মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০২৪, ঢাকা

জমজমাট আয়োজনে শেষ হলো ‘শেফস বিয়ন্ড হোম সিজন থ্রি’

লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৮ মে ২০২৩, ০২:২৭ পিএম

শেয়ার করুন:

জমজমাট আয়োজনে শেষ হলো ‘শেফস বিয়ন্ড হোম সিজন থ্রি’

দুই দিনব্যপী জমজমাট আয়োজনের মাধ্যমে শেষ হলো ফ্রেশ গুঁড়া মশলা নিবেদিত শেফস বিয়ন্ড হোম সিজন থ্রি, ২০২৩। ফেসবুকভিত্তিক নারী কমিউনিটি ‘পপ অফ কালার লিমিটেড’ তৃতীয়বারের মতো এই আয়োজনটি করেছে। 

২০১৯ সাল থেকে পপ অফ কালার একটি কোম্পানি হিসেবে সামাজিক দায়িত্ববোধ থেকে শেফস বিয়ন্ড হোম নামক উদ্যোগটি শুরু করেছে। রন্ধনশিল্প নিয়ে কাজ করা নারীদের সফলতার পথে এগিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে সামাজিক দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে পপ অফ কালার এই উদ্যোগ সফল করার নিরন্তর চেষ্টা করে যাচ্ছে।  


বিজ্ঞাপন


food

এই আয়োজনে অংশগ্রহণ করেছিলেন ২০ জন রন্ধন শিল্পী। তারা তাদের রান্না করা সেরা খাবারগুলো উন্মুক্ত করেছিলেন দর্শনার্থীদের জন্য। সব শ্রেণির মানুষ এই আয়োজনে অতিথি হয়ে এসব খাবার চেখে দেখার সুযোগ পেয়েছিলেন। আয়োজনে অংশ নেওয়া প্রতিষ্ঠানগুলো ছিল- তৃপ্তি ক্যাটারিং, দি কুইজিনিয়ার, গ্লাসে, বেক এন টেক, সুইট স্মেল ফ্রম তানিয়া’স কিচেন, পেয়ারি’স কিচেন, বেক এন্ড টেক, মায়ের হাতের আচার, রসুই ঘরের গল্প, ডাইনারস, নিম্মি’স কেকারি বাইট, বেকস এন্ড ট্রাটস, শী বেকস, মাম্মি’স ম্যাজিক হ্যান্ড, মাম্মা’স কিচেন, ফ্লেভারস বাই ফাবিহা, মৃদুলস কিচেন, ডিলিসিয়াস বাই ইভা, গরমেট ব্লিস বাই শাহরীন এবং গল্প বাড়ি। প্রত্যেক স্টলে ছিল ১০০ টাকা পর্যন্ত ডিস্কাউন্ট। 

গত ২৬ মে রাজধানীর ধানমন্ডির মাইডাস সেন্টারে দিনব্যাপী নানান আয়োজনে এই খাবারের উৎসব শুরু হয়েছিল। ২৭ মে, শনিবার পুরস্কার বিতরণীর মাধ্যমে সমাপ্ত হয়েছিল এই বৃহৎ উৎসব। আয়োজন চলেছিল সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা। অনুষ্ঠানের টাইটেল স্পন্সর হিসেবে ছিলেন ফ্রেশ গুঁড়া মশলা। বেভারেজ পার্টনার হিসেবে ছিলেন সুপার ফ্রেশ ড্রিংকিং ওয়াটার। হাইজিন পার্টনার হিসেবে ছিলেন ফ্রেশ টিস্যু। ইনভাইটেশন পার্টনার হিসেবে ছিলেন কারুজ বাংলাদেশ, তৃপ্তি ক্যাটারিং। নিউট্রেশন পার্টনার হিসেবে ছিলেন শক্তি প্লাস।  

food


বিজ্ঞাপন


এছাড়াও মিডিয়া পার্টনার হিসেবে ছিল চ্যানেল আই এবং হাল ফ্যাশন, স্কিল ডেভেলপমেন্ট পার্টনার হিসেবে ছিল ঐক্য এসএন-ই ডিজিটাল ইন্সটিটিউট। রেডিও পার্টনার হিসেবে ছিল রেডিও টুডে, প্রোগ্রাম পার্টনার হিসেবে ছিল গতি, ডিজিটাল ব্রডকাস্ট হিসেবে ছিল উদ্যোক্তা বার্তা। স্ট্র্যাটিজিক পার্টনার হিসেবে ছিল মুনির হাসান প্রথম আলো, লজিস্টিক পার্টনার হিসেবে ছিল ই-কুরিয়ার, ফটোগ্রাফি পার্টনার হিসেবে ছিল দি ওয়েডিং টেলস, ম্যাগাজিন পার্টনার হিসেবে ছিল ক্যানভাস।  

খাবারভিত্তিক হলেও এই আয়োজন একটি উৎসবমুখর পরিবেশ সৃষ্টি করেছে বলে মনে করছেন আয়োজকরা। এই আয়োজনে গান গেয়েছেন দূরবীন ব্যান্ডের ভোকালিস্ট শহীদ, সংগীত শিল্পী খৈয়াম শানু সন্ধী এবং কাজী শুভ। আরও ছিল লাইভ কুকিং, মেহেদি কর্নার, কুইজ প্রতিযোগিতা, র‍্যাফেল ড্রসহ নানান আয়োজন। 

অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী সব উদ্যোক্তাদের হাতে সনদ পত্র ও পুরস্কার তুলে দিয়েছিলেন এডিশনাল ডেপুটি পুলিশ কমিশনার কাউন্টার টেররিসম এবং ট্র‍্যান্সনেশনাল ক্রাইম ইউনিট সৈয়দ নাসিরুল্লাহ অভি, এডিশনাল ডেপুটি পুলিশ কমিশনার লিগাল এফেয়ারস ঢাকা মেট্রপলিটন মাহমুদা আফরোজ লাকি, ইয়াহিয়া আমিন- চেয়ারম্যান লাইফ স্প্রিং। উপস্থাপনায় ছিলেন চ্যানেল আইয়ের হেড অফ এসএমই প্রোগ্রাম ডিভিশন অপু মাহফুজ। 

food

মোট পাচঁটি ক্যাটাগরিতে সাতজন বিজয়ীর মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। দি ইমপ্যাক্ট মেকার ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পেয়েছে তৃপ্তি ক্যাটারিং। দি ইঞ্জিনিয়াস ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পেয়েছে নিম্মিস কেকারি বাইট। দি এস্থেট ক্যাটাগরিতে যৌথভাবে পুরস্কার পেয়েছে গ্লাসে এবং শি বেকস, দি রাইসিং স্টারে যৌথভাবে পেয়েছে মায়ের হায়ের আচার এবং মাম্মাস কিচেন। এছাড়াও দি কনকিউয়ার পুরস্কার জিতে নিয়েছে বেক এন টেক।

উল্লেখ্য, পপ অফ কালার লিমিটেড একটি নারী ভিত্তিক সংগঠন। ২০১৪ সাল থেকে সংগঠনটি নারীদের আর্থ সামাজিক উন্নয়ন এবং অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী করে গড়ে তোলার লক্ষ্যে নিবিড়ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধি, নারীর ক্ষমতায়ন, নারীর জীবনধারা উন্নয়ন, নারী অধিকার সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি করাই হলো পপ অফ কালারের মূল লক্ষ্য। এই সকল উদ্দেশ্য সফল করার লক্ষ্যে সংগঠনটি বিভিন্ন সময়ে সারাবছর ব্যাপী বিভিন্ন ধরনের উদ্যোগ নিয়ে থাকে। শেফস বিয়ন্ড হোম পপ অফ কালারের এই উদ্যোগগুলোর মধ্যে অন্যতম।

এনএম

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর