বিচারকের সঙ্গে দুর্ব্যবহার: নীলফামারীর বার সভাপতিসহ তিনজনকে তলব

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২৫ জানুয়ারি ২০২৩, ১১:৩০ এএম
বিচারকের সঙ্গে দুর্ব্যবহার: নীলফামারীর বার সভাপতিসহ তিনজনকে তলব

বিচারকের সঙ্গে অপেশাদারিত্ব, আক্রমণাত্মক ও দুর্ব্যবহারের অভিযোগে নীলফামারী জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি মো. মোমতাজুল হকসহ তিন আইজনীবীকে তলব করেছেন হাইকোর্ট।

তলব করা অন্য দুই আইনজীবী হলেন মো. আজহারুল ইসলাম ও ফেরদৌস আলম।

বুধবার (২৫ জানুয়ারি) বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

সম্প্রতি নীলফামারীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক গোলাম সারোয়ারের অভিযোগের প্রেক্ষিতে এই আদেশ দেন আদালত। আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি কিন আইনজীবীকে সশরীরে আদালতে হাজির হতে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে।

এর আগে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক (জেলা ও দায়রা জজ) মোহাম্মদ ফারুককে অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ ও অশালীন আচরণের ঘটনায় ব্রাক্ষণবাড়িয়া আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট তানভীর আহমেদ ভূঞা, সম্পাদক (প্রশাসন) অ্যাডভোকেট মো. আক্কাস আলী ও অ্যাডভোকেট জুবায়ের ইসলামকে তলব করেছিল হাইকোর্ট।

গত ১৭ জানুয়ারি আদালতে হাজির হয়ে তাদের ঘটনার ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছিল। একইসঙ্গে তাদের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার দায়ে কেন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন আদালত।

এছাড়া ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা জজ বেগম শারমিন নিগারের বিরুদ্ধে অশ্লীল ও কুরুচিপূর্ণ স্লোগান দেওয়ার ব্যাখ্যা দিতে জেলা আইনজীবী সমিতির সম্পাদক মফিজুর রহমান বাবুলসহ ২১ আইনজীবী হাইকোর্টে তলব করা হয়েছিল।

গত ১০ জানুয়ারি অভিযোগের বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে ২১ আইনজীবীকে তলব করেছিল হাইকোর্ট।

এআইএম/এমআর