রোববার, ২৩ জুন, ২০২৪, ঢাকা

যে ৫ ধরনের পুরুষ অপছন্দ করেন নারীরা

লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭ জুন ২০২৩, ০৯:৪২ এএম

শেয়ার করুন:

যে ৫ ধরনের পুরুষ অপছন্দ করেন নারীরা

সঙ্গী কিংবা বন্ধু নির্বাচনে প্রতিটি মানুষেরই নিজস্ব পছন্দ-অপছন্দ আছে। সম্পর্কে জড়ানোর আগে যেগুলো খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে দেখা হয়। বিশেষ করে নারীরা পুরুষদের পছন্দ করার আগে অনেক ভাবনা-চিন্তা করেন। 

কিছু বিশেষ ধরনের পুরুষকে একবারেই অপছন্দ করেন নারীরা।  এমনকি তাদের সঙ্গে কথা বলতেও চান না। ফলে এই ধরনের পুরুষেরা গোটা জীবনই নারীদের ভালোবাসা থেকে বঞ্চিত থাকেন।
 
সম্পর্কের অলিগলি নিয়ে নিয়মিত চর্চারত বিশেষজ্ঞদের কথায়, নারীদের হৃদয়ে বিয়ে নিয়ে একাধিক স্বপ্ন বোনা থাকে। এমনকি তার পছন্দের পাত্রটি ঠিক কেমন হবে, এই সম্পর্কেও মনের ক্যানভাসে একটা স্পষ্ট ছবি আঁকা থাকে। সেই ছবির সদৃশ কোনও পুরুষের সন্ধান পেলেই নারী মন গলে যায়। এমনকী বিয়ের ফুল ফুটতেও দেরি হয় না।


বিজ্ঞাপন


love তবে এই দৃশ্যের বিপরীত চিত্রও কিন্তু রয়েছে। এক্ষেত্রে কিছু পুরুষ হলেন নারীদের চোখে বিষ। এনাদের দেখলেই নারী মনে ক্ষোভ ও হতাশার উদ্রেক হয়। মহিলারা এনাদের সঙ্গে বিয়ে তো দূর, সামান্য বাক্য বিনিময় পর্যন্ত করতে চান না। মুশকিল হল, অধিকাংশই এই বিষয়টা ধরতেই পারেন না যে কেমন স্বভাবের মানুষদের এক্কেবারে পছন্দ করেন না নারীরা। তাই বারবার একই ভুল করতে থাকেন। আর সেই কারণেই হাজার চেষ্টার পরেও তাদের আর বিয়ের পিঁড়িতে বসা হয়ে ওঠে না।

নেশাতুর পুরুষ

অনেকেই আছেন যারা নেশা করার বদভ্যাসকে ‘কুল’ হিসাবে দেখেন। এটাই নাকি নতুন ট্রেন্ড। যদিও বেশিরভাগ নারীরাই নেশা করার বিষয়টিকে খুবই খারাপ চোখে দেখেন। কারণ তাদের কাছে মদ্যপান একটা সর্বনাশা নেশা। নেশায় বুঁদ পুরুষ যে কোন পর্যায়ে নামতে পারেন, এটা তাদের কাছে পরিষ্কার। তাই এমন পুরুষের থেকে দূরেই থাকেন নারীরা। তাই আপনিও যদি এমন দোষের শিকার হন, তাহলে যেন তেন প্রকারেণ নেশার অভ্যাসকে গুড বাই বলতে হবে। এই কাজটুকু করতে পারলেই দেখবেন অনায়াসে মহিলাদের মন পেয়েছেন।

womenআমিই সেরা​


বিজ্ঞাপন


অনেক পুরুষই দম্ভের জালে আষ্টেপৃষ্টে জড়িয়ে থাকেন। তাদের সব ব্যাপারেই ‘আমিত্ব’। নিজেকে ছাড়া তাঁরা আর কিছুই ভাবতে পারেন না। এমনকি একান্ত আপনজনদের ছোট করতেও এরা দ্বিধাবোধ করেন না। এমন স্বভাবের পুরুষদের অত্যন্ত ঘৃণা করেন নারীরা। তাই আপনার মধ্যেও এই বদভ্যাস থাকলে তড়িঘড়ি নিজেকে বদলে ফেলুন। বরং চেষ্টা করুন নিজের পাশাপাশি অন্যদের কৃতিত্বও শিকার করার। এর মাধ্যমেই আপনার প্রতিচ্ছবি কিছুটা হলেও পরিষ্কার হবে।

নারীদের ছোট চোখে দেখার অভ্যাস​

২০২৩ সালে বাস করছি আমরা। আধুনিকতার একদম শিখরে পৌঁছে গিয়েছে সভ্যতা। তবে এই যুগে দাঁড়িয়েও কিছু ব্যক্তি সেই পুরনো ধ্যান-ধারণাকে সঙ্গী করে বেঁচে রয়েছেন। তাদের কাছে, নারীর কোনও গুরুত্বই নেই। বরং নারীর উত্তরণকে ছোট করার কাজেই এনারা ব্যস্ত থাকেন।

আপনিও কি এমন ভুল করেন নাকি? উত্তর হ্যাঁ হলে এখনই নিজেকে বদলে ফেলুন। বরং মহিলাদের সবসময় সম্মান দিন। তাঁদের এগিয়ে যেতে উদ্বুদ্ধ করুন। তাহলেই মহিলাদের মনের মানুষ হয়ে উঠতে পারবেন।

loveএকাধিক নারীসঙ্গ

কিছু পুরুষের স্বভাব বেজায় খারাপ। তারা একাধিক নারীর সঙ্গে একই সময়ে সম্পর্কে থাকতে পছন্দ করেন। যতদিন পর্যন্ত এই তথ্য নারীদের কাছে অজানা থাকে, ততদিন এদের খেলা চলতে থাকে। তবে একবার এই বিষয়টি জানাজানি হয়ে গেলে আর পালানোর কূল পাওয়া যায় না। মান-সম্মান সব পানিতে ধুয়ে যায়। নারীরা এদের থেকে দূরে চলে যান। আসলে কোনও নারীই একজন বিশ্বাসঘাতকের সঙ্গে থাকতে চান না।

অতিরিক্ত গাম্ভীর্য​

কিছু পুরুষ অতিরিক্ত গম্ভীর স্বভাবের হয়ে থাকেন। তারা সবসময় মুখ গোমড়া করে বসে থাকেন। আর তাদের এমনতর আচরণ দেখে দূরে থাকতে শুরু করেন নারীরা। তাই গম্ভীর স্বভাব ছেড়ে এখন থেকে একটু হাসিখুশি থাকার, সকলের সঙ্গে মেশার চেষ্টা করুন। এর মাধ্যমেই কোনও এক রাজকন্যার মনে হয়তো জায়গা করে নিতে পারবেন। ফুটবে বিয়ের ফুল।

এজেড

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর