মাদরাসাতেও স্কাউটিং চালুর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২৫ জানুয়ারি ২০২৩, ১২:৩৫ পিএম
মাদরাসাতেও স্কাউটিং চালুর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

স্কুলের পাশাপাশি মাদরাসাতেও স্কাউটিং চালু করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার (২৫ জানুয়ারি) সকালে গাজীপুরে ৩২তম এশিয়া প্যাসিফিক ও একাদশ জাতীয় স্কাউট জাম্বুরির সমাপনী অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে এই নির্দেশনা দেন তিনি।

প্রত্যেক শিক্ষার্থীই যেন স্কাউট প্রশিক্ষণ পায় সে বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, স্কুলের পাশাপাশি মাদারাসা শিক্ষার্থীদেরও স্কাউট আন্দোলনে অংশ নিতে হবে।

সরকারপ্রধান বলেন, বাংলাদেশকে এগিয়ে নিতে তরুণদের ভূমিকা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। কষ্টে অর্জিত স্বাধীনতা যেনো অক্ষুণ্ন থাকে, সে বিষয়ে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বানও জানান তিনি।

স্কাউটদের দেশপ্রেমে উদ্ধুদ্ধ হয়ে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, স্বাধীনতার সুফল প্রতিটি ঘরে পৌঁছে দিতে হবে।

স্কাউট আন্দোলনকে ত্বরান্বিত করতে সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগের কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, চট্টগ্রামের রোভার স্কাউটদের জন্য অ্যাডভেঞ্চার ট্রেনিং সেন্টার নির্মাণের লক্ষ্যে ১৮৮ একর জমি বরাদ্দ দিয়েছি। বিভিন্ন জেলা ও অঞ্চলে স্কাউট ভবন ও প্রশিক্ষণ নির্মাণের লক্ষ্যে জমি বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। ২১৭ জেলা ও উপজেলায় স্কাউট ভবন ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্র আমরা নির্মাণ করে দেবো। আমাদের লক্ষ্য দেশে স্কাউটিং সম্প্রসারণের মাধ্যমে শিশু-কিশোর যুবদের আত্মনির্ভরশীল ও সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তোলা।

২০৩০ সালের মধ্যে ৩০ লাখ স্কাউট গড়ে তোলার পরিকল্পনার কথা জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের লক্ষ্যই হচ্ছে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবো। সে লক্ষ্য নিয়েই আমরা কাজ করে যাচ্ছি। ২০৩০ সালের মধ্যে ৩০ লাখ স্কাউট গড়ে তোলা হবে। আমার লক্ষ্যটা থাকবে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যেন প্রতিটা শিক্ষার্থী এই স্কাউট প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত হয়। সেই ব্যবস্থাটা নিতে হবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও স্কাউটের সঙ্গে জড়িতদের। 

২০৪১ সাল নাগাদ সরকার দেশকে ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত করতে চায় জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, দেশ গড়তে সংঘাত, ক্ষমতা দখল ও আগুন সন্ত্রাসকে পেছনে ফেলে ২০০৯ সাল থেকে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে।

কালিয়াকৈর উপজেলার মৌচাকে আয়োজিত অনুষ্ঠানে স্কাউটদের সর্বোচ্চ পদক শাপলাকাব অ্যাওয়ার্ড দেন প্রধানমন্ত্রী।

মৌচাক জাতীয় স্কাউট প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ১৯ জানুয়ারি থেকে শুরু হয়েছে ৩২তম এশিয়া প্যাসিফিক রিজিওনাল ও একাদশ জাতীয় স্কাউট জাম্বুরি ২০২৩। সারাদেশের ৯১৬টি স্কাউট ইউনিটের প্রায় ৮ সহস্রাধিক স্কাউট, কর্মকর্তা, আইএসটি রোভার স্বেচ্ছাসেবক, ইউনিট লিডার এবং বিভিন্ন দেশ হতে আগত স্কাউটারসহ ১০ হাজার ৯৯৬ জন এই জাম্বুরিতে অংশগ্রহণ করেছে। স্কাউটরা শারীরিক, মানসিক, আধ্যাত্মিক উন্নতি সাধনে সক্ষম হবে বলে জানিয়েছেন জাম্বুরি আয়োজকরা।

বিইউ/এমআর