বি পজেটিভ কি আসলেই গরুর রক্ত?

লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৭ এপ্রিল ২০২২, ০৮:৪৪ এএম
বি পজেটিভ কি আসলেই গরুর রক্ত?

মানুষ ভেদে রক্তের গ্রুপ ভিন্ন ভিন্ন হয়। কারো রক্তের গ্রুপ বি পজেটিভ (B+ve) শুনলে আমরা প্রায়ই হেসে ফেলি। বলি, তোমার শরীরে তো গরুর রক্ত। এ কথা কি আসলেই ঠিক? মানুষের দেহে কি কোনো প্রাণীর রক্ত থাকতে পারে? আর থাকলে বি পজেটিভ রক্তের প্রয়োজন হলে আমরা গরুর রক্ত নিই না কেন? 

পৃথিবীতে যত মেরুদণ্ডী প্রাণী আছে তাদের সবার রক্ত সাদৃশ্যপূর্ণ। তবে পার্থক্য রয়েছে এর রাসায়নিক গঠনে। অর্থাৎ, কোনো প্রাণীর রক্তই অন্য কোনো প্রাণীর রক্তের অনুরূপ হয় না। 

রক্তের গ্রুপ কী? 

রক্তের গ্রুপ হলো রক্তে লোহিত রক্ত কণিকায় অ্যান্টিজেনের উপস্থিতি বা অনুপস্থিতি। এটি নির্দিষ্ট করা থাকে বংশগতভাবে। অ্যান্টিজেনের উপস্থিতির ওপর নির্ভর করে রক্তের বিভিন্ন ধরনের গ্রুপিং সিস্টেম করা হয়েছে।

bloodমানুষের রক্তের গ্রুপ 

মানুষের রক্তের ক্ষেত্রে পৃথিবী জুড়ে দুটি সিস্টেম বা নিয়ম প্রচলিত রয়েছে। একটি এবিও (ABO) আর একটি আরএইচ (Rh) ফ্যাক্টর। এই দুই সিস্টেম অনুযায়ী রক্তের গ্রুপ হয় চার ধরনের। এ, বি, ও, এবি। প্রতিটি ধরনের আবার পজেটিভ (+) ও নেগেটিভ (-) অ্যান্টিজেন রয়েছে। অর্থাৎ, দুই ধরনের অ্যান্টিজেন অনুযায়ী মানুষের দেহে মোট আট গ্রুপের রক্তের উপস্থিতি পাওয়া যায়। 

গরুর রক্তের গ্রুপ 

গরুর দেহে প্রধান রক্তের গ্রুপ ১১টি। এগুলো হলো- এ, বি, সি, এফ, জে, এল, এম, আর, এস, টি, জেড। এর মধ্যে কেবল বি গ্রুপটির অ্যান্টিজেন রয়েছে ৬০ এর বেশি। আরও কিছু অপ্রধান রক্তের গ্রুপ রয়েছে যেগুলো সচারাচর পাওয়া যায় না। অর্থাৎ, গরুর রক্তের এত প্রকারভেদ যে মানুষের দেহ তো পরের কথা, এক গরুর রক্ত অন্য গরুর দেহ সঞ্চালন করাই কঠিন ব্যাপার।

bloodবি পজেটিভ কে কেন গরুর রক্ত বলা হয়? 

এই কথাটি বলা হয় এই রক্তের সহজলভ্যতার কারণে। এশিয়া মহাদেশে অন্য যেকোনো গ্রুপের চেয়ে বি পজেটিভ গ্রুপধারী মানুষের সংখ্যা বেশি। ৩০ শতাংশের বেশি মানুষ এই গ্রুপের রক্ত বহন করেন। এই সহজলভ্যতার বিষয়টি বুঝাতেই বি পজেটিভকে গরুর রক্তের সঙ্গে তুলনা করা হয়। অনেকে ভাবেন বি পজেটিভ মানুষের রক্ত আর গরুর রক্ত বোধহয় একই।  এই ধারণা একদমই ভুল। 

বর্তমানে বাংলাদেশে ৩৩.১২ শতাংশ মানুষের দেহে রয়েছে বি পজেটিভ রক্ত। ২৯.২১ শতাংশ মানুষ ও পজেটিভ রক্ত বহন করেন। ২৬.৩ শতাংশ মানুষের দেহে রয়েছে এ পজেটিভ রক্ত। এছাড়া অন্যান্য রক্তের গ্রুপের অধিকারীর সংখ্যা- ৯.৫৯ এবি পজেটিভ, ০.৫৩ শতাংশ ও নেগেটিভ, ০.৪৮ শতাংশ এ নেগেটিভ, ০.১৭ শতাংশ এবি নেগেটিভ, ০.৬ শতাংশ বি নেগেটিভ। 

তাই বলে কিন্তু ইউরোপ বা আমেরিকায় বি পজেটিভকে গরুর রক্ত বলা যাবে না। এই যেমন, আমেরিকায় মাত্র ৮.৫ শতাংশ মানুষের দেহে এই গ্রুপের রক্ত রয়েছে। দেশটিতে সবচেয়ে সহজলভ্য রক্তের গ্রুপ এ পজেটিভ। আমেরিকার প্রায় ৩৭.৪ শতাংশ ব্যক্তি এ পজেটিভ গ্রুপের রক্ত বহন করে। সুতরাং আমেরিকায় এ পজেটিভ রক্তই তথাকথিত গরুর রক্ত। 

এনএম