শিক্ষক: মানুষ গড়ার কাণ্ডারি

প্রকাশিত: ০৫ অক্টোবর ২০২২, ০৮:৩৩ এএম
শিক্ষক: মানুষ গড়ার কাণ্ডারি

শিক্ষার কোনো শেষ নেই। দোলনা থেকে কবর অব্দি মানুষ শিক্ষাগ্রহণ করে থাকেন। আর যে মানুষটি শিক্ষাদান করে থাকেন তিনি হলেন শিক্ষক। আজ ৫ অক্টোবর আন্তর্জাতিক শিক্ষক দিবস। সারাবিশ্বের সব শিক্ষকদের সম্মানে গৃহীত দিবস এটি।

একজন ব্যক্তির জীবনে প্রথম শিক্ষক হয়ে আসেন তার মা ও পরিবার। শিক্ষার হাতেখড়ি শুরু হয় অন্দরমহল থেকেই। তাই হয়তো দিগ্বিজয়ী মহাবীর নেপোলিয়ন বলেছিলেন, ‘তুমি আমাকে শিক্ষিত মা দাও, আমি তোমাকে শিক্ষিত জাতি দেব।’

teacher

পরিবারের পরই গৃহের বাইরে শিশু শিক্ষাগ্রহণ করতে বিদ্যালয়ে যায়। মানুষের মতো মানুষ হওয়ার ভিত যেখানে তৈরি হয়। শিক্ষকদের অক্লান্ত পরিশ্রম, শিক্ষা, আদবকেতায় একটি শিশু ধীরে ধীরে মানুষ হতে শুরু করে। এজন্য শিক্ষকদের মানুষ গড়ার কাণ্ডারি বা কারিগর বলা হয়। 

শিক্ষক দিবসের পটভূমি সম্পর্কে জানা যায়, বিশ্বব্যাপী শিক্ষক ইউনিয়নসমূহের ফেডারেশন এডুকেশন ইন্টারন্যাশনাল (ইআই) ও এর ৪০১টি সংগঠন এ দিবসের ব্যাপক স্বীকৃতি অর্জনে ভূমিকা রেখেছে। সংগঠনটি শিক্ষা পেশার অবদানকে তুলে ধরে প্রতিবছর জনসচেতনতা মূলক প্রচার চালায়। তাদের মতে, বিশ্ব শিক্ষক দিবসকে সব দেশে স্বীকৃতি এবং উদযাপিত হওয়া উচিত।

teacher

১৯৬৬ সালের ৫ অক্টোবর শিক্ষকদের অধিকার, করণীয় ও মর্যাদা সুরক্ষায় ইউনেস্কোর উদ্যোগে প্যারিসে একটি সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এতে ১৪৫টি সুপারিশ গৃহীত হয়। এসব সুপারিশের মধ্যে শিক্ষকদের মৌলিক ও অব্যাহত প্রশিক্ষণ, নিয়োগ ও পদোন্নতি, চাকরির নিরাপত্তা, শৃঙ্খলা বিধানের প্রক্রিয়া, পেশাগত স্বাধীনতা, কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ ও মূল্যায়ন, দায়িত্ব ও অধিকার, শিক্ষা সংক্রান্ত নীতিনির্ধারণী প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ, কার্যকর শিক্ষাদান ও শিখনের পরিবেশ এবং সামাজিক নিরাপত্তা অন্যতম। 

পরবর্তীতে আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা (আইএলও) উপর্যুক্ত সুপারিশসমূহ অনুমোদন করে। ১৯৯৩ সালে প্যারিসে অনুষ্ঠিত ইউনেস্কোর ২৬তম অনুষ্ঠানে ৫ অক্টোবর দিনটিকে বিশ্ব শিক্ষক দিবস হিসেবে পালনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

teacher

দিবসটি সর্বপ্রথম পালন করা হয় ১৯৯৪ সালে। তবে ১৯৯৫ সাল থেকে বিভিন্ন দেশে শিক্ষকরা মোটা দাগে ‘বিশ্ব শিক্ষক দিবস’ উদযাপন শুরু করেন। 

আমাদের দেশেও দিবসটি পালিত হয়। জীবনে সফল হওয়ার পেছনে স্বার্থের ঊর্ধ্বে গিয়ে যে শিক্ষকগণ শিক্ষার আলো দেখিয়েছেন, তাদের শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন শিষ্য বা শিক্ষার্থীরা। প্রিয় শিক্ষককে নিয়ে স্মৃতিচারণ করার উপযুক্ত দিন যেন এটি। 

teacher

প্রতিটি মানুষ জীবনে কোনো না কোনো শিক্ষকের সংস্পর্শে ছিলেন, আবার কারো না কারোর শিক্ষক হয়েছেন। কেবল ব্যক্তি যে শিক্ষাগ্রহণ করা যায় তা হয়। অনেক সময় প্রকৃতি, বই, নৈতিকতা, সামাজিকতা, পরিস্থিতিও মানুষকে শিক্ষা দেয়। সঠিক ও সুশিক্ষায় শিক্ষিত হওয়াই একজন মানুষের অর্জন। 

এনএম