক্যজোট দেশের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী। দেশের স্বাধীন অস্তিত্বের ওপর আঘাত আসে এ জাতীয় কোনো অপতৎপরতা ইসলামী ঐক্যজোট বরদাশত করবে না। তাই সব ধরনের হস্তক্ষেপমুক্ত জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠান এদেশের সর্বস্তরের জনগণের প্রাণের দাবি। এর বাইরে গিয়ে কোনো নির্বাচন এদেশের জনগণ মেনে নেবে না।

সংবাদ সম্মেলনে দলের সভাপতি আব্দুল হাসনাত আমিনী ও নির্বাহী সভাপতি মাওলানা আব্দুর রশিদ মজুমদার, যুগ্ম মহাসচিব আলতাফ হোসাইন, মাওলানা আবুল কাশেম, সাংগঠনিক সচিব মাওলানা ফারুক আহমেদসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।


বিজ্ঞাপন


জেবি

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর