কোরআন পোড়ানো নিয়ে সুইডেনকে যা বললো মার্কিন মুসলিম সংগঠন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৫ জানুয়ারি ২০২৩, ০৪:৪৮ পিএম
কোরআন পোড়ানো নিয়ে সুইডেনকে যা বললো মার্কিন মুসলিম সংগঠন
সুইডিশ সরকারকে কোরআন পোড়ানোর নিন্দা করার আহ্বান জানিয়েছে কাউন্সিল অন আমেরিকান-ইসলামিক রিলেশনস (সিএআইআর)

সুইডিশ সরকারকে কোরআন পোড়ানোর নিন্দা করার আহ্বান জানিয়েছে একটি মার্কিন মুসলিম সংগঠন। মঙ্গলবার কাউন্সিল অন আমেরিকান-ইসলামিক রিলেশনস (সিএআইআর) নামের ওই মুসলিম সংগঠনটি স্টকহোমে তুর্কি দূতাবাসের বাইরে মুসলিমদের পবিত্র গ্রন্থ কোরআন পুড়িয়ে ফেলার বিষয়ে নিন্দা জানাতে এমন আহ্বান জানায়।

মুসলিমদের অধিকার নিয়ে কাজ করা এ সংগঠনটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত সুইডিশ রাষ্ট্রদূত কারিন ওলোফসডোটারকে পাঠানো একটি চিঠিতে জানিয়েছে, ‘কাউন্সিল অন আমেরিকান-ইসলামিক রিলেশনস (সিএআইআর) সুইডেন সরকারকে কোরআন পোড়ানোর মতো ঘৃণ্য কাজের জন্য দায়ী করে না। তবে সুইডিশ প্রধানমন্ত্রী (উলফ) ক্রিস্টারসনের বিবৃতিতে স্পষ্টভাবে বোঝা যায় না যে দেশটির সরকার ইসলামোফোবিয়াকে ঘৃণা ও ধর্মান্ধতার একটি রূপ হিসেবে দ্ব্যর্থহীনভাবে প্রত্যাখ্যান করে।’

ওই মুসলিম সংগঠনটি আরও বলেছে, ‘দুর্ভাগ্যবশত এই কুরআন পোড়ানোর ঘটনা সুইডেনে ইসলামোফোবিয়ার একটি বিচ্ছিন্ন কাজ নয়। দেশটিতে ইসলামোফোবিয়া এবং এর সঙ্গে সম্পর্কিত মুসলিমবিরোধী পক্ষপাতমূলক ঘটনাগুলোতে সিএআইআর ও আমেরিকান মুসলিম সম্প্রদায় গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। এছাড়া এসব ঘৃণ্য ঘটনা ক্রমাগত বৃদ্ধির ক্ষেত্রে বিশ্বব্যাপী ধর্মীয় স্বাধীনতার বিষয়ে উদ্বিগ্ন ব্যক্তি, গণমাধ্যম, শিক্ষাবিদ ও সরকারের প্রতিবেদনে উৎকণ্ঠা বেড়েছে।

শনিবার ক্রিস্টারসন টুইট করেছেন যে মত প্রকাশের স্বাধীনতা গণতন্ত্রের একটি মৌলিক অংশ। তবে যা আইনীভাবে ঠিক তা অবশ্যই সব স্থানে উপযুক্ত কাজ নয়। অনেকের কাছে পবিত্র ধর্মগ্রন্থ পুড়িয়ে দেওয়া একটি গভীর অসম্মানজনক কাজ। আমি সব মুসলিমদের প্রতি আমার সহানুভূতি প্রকাশ করতে চাই, যারা স্টকহোমের ওই ঘটনায় ক্ষুব্ধ।’ 

এর আগে শনিবার স্টকহোমে তুর্কি দূতাবাসের বাইরে পুলিশের সুরক্ষায় এবং সুইডিশ সরকারের অনুমতি নিয়ে কোরআনের একটি কপি পুড়িয়ে দেন দেশটির উগ্রবাদী নেতা রাসমুস পালুদান। এ ঘৃণ্য ঘটনায় আরব এবং ইসলামী বিশ্বে নিন্দার ঝড় ওঠে।

সূত্র : আনাদোলু এজেন্সি

এমইউ