দেশি চাল প্লাস্টিকের ব্যাগে ভরে বাজারে ছাড়লে জব্দের নির্দেশ 

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২৫ জানুয়ারি ২০২৩, ০৬:১০ পিএম
দেশি চাল প্লাস্টিকের ব্যাগে ভরে বাজারে ছাড়লে জব্দের নির্দেশ 

সরকার যখন কৃষিপণ্যে পাটের ব্যাগ ব্যবহারে জোর দিচ্ছে তখন আমদানির সুযোগে এক শ্রেণির ব্যবসায়ী দেশীয় চাল প্লাস্টিকের ব্যাগে ভরে বাজারজাত করছে বলে অভিযোগ করেছেন বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজীর। তাই দেশি চাল প্লাস্টিকের ব্যাগে ভরে বাজারজাত করলে তা জব্দ করতে জেলা প্রশাসকদের (ডিসি) নির্দেশ দিয়েছেন মন্ত্রী।

বুধবার (২৫ জানুয়ারি) রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে ডিসি সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনের তৃতীয় অধিবেশনে ডি‌সি‌দের এই নি‌র্দেশ দেন গোলাম দস্তগীর গাজী।

অধি‌বেশন শে‌ষে মন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, আমাদের দেশে একসময় কৃষিপণ্য থেকে শুরু করে সমস্ত মোড়কে পাটপণ্য ব্যবহার হতো। প্লাস্টিক আবিষ্কারের পর পাটপণ্য থেকে তারা প্লাস্টিকে চলে যাওয়ার কারণে পাটপণ্যের ব্যবহার কমে যায়। এখন আমরা চেষ্টা করছি সেই পাটপণ্য আবার ব্যবহার করতে।

তিনি বলেন, আমাদের সবাই পাট ব্যবহার বাদ দিয়ে চাল, ডাল কিংবা কৃষকের পণ্য প্লাস্টিক ব্যা‌গে বাজারজাত করার চেষ্টা করত। সামারি কোর্ট করে তাদের সেগুলো বন্ধ করার চেষ্টা করা হয়। এটা করার ফলে আমরা অনেক লাভবান হয়েছি।

তবে ইদানীং চাল আমদানির সুযোগ নিয়ে অনেকে প্লাস্টিকের বস্তায় চাল বাজারজাত করছে বলে অভিযোগ মন্ত্রীর।

তিনি বলেন, ইদানীং একটা লিকেজ আছে। লিকেজটা হলো যেহেতু চাল আমদানি হচ্ছে, বেশ কিছু চাল আমাদের আমদানি করতে হয়েছে। সেই আমদানির চালগুলো প্লাস্টিকের বস্তায় আসে। এটার মাঝে ফাঁক দিয়ে তারা দেশের চাল প্লাস্টিকের বস্তায় ঢুকিয়ে দিয়েছে। আমরা বলেছি শুধ‌ু বিদেশি চাল প্লাস্টিকের ব্যাগে থাকলে আপত্তি নেই, কিন্তু দেশীয় চাল যেখানে (প্লা‌স্টি‌কের ব্যা‌গে) আছে, সেগুলো সামারি কোর্ট করে জব্দ করবেন। তাহলে আমাদের পাটপণ্যের ব্যবহার নিশ্চিত হবে।

বিইউ/এইউ