স্টাপ্লারের পিন দিয়ে চেইন, গিনেস বুকে সিলেটের রূপক

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫ এপ্রিল ২০২২, ১১:৪৮ এএম
স্টাপ্লারের পিন দিয়ে চেইন, গিনেস বুকে সিলেটের রূপক

করোনাকালে স্টাপ্লারের পিন দিয়ে চেইন তৈরি করে বিশ্ব রেকর্ড করলেন সিলেটের ছেলে শৈলেন্দ্র দাস রূপক। হাতের নখ, চুল, গোফ লম্বা করে বিশ্ব রেকর্ড করেছেন অনেকে। কিন্তু শুধু স্টাপ্লারের পিন দিয়ে ১৯১৭.৭৮ মিটার বা ৬২৯১ ফুট ৯২ ইঞ্চি লম্বা চেইন তৈরি করে গিনেস বুকে নাম লিখিয়েছেন তিনি। যা বর্তমানে বিশ্বের দীর্ঘতম স্টাপ্লার পিনের চেইন। গিনেস বুকের ভাষায় ‘দ্য লংগেস্ট চেইন অব সেফটিপিন’ বলে খ্যাত এই রেকর্ডটি গড়েছেন তিনি।

ইতোমধ্যে গিনেস ওয়ার্ল্ড বুকের ওয়েব সাইটে রূপকের তৈরিকৃত চেইনটিই বিশ্বের দীর্ঘতম হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। যা ২০২১ সালের ১৩ নভেম্বর গিনেস বুক কর্তৃপক্ষ তাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করে এবং একই তারিখে স্বীকৃতি সরূপ একটি সনদপত্র ইমেল মারফত রূপককে প্রদান করা হয়। আগামী সপ্তাহে সনদপত্রটির কপি রূপকের হাতে পৌঁছানের কথা রয়েছে।

জানা যায়, শৈলেন্দ্র কুমার দাশের ডাকনাম রূপক। তিনি নগরীর শিবগঞ্জ সেনপাড়া এলাকার পুষ্পায়ন ৮১/১ স্বদেশ নিবাসের স্বর্গীয় স্বদেশ রঞ্জন দাশ ও পূর্নিমা রানী দাশ দম্পতির ২য় ছেলে। বড় ভাই ডাক্তার সত্যেন্দ্র কুমার দাশ (দীপক)। যিনি পার্কভিউ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে কর্মরত আছেন।
হঠাৎ করে কীভাবে স্টাপ্লারের পিন দিয়ে চেইন তৈরির কথা মাথায় এলো জানতে চাইলে রূপক বলেন, করোনাকালের পরিস্থিতিতে যখন লকডাউন চলছিল, তখন কর্মব্যস্ততা নেই। সেই অবসর সময় কীভাবে কাটানো যায়, গুগল, ইউটিউবে অনেক কিছুই দেখি। দেখলাম বাংলাদেশের একজন এটা দিয়ে গিনেসে নাম লেখিয়েছে। আর সব কিছুর পর হাতের কাছেই এই স্টাপ্লার পিন থাকে।সেই থেকে শুরু।

রূপকের সাথে কথা বলে জানা যায়, কমবেশী প্রায় এক বছর সময় লেগেছে এটি তৈরীতে। গিনেস বুকের সকল নীতিমালা অবলম্বন করার পর সব ডকুমেন্টারি গিনেসে সাবমিট করি। সর্বশেষ, ২০২১ সালের ১৩ নভেম্বর আমার তৈরি এই চেইনের স্বীকৃতি পাই।

রূপক এমসি কলেজ থেকে অর্থনীতি নিয়ে অনার্স-মাস্টার্স করার পর লিডিং ইউনিভার্সিটি থেকে এমবিএ করেন। পরে সিলেট সরকারি ল’ কলেজ থেকে এলএলবি করেন। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি ১ ছেলে ও ১ মেয়ে সন্তানের বাবা। সোবহানীঘাটে ফার্নিচারের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে রূপকের।

এর আগে ২০২০ সালে ৫৭৫৩ ফুট ৫ ইঞ্চি লম্বা চেইন তৈরি করে গিনেস জয় করেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার ফান্দাউকের প্রয়াত জগদীশ দেবের ছোট ছেলে পার্থ চন্দ্র দেব।

এছাড়া ২০১৯ সালের ৩০ ডিসেম্বর ভারতের মিনহাজুল মন্ডল ৮০ হাজার স্ট্যাপলার পিন দিয়ে সবচেয়ে দীর্ঘতম চেইন তৈরির রেকর্ড গড়েছিলেন। তার চেইনটির দৈর্ঘ্য ছিল ৬৬১.৬৬ মিটার। রূপকের তৈরি চেইনটি পরিমাপ করেন সিভিল কোর্ট কমিশনার জর্জকোট সিলেটে কর্মরত পারভেজ আহমদ।

টিএ/ একেবি