শনিবার, ২৫ মে, ২০২৪, ঢাকা

‘ভাই’ আলমের প্রার্থিতা বাতিল চান তাজউদ্দীন কন্যা রিমি

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২৬ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৯:০০ পিএম

শেয়ার করুন:

‘ভাই’ আলমের প্রার্থিতা বাতিল চান তাজউদ্দীন কন্যা রিমি
সিমিন হোসেন রিমি ও আলম আহমেদ। ছবি: সংগৃহীত

গাজীপুর-৪ আসনে (কাপাসিয়া) স্বতন্ত্র প্রার্থী আলম আহমেদের মনোনয়নপত্র গ্রহণ করে তাঁকে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়ার আদেশ প্রত্যাহার চেয়ে আপিল বিভাগে আবেদন করেছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সিমিন হোসেন রিমি। আগামীকাল বুধবার (২৭ ডিসেম্বর) এই আবেদনের ওপর শুনানির জন্য দিন নির্ধারণ করেছেন আপিল বিভাগের চেম্বার জজ আদালত।

মঙ্গলবার (২৬ ডিসেম্বর) এ সংক্রান্ত বিষয়ে শুনানি নিয়ে আপিল বিভাগের বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম এই আদেশ দেন।


বিজ্ঞাপন


আদালতে আবেদনকারীর পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী ব্যারিস্টার তানিয়া আমীর। আলম আহমেদের পক্ষে ছিলেন আইনজবী মনিরুজ্জামান আসাদ।

আরও পড়ুন

গাজীপুরের ৫ আসনে আলোচনায় নৌকা, স্বতন্ত্র প্রার্থী 


বিজ্ঞাপন


প্রসঙ্গত, বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমদের কন্যা সিমিন হোসেন রিমি। আর আলম হোসেন তাজউদ্দীন আহমেদের ভাগ্নে। সে হিসেবে সিমিন হোসেন রিমির ফুপাতো ভাই। শিল্পপতি ও কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের উপদেষ্টা আলম আহমেদ এবার এই আসনে নৌকার মনোনয়ন চেয়েছিলেন। তবে মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র নির্বাচন করছেন। এই আসনে ভাই-বোনের মধ্যে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

আদালত থেকে বেরিয়ে আদেশের বিষয়টি জানান আলম আহমেদের আইনজবী মনিরুজ্জামান আসাদ। তিনি বলেন, এই মামলায় পক্ষভুক্ত হয়েছেন সাবেক সংসদ সদস্য ও বর্তমানে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী সিমিন হোসেন। সাথে সাথে হাইকোর্টের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগের চেম্বার জজ আদালতের দেওয়া আদেশ স্থগিত চেয়েছেন তিনি। বিষয়টি বুধবার শুনানি হবে।

ঋণখেলাপির অভিযোগে আলম আহমেদের মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেন গাজীপুরের রিটার্নিং কর্মকর্তা। এর বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে (ইসি) তিনি আপিল করেন, যা গত ১৩ ডিসেম্বর খারিজ হয়। পরে প্রার্থিতা ফিরে পেতে হাইকোর্টে রিট করেন আলম আহমেদ। হাইকোর্ট রিটটি সরাসরি খারিজ করে দেন। এই আদেশের বিরুদ্ধেও প্রার্থিতা ফিরে পেতে আপিল বিভাগে আবেদন করেন আলম আহমেদ, যা গত ১৯ ডিসেম্বর চেম্বার জজ আদালতে শুনানির জন্য ওঠে। সেদিন শুনানি নিয়ে আদালত স্বতন্ত্র প্রার্থী আলম আহমেদের মনোনয়নপত্র গ্রহণ করে তাঁকে প্রতীক বরাদ্দ দিতে নির্বাচন কমিশনকে (ইসি) নির্দেশ দেন। ফলে তাঁর নির্বাচনে অংশ নেওয়ার পথ খোলে।

আরও পড়ুন

নৌকা নিয়ে লড়বেন ২৪ নারী 

এরপর ১৯ ডিসেম্বরের আদেশ প্রত্যাহার চেয়ে আপিল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় আবেদন করেন সিমিন হোসেন।

এ বিষয়ে আইনজীবী ইয়াদনান রফিক বলেন, স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার চেয়ে সিমিন হোসেনের করা আবেদনের ওপর আগামীকাল বুধবার শুনানির জন্য দিন রেখেছেন আদালত।

এআইএম/জেবি

ঢাকা মেইলের খবর পেতে গুগল নিউজ চ্যানেল ফলো করুন

সর্বশেষ
জনপ্রিয়

সব খবর