রোববার, ২১ এপ্রিল, ২০২৪, ঢাকা

মেলায় ওয়াসিকা নুযহাতের নতুন দুই উপন্যাস

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০৯:০৪ পিএম

শেয়ার করুন:

মেলায় ওয়াসিকা নুযহাতের নতুন দুই উপন্যাস
ছবি : ঢাকা মেইল

হালের জনপ্রিয় লেখক ওয়াসিকা নুযহাতের নতুন দুটি বই পাওয়া যাচ্ছে এবারের একুশে বইমেলায়। এরমধ্যে একটি হলো পাঠকনন্দিত উপন্যাস বৃষ্টিমহল সিরিজের— ‘স্বপ্নের বৃষ্টিমহল’ অন্যটির নাম ‘সেদিন অক্টোবর।’ মেলার ৪৯২-৪৯৩ (বইবাজার) নম্বর স্টলে ‘স্বপ্নের বৃষ্টিমহল’ এবং ১০-১১ (আজব প্রকাশ) নম্বরে পাওয়া যাচ্ছে ‘সেদিন অক্টোবর’ বইটি। 

ওয়াসিকা নুযহাত লেখালেখি করছেন ছোটবেলা থেকে। স্কুল ম্যাগাজিনে প্রথম লেখা প্রকাশ পায়। প্রথম উপন্যাস প্রকাশিত হয় ২০১৬ সালের একুশে বইমেলায়। ‘অক্টোবর রেইন’, ‘বৃষ্টিমহল’ এবং ‘হৃদয়াক্ষী’ তার জনপ্রিয় উপন্যাস। 


বিজ্ঞাপন


দেশের তরুণ পাঠকদের মাঝে সাড়া জাগানো সিরিজ বৃষ্টিমহলের শেষ খণ্ড প্রকাশিত হয়েছে এবারের মেলায়। 

লেখক বলেন, ‘বৃষ্টিমহল’-এর শেষ খণ্ডের অপেক্ষায় দিন গুনছিলেন অসংখ্য পাঠক। ছয় বন্ধুর বন্ধুত্ব, পারিবারিক জীবন, প্রেম এবং অসম প্রেমকে কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে এই দীর্ঘ কলেবরের উপন্যাস। 

অনেক পাঠকের মতে বৃষ্টিমহল বাংলা সাহিত্যে একটি ব্যতিক্রমী সংযোজন। শুধুমাত্র বন্ধুত্বকে কেন্দ্র করে এত দীর্ঘ, চার খণ্ডের উপাখ্যান বাংলা সাহিত্যে বিরল। এর কাহিনী, বর্ণনা ভঙ্গি, জীবনদর্শন সমস্তই মৌলিক এবং অভিনব। প্রতিটি চরিত্রের সূক্ষ্মতর চিত্রণ এবং সম্পর্কের উথান-পতন পাঠককে এক অনন্য অভিজ্ঞতার সম্মুখীন করে তুলবে। 

২০১৮ সালের বইমেলায় প্রকাশিত হয়েছিল ‘বৃষ্টিমহল’ প্রথম খণ্ড। আশাতীত সাফল্যের প্রায় দুবছর পর ২০২০ সালের নভেম্বরে প্রকাশিত হয় দ্বিতীয় খণ্ড। ২০২১ সালে তৃতীয় খণ্ড। এবার এলো অন্তিম পর্ব। 
 
লেখক বলেন, ‘বৃষ্টিমহলের প্রথম খণ্ড যখন প্রকাশ পায়, তখনও জানতাম না এই উপন্যাসের চরিত্ররা আমার সঙ্গে আরও পাঁচবছর অবস্থান করবে, জানতাম না এই আখ্যানের সমাপ্তি টানা আমার জন্য এতটা চ্যালেঞ্জিং হবে।’


বিজ্ঞাপন


‘এই উপন্যাসের যেমন অসংখ্য অন্ধ ভক্ত আছে ঠিক তেমনি হেটার্সও আছে প্রচুর। বন্ধুদের খোলামেলা কথাবার্তা, হাসি, ঠাট্টা, কৌতুক অনেকেই সহজভাবে গ্রহণ করতে পারেনি। সমালোচনা করেছে। এরপর যখন একটি অসম প্রেমের উপাখ্যান গড়ে উঠল তখন  স্বাভাবিকভাবেই সমালোচনা আরও বেড়ে গেল। কেউ কেউ বললেন হুমায়ূন এবং শাওনের কাহিনী লেখা হচ্ছে। অথচ লেখার সময় হুমায়ূন শাওনের কথা আমার মাথায় একবারও আসেনি। অনেকে কটু মন্তব্য করলেন, চূড়ান্ত সমালোচনা করলেন, এমনকি লেখককে অভিশাপ দিতেও পিছপা হননি কেউ কেউ।’

লেখকের অন্যান্য উপন্যাস: খাঁচার ভিতর অচিন পাখি (২০১৬), মাঝে মাঝে তব (২০১৭) মন সায়রের পাড়ে (২০১৯), অক্টোবর রেইন (২০২০), বৃষ্টিমহল-২ (২০২০), বৃষ্টিমহল-৩ (২০২১), হৃদয়াক্ষী (২০২১) ও উড়ান মেঘের দেশে (২০২২)।

/এইচই

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর