প্রাথমিকে নিয়োগ: শেষ ধাপের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ৫৭,৩৬৮

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৬ জুন ২০২২, ০৬:৪১ পিএম
প্রাথমিকে নিয়োগ: শেষ ধাপের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ৫৭,৩৬৮

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের রাজস্ব খাতভুক্ত ‘সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা-২০২০’ এর তৃতীয় ও শেষ ধাপের লিখিত পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। ফলাফলে শর্তসাপেক্ষে ৩২ জেলায় মোট ৫৭ হাজার ৩৬৮ জনকে মৌখিক পরীক্ষার জন্য বাছাই করা হয়েছে।

এরই মধ্যে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের মুঠোফোনে টেলিটকের নম্বর থেকে এসএমএস যাওয়া শুরু হয়েছে। এছাড়া প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের ওয়েবসাইটে http://www.dpe.gov.bd ফল প্রকাশ করা হয়।

বৃহস্পতিবার প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর থেকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে সহকারী শিক্ষক নিয়োগের লক্ষ্যে তৃতীয় ও শেষ ধাপের লিখিত পরীক্ষা গত ৩ জুন অনুষ্ঠিত হয়। এ পরীক্ষায় ৩২ জেলার চাকরিপ্রার্থীরা অংশ নেন।

গত ৩ জুন শেষ ধাপের লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ৩২ জেলার পরীক্ষার্থীরা অংশ নেন।

এর মধ্যে ১৮ জেলার সম্পূর্ণ (জয়পুরহাট, বগুড়া, পাবনা, চুয়াডাঙ্গা, নড়াইল, মেহেরপুর, নারায়নগঞ্জ, গোপালগঞ্জ, শরীয়তপুর, কক্সবাজার, ঝালকাঠি, ভোলা, বরগুনা, সিলেট, ঠাকুগাঁও, দিনাজপুর, নীলফামারী, ও পঞ্চগড়) এবং ১৪ জেলার আংশিক (নওগাঁ, নাটোর, কুষ্টিয়া, ঝিনাইদহ, সাতক্ষীরা, বাগেরহাট, জামালপুর, রাজবাড়ী, পিরোজপুর, পটুয়াখালী, সুনামগঞ্জ, হবিগঞ্জ, কুড়িগ্রাম ও গাইবান্ধা) উপজেলার প্রার্থীরা অংশগ্রহণ করেন।

উত্তীর্ণদের জন্য বেশি কিছু শর্ত দেওয়া হয়েছে। সেগুলো হলো-

ক. এই ফলাফল সাময়িক ফলাফল হিসেবে গণ্য হবে। এ ফলাফলের ভিত্তিতে নির্বাচিত প্রার্থীগণ কেবল মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন। এই ফলে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ‘রাজস্বখাতভূক্ত সহকারী শিক্ষক নিয়োগ-২০২০ এর’ কোন শূন্য পদে নিয়োগের জন্য কোন নিশ্চয়তা প্রদান করে না।

খ. প্রকাশিত ফলাফলের যেকোনো পর্যায়ে কোনো প্রকার ভুল-ভ্রান্তি /ত্রুটি-বিচ্যুতি/মুদ্রণজনিত ত্রুটি পরিলক্ষিত হলে তা সংশোধন করার বা প্রয়োজনবোধে সংশ্লিষ্ট ফলাফল বাতিল করার এখতিয়ার কর্তৃপক্ষ সংরক্ষণ করে।

গ. কোনো প্রার্থী ইচ্ছাকৃতভাবে কোনো ভুল তথ্য প্রদান করলে কিংবা কোনো তথ্য গোপন করেছেন মর্মে প্রতীয়মান /প্রমাণিত হলে কর্তৃপক্ষ তার ফলাফল বা নির্বাচন বাতিল করতে পারবেন।

ঘ. প্রার্থীদের লিখিত পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বর ও মৌখিক পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে ‘সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নিয়োগ বিধিমালা, ২০১৯ অনুসরণপূর্বক নিয়োগের জন্য চূড়ান্তভাবে প্রার্থী নির্বাচন করা হবে।

ঙ. মৌখিক পরীক্ষার স্থান, তারিখ ও সময় পরবর্তীতে যথাসময়ে জানানো হবে।

মৌখিক পরীক্ষার জন্য নির্বাচিত প্রার্থীদের অনলাইনে আবেদনের আপলোডকৃত ছবি, আবেদনের কপি, লিখিত পরীক্ষার প্রবেশপত্র, নাগরিকত্ব ও স্থায়ী ঠিকানার স্বপক্ষে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান/পৌরসভা/সিটি কর্পোরেশনের ওয়ার্ড কাউন্সিলরের সনদপত্র, জাতীয় পরিচয় পত্র এবং শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদসহ পোষ্য সনদ (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র কমপক্ষে টেড কর্মকর্তা কর্তৃক সত্যায়িত করে ২৯ জুন ২০২২ তারিখের মধ্যে স্ব জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে আবশ্যিকভাবে জমা দিয়ে প্রাপ্তি স্বীকারপত্র সংগ্রহ করতে হবে।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে সকল সনদ ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের ফটোকপি (সত্যায়িত) জমা দেওয়ার সময় উক্ত কাগজপত্রের মূলকপি জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে দেখাতে হবে।

এসএএস/এমআর