ছেঁড়া জুতার নাম ‘স্টাইল’, দাম দেড় লাখ

লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৩ মে ২০২২, ০১:৪৯ পিএম
ছেঁড়া জুতার নাম ‘স্টাইল’, দাম দেড় লাখ

জুতার রঙ একদম বিবর্ণ হয়ে গেছে। মাটির দাগের মতো দাগ লেগে আছে পুরোটা জুড়ে। ছিঁড়ে বেরিয়ে আসছে শুকতলা। যেকেউ দেখলেই একে বাতিল জুতাই বলবেন। অথচ কোম্পানি বলছে এটিই নাকি ব্র্যান্ড নিউ স্টাইল। তাই ছেঁড়াফাটা জুতার দামও ধরা হয়েছে দেড় লাখের ওপরে। সম্প্রতি এমন উদ্ভট ঘটনাই ঘটেছে। 

ফ্যাশন সচেতন ব্যক্তিদের কাছে অন্যতম পছন্দের নাম ব্যালেনসিয়াগা। আমেরিকার জনপ্রিয় এই প্রতিষ্ঠানটিই এমন জুতা বাজারে এনেছে। উদ্ভট এই জুতার নাম দেওয়া হয়েছে ‘ফুললি ডেসট্রয়েড স্নিকার্স’বা পুরোপুরি ধ্বংস হয়ে যাওয়া জুতা। এই ধরনের জুতা মাত্র ১০০ জোড়া তৈরি করেছে প্রতিষ্ঠানটি। দাম শুরু হয়েছে ৪২ হাজার টাকা থেকে। সর্বোচ্চ দাম ১ লক্ষ ৬২ হাজার টাকা। যে জুতা যত বেশি ছেঁড়া, তার দাম তত বেশি। 

shoeহাই টপ আর ব্যাকলেস মিডল- দুই স্টাইলের জুতা পাওয়া যাচ্ছে। হাই টপের দাম ৪২ হাজার টাকা। কিন্তু ব্যাকলেস মিডলের দাম আকাশছোঁয়া। দেখতে অনেকটা পাম্পের মতো এই জুতাজোড়ার সামনের অংশ ঢাকা, পেছনের দিক খোলা। রোমান সাম্রাজ্যের জজ, ম্যাজিস্ট্রেটরা এমন জুতা পরতেন। পঞ্চাশের দশকে মেরিলিন মনরো পালকের ব্যাকলেস মিউলকে খুব বিখ্যাত করে তোলেন। কিন্তু সেই জুতা দেখতে আকর্ষণীয়। আর ব্যালেনসিয়াগার ছেঁড়াফাটা মিডলের দাম ধরা হয়েছে আকাশছোঁয়া। প্রায় ১ লাখ ৬২ হাজার টাকা দাম এর। 

shoeএমন উদ্ভট জুতা কেন? ব্যালেনসিয়াগা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এই জুতার মাধ্যমে তারা একটি বিশেষ বার্তা প্রচার করতে চাচ্ছে। আর তা হলো ‘স্নিকার্স জাতীয় জুতা সারাজীবন পরার জন্যই তৈরি’। এই বার্তাটিই গ্রাহকদের কাছে পৌঁছে দিতে চান তারা। 

সাদা, কালো বা লাল তিন রঙে তৈরি করা হয়েছে এই জুতাগুলো। মূলত ক্যানভাস কাপড় দিয়ে তৈরি জুতাগুলোর শুকতলাতে রবার ব্যবহার করা হয়েছে। উপাদানে বৈচিত্র্য রাখা হয়েছে। ময়লার আবরণ ফুটিয়ে তুলতে ব্যবহার করা হয়েছে বিশেষ রঙ। 

এনএম