রোববার, ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ঢাকা

‘প্রতিবন্ধিতাকে নয়, মেধা-কর্মদক্ষতাকে প্রাধান্য দিতে হবে’

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০৭:১৭ এএম

শেয়ার করুন:

‘প্রতিবন্ধিতাকে নয়, মেধা-কর্মদক্ষতাকে প্রাধান্য দিতে হবে’

সমাজে পিছিয়ে পড়াদের বিভিন্ন কর্মক্ষেত্রে চাকরি দেওয়া আহ্বান জানিয়েছে বিশ্লেষকরা। নিয়োগের ক্ষেত্রে ব্যক্তির প্রতিবন্ধিতাকে প্রাধান্য না দিয়ে তাদের মেধা, কর্মদক্ষতা ও বুদ্ধিমত্তাকে প্রাধান্য দেওয়া প্রয়োজন বলে মনে করছেন তারা।

বুধবার (০৮ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর মোহাম্মদপুর অঞ্চলের ব্র্যাক দক্ষতা উন্নয়ন কর্মসূচির আওতাভুক্ত প্রাইড প্রোজেক্টের আয়োজনে এক জনসচেতনতামূলক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের চাকুরী নিয়োগদাতাদের নিয়ে কর্মীদের জন্য শোভন কর্মপরিবেশ নিশ্চিতকরণ বিষয়ক এ আলোচনা সভায় বক্তারা এ আহ্বান জানান।


বিজ্ঞাপন


আলোচনার মূল বিষয়বস্তু ছিল ব্র্যাক দক্ষতা উন্নয়ন কর্মসূচির প্রাইড প্রোজেক্টের আওতায় ৫ হাজার ২০০ জন পিছিয়ে পড়া ও শিক্ষিত বেকার যুবকদের প্রশিক্ষিত করে তাদেরকে রিটেইল সেক্টরে চাকরি পেতে সহায়তা করা যার মধ্যে ৬০ ভাগ নারী, ৪০ ভাগ পুরুষ এবং ৭ ভাগ প্রতিবন্ধী ব্যক্তি। প্রতিষ্ঠানের কর্তৃপক্ষ হিসেবে নিজেদের প্রতিষ্ঠানের জন্য বিভিন্ন সময় বিভিন্ন পদে জনবল নিয়োগ করে থাকেন। নিয়োগকৃত কর্মীদের জন্য শোভন কর্মক্ষেত্র কিভাবে সৃষ্টি করা যায় এবং মালিক-শ্রমিকের মধ্যে সম্পর্ক কেমন হওয়া দরকার সে বিষয়েও আলোকপাত করা হয়।

বক্তারা বলেন, মালিকপক্ষ ও শ্রমিকদের মধ্যে ভয়-ভীতি বা শোষণমূলক সম্পর্ক নয় বরং দু’পক্ষের মধ্যে শ্রদ্ধাশীল সম্পর্ক গড়ে তোলা প্রয়োজন এবং প্রতিষ্ঠানের কর্মীদেরকে বাক্ স্বাধীনতা দেওয়া যাতে তারা সহজেই নিজেদের ভালো লাগা, খারাপ লাগা বা কোনো বিষয়ে কোনো জিজ্ঞাসা থাকলে মন খুলে প্রশ্ন করতে পারেন। এতে কর্মীগণ প্রতিষ্ঠানকে নিজের করে নিতে পারবেন, ভালোবাসবেন এবং ভালোবাসা ও দায়িত্ববোধ নিয়ে প্রতিষ্ঠানের জন্য নিষ্ঠার সাথে কাজ করবেন। কর্মীদের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করাটাও প্রতিষ্ঠানের আর একটি গুরু দায়িত্বও। 

আলোচনা সভায় প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের অন্তঃর্ভুক্তিকরণের উপরে গুরুত্ব দিয়ে বক্তারা বলেন, আমাদের সমাজে নারী ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তি যারা আছেন তাদেরকে প্রশিক্ষনের পর চাকুরী দেওয়ার ক্ষেত্রে এখনো অনেক চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হতে হয়। কারণ ছোটবেলা থেকেই আমরা এইটা জেনে এসেছি নারী ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তিরা কোন কাজে ভালো পারদর্শী হতে পারেন না। সে বদ্ধমূল ধারণা থেকেই নিয়োগের ক্ষেত্রে নারী ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদেরকে নিয়োগের জন্য খুব বেশি আগ্রহী হই না। নিয়োগের ক্ষেত্রে ব্যক্তির প্রতিবন্ধিতাকে প্রাধান্য না দিয়ে তাদের মেধা, কর্মদক্ষতা ও বুদ্ধিমত্তাকে প্রাধান্য দেওয়া প্রয়োজন।

এছাড়াও কর্মক্ষেত্রে কর্মীদের মধ্যে যেন অঞ্চল, ভাষা, ধর্ম, বর্ণ, সংস্কৃতি নিয়ে কোনো ধরণের বৈষম্য সৃষ্টি না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখা বাঞ্চনীয়। যাতে কর্মীদের মধ্যে দলগতভাবে কাজ করার মন-মানসিকতা তৈরি হতে পারে।


বিজ্ঞাপন


আলোচনা সভায় ব্র্যাক দক্ষতা উন্নয়ন কর্মসূচির শ্রদ্ধেয় অপারেশন ম্যানেজার দেবাংশু কুমার ঘোষসহ বিভিন্ন খুচরা ব্র্যান্ডের কর্মকর্তা ও প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।

টিএই/এএস

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর